ইপেপার । আজবৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় বিশ্ব ঋতুকালীন স্বাস্থ্য দিবসের আলোচনা সভায় ডিসি ড. কিসিঞ্জার চাকমা

রোগ-ব্যাধী মুক্ত স্বাভাবিক জীবনযাপনে সচেতন হতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপলোড টাইম : ০৪:০৮:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪
  • / ২৫ বার পড়া হয়েছে

চুয়াডাঙ্গায় বিশ্ব ঋতুকালীন স্বাস্থ্য দিবস-২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে জেলায় কর্মরত ১১টি এনজিও’র সহায়তায় এ আলোচনা সভার  আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা।

সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘ঋতুকালীন স্বাস্থ্য পরিচর্যা বিষয়টিকে আমাদের সামনে নিয়ে আসার প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানাই। এই ধরনের দিবস পালনের মাধ্যমে সচেতন করলে কিশোরী এবং নারীরা প্যাড ব্যবহারে আরও আগ্রহী হবেন। রোগ-ব্যাধী মুক্ত স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে সকলকে সচেতন হতে হবে। এসময় জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা জেলায় কর্মরত সংশ্লিষ্ট সকল এনজিওকে এই প্রচেষ্টায় অংশগ্রহণে জন্য আহবান জানান।

সভায় ‘চুয়াডাঙ্গা জেলার ঋতুকালীন স্বাস্থ্য পরিস্থিতি ও আমাদের করণীয়’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ওয়েভ ফাউন্ডেশনের উপ-সমন্বয়কারী শাহেদ জামাল। এর আগে স্বাগত বক্তব্য দেন সুবর্ণ মানবকল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মিম্মা সুলতানা মিতা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন ব্র্যাকের চুয়াডাঙ্গা জেলা সমন্বয়ক মানিক ম্যাক্সিমিলিয়ার রুগা।

সভায় বিভিন্ন দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ চুয়াডাঙ্গা জেলায় কর্মরত সকল এনজিওর প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আয়োজনে সহযোগী সংস্থাগুলো হলো- ওয়েভ ফাউন্ডেশন, ব্র্যাক, পিএসইউএস, পিইউএস, আশা, ব্যুরো বাংলাদেশ, টিএমএসএস, আইডিই, আরডিআরএস, এসএসএস এবং উদ্দীপন। বিশ্ব ঋতুকালীন স্বাস্থ্য দিবস পালনের মধ্যদিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলায় ঋতুকালীন স্বাস্থ্য পরিচর্যা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

চুয়াডাঙ্গায় বিশ্ব ঋতুকালীন স্বাস্থ্য দিবসের আলোচনা সভায় ডিসি ড. কিসিঞ্জার চাকমা

রোগ-ব্যাধী মুক্ত স্বাভাবিক জীবনযাপনে সচেতন হতে হবে

আপলোড টাইম : ০৪:০৮:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

চুয়াডাঙ্গায় বিশ্ব ঋতুকালীন স্বাস্থ্য দিবস-২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে জেলায় কর্মরত ১১টি এনজিও’র সহায়তায় এ আলোচনা সভার  আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা।

সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘ঋতুকালীন স্বাস্থ্য পরিচর্যা বিষয়টিকে আমাদের সামনে নিয়ে আসার প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানাই। এই ধরনের দিবস পালনের মাধ্যমে সচেতন করলে কিশোরী এবং নারীরা প্যাড ব্যবহারে আরও আগ্রহী হবেন। রোগ-ব্যাধী মুক্ত স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে সকলকে সচেতন হতে হবে। এসময় জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা জেলায় কর্মরত সংশ্লিষ্ট সকল এনজিওকে এই প্রচেষ্টায় অংশগ্রহণে জন্য আহবান জানান।

সভায় ‘চুয়াডাঙ্গা জেলার ঋতুকালীন স্বাস্থ্য পরিস্থিতি ও আমাদের করণীয়’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ওয়েভ ফাউন্ডেশনের উপ-সমন্বয়কারী শাহেদ জামাল। এর আগে স্বাগত বক্তব্য দেন সুবর্ণ মানবকল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মিম্মা সুলতানা মিতা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন ব্র্যাকের চুয়াডাঙ্গা জেলা সমন্বয়ক মানিক ম্যাক্সিমিলিয়ার রুগা।

সভায় বিভিন্ন দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ চুয়াডাঙ্গা জেলায় কর্মরত সকল এনজিওর প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আয়োজনে সহযোগী সংস্থাগুলো হলো- ওয়েভ ফাউন্ডেশন, ব্র্যাক, পিএসইউএস, পিইউএস, আশা, ব্যুরো বাংলাদেশ, টিএমএসএস, আইডিই, আরডিআরএস, এসএসএস এবং উদ্দীপন। বিশ্ব ঋতুকালীন স্বাস্থ্য দিবস পালনের মধ্যদিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলায় ঋতুকালীন স্বাস্থ্য পরিচর্যা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করা হচ্ছে।