ইপেপার । আজরবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় বাসের ধাক্কায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপলোড টাইম : ০৮:১০:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪
  • / ৮৭ বার পড়া হয়েছে

নিহত রাজের স্বজনদের আহাজারি

চুয়াডাঙ্গায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় রাজ হোসেন (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্র নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ঈদের দ্বিতীয় দিন বিকেল পাঁচটার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বোয়ালমারী মসজিদের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় রাজের বন্ধু সজিব (১৮) গুরুতর জখম হন। তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। নিহত রাজ চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার বুজরুকগড়গড়ি মাদ্রাসাপাড়ার মজনু মিয়ার ছেলে ও চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র। আহত সজিব একই এলাকার কামাল হোসেনের ছেলে।

নিহত রাজের ফাইল ছবি

নিহত রাজের বন্ধু ফয়সাল বলেন, ‘সকালে পাঁচ-ছয়জন বন্ধুর সঙ্গে রাজ ও সজিব মোটরসাইকেলযোগে কুষ্টিয়ায় ঘুরতে গিয়েছিল। অন্যরা অনেক আগেই ফিরে এলেও রাজ ও সজিব পরে আসে। বিকেল পাঁচটার দিকে তারা বোয়ালমারী পৌঁছালে সামনে থেকে আসা রয়েল পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগে। এসময় রাস্তার ওপর পড়ে গুরুতর জখম হয়ে সজিব প্রাণে বাঁচলেও ঘটনাস্থলেই রাজের মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা একটি পাখিভ্যানযোগে রাজ ও জখম সজিবকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।’

প্রতক্ষদর্শীদের মতে, রাজ মোটরসাইকেলটি চালালেও তার মাথায় হেলমেট ছিল না। তবে মোটরসাইকেলের পেছনে বসে থাকা আরোহী হেলমেট পড়েছিলেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. জোবায়দা জয়া বলেন, ‘রাজকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পূর্বেই তার মৃত্যু হয়েছে। সজিবের মাথা ও একহাতে গুরুতর আঘাত পাওয়ায় জরুরি বিভাগ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে ভর্তি রাখা হয়েছে।’

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘যাত্রীবাহী পরিবহন ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে রাজ নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। যাত্রীবাহী বাস ও মোটরসাইকেলটি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ না পেলেও এ ঘটনায় থানায় মামলা হবে।’

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

চুয়াডাঙ্গায় বাসের ধাক্কায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

আপলোড টাইম : ০৮:১০:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪

চুয়াডাঙ্গায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় রাজ হোসেন (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্র নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ঈদের দ্বিতীয় দিন বিকেল পাঁচটার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বোয়ালমারী মসজিদের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় রাজের বন্ধু সজিব (১৮) গুরুতর জখম হন। তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। নিহত রাজ চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার বুজরুকগড়গড়ি মাদ্রাসাপাড়ার মজনু মিয়ার ছেলে ও চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র। আহত সজিব একই এলাকার কামাল হোসেনের ছেলে।

নিহত রাজের ফাইল ছবি

নিহত রাজের বন্ধু ফয়সাল বলেন, ‘সকালে পাঁচ-ছয়জন বন্ধুর সঙ্গে রাজ ও সজিব মোটরসাইকেলযোগে কুষ্টিয়ায় ঘুরতে গিয়েছিল। অন্যরা অনেক আগেই ফিরে এলেও রাজ ও সজিব পরে আসে। বিকেল পাঁচটার দিকে তারা বোয়ালমারী পৌঁছালে সামনে থেকে আসা রয়েল পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগে। এসময় রাস্তার ওপর পড়ে গুরুতর জখম হয়ে সজিব প্রাণে বাঁচলেও ঘটনাস্থলেই রাজের মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা একটি পাখিভ্যানযোগে রাজ ও জখম সজিবকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।’

প্রতক্ষদর্শীদের মতে, রাজ মোটরসাইকেলটি চালালেও তার মাথায় হেলমেট ছিল না। তবে মোটরসাইকেলের পেছনে বসে থাকা আরোহী হেলমেট পড়েছিলেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. জোবায়দা জয়া বলেন, ‘রাজকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পূর্বেই তার মৃত্যু হয়েছে। সজিবের মাথা ও একহাতে গুরুতর আঘাত পাওয়ায় জরুরি বিভাগ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে ভর্তি রাখা হয়েছে।’

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘যাত্রীবাহী পরিবহন ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে রাজ নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। যাত্রীবাহী বাস ও মোটরসাইকেলটি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ না পেলেও এ ঘটনায় থানায় মামলা হবে।’