ইপেপার । আজরবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গা শহর ও আলমডাঙ্গায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনা

মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু, আহত ৮

নিজস্ব প্রতিবেদক/ ভ্রাম্যমাণ প্রতিবেদক, আলমডাঙ্গা:
  • আপলোড টাইম : ০৮:৫৯:১৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪
  • / ২৬ বার পড়া হয়েছে


চুয়াডাঙ্গায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক গরু ব্যবসসায়ীর মৃত্যু ও ইজিবাইকের ৮ যাত্রী আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আলমডাঙ্গা উপজেলার আলমডাঙ্গা-হাটবোয়ালিয়া সড়কের কুয়াতলা-মুহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে বাসের ধাক্কায় গুরুতর জখম হন গরু ব্যবসায়ী রাজিবুল হক (৩০)। সেখান থেকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এদিকে, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর শহরের ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ডের নিকট যাত্রীবাসী বাসের ধাক্কায় একই ইজিবাইকের যাত্রী শিশু ও নারীসহ অন্তত ৮ জন আহত হয়। এসময় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, গতকাল সকাল ৯টার দিকে আলমডাঙ্গা-হাটবোয়ালিয়া সড়ক হয়ে হাটবোয়ালিয়া এলাকায় যাচ্ছিলেন রাজিবুল হক। পথে কুয়াতলা-মুহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিকট বটতলা মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা এসবি পরিবহনের ঢাকা মেট্রো-১৪-৮৯৯৮ রেজিস্ট্রেশনের দ্রুতগামী বাসটি তাকে ধাক্কা দেয়। এতে রাস্তার ওপর ছিটকে পড়লে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে গুরুতর জখম হন রাজিবুল। এসময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়। তবে পথেই তার মৃত্যু হয়।

নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, রাজিবুল হক গরুর ব্যাপারী ছিলেন। গরু কেনাবেচার জন্য মোটরসাইকেল নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় তিনি যাওয়া-আসা করতেন। গতকাল সকালেও নিজ মোটরসাইকেলযোগে হাটবোয়ালিয়া যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হন তিনি। বাবা ও মায়ের একমাত্র ছেলে রাজিবুল। বৈবাহিক জীবনে তার একটি সন্তানও রয়েছে।
এদিকে, মৃত্যুর পর রাজিবুলের লাশ তার নিজ বাড়িতে পৌঁছালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। মাগরিব নামাজের পর জানাজা শেষে গ্রাম্য কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়। এ বিষয়ে আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ গণি মিয়া বলেন, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না করায় লিখিত আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়ায় লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

অপর দিকে, গতকাল বেলা ১১টার দিকে ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ডের নিকট যাত্রীবাহী একটি বাস পেছন থেকে ইজিবাইকে ধাক্কা দেয়। এতে ওই ইজিবাইকের শিশু ও নারী যাত্রীসহ আন্তত আটজন আহত হন। আহতরা হলেন- সদর উপজেলার সুবদিয়া গ্রামের আকবর আলী (৫৬), আব্দুল হামিদ বিশ্বাস (৮৬), সাহারা বেগম (২৮), তার শিশু সন্তান সাইম আহমেদ (১৩), আমেনা বেগম (৩৫), আলমডাঙ্গা উপজেলার তিয়রবিলা গ্রামের বুলবুলি খাতুন (৪৫) ও তার মেয়ে আরিফা খাতুন (১৮)। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। এর মধ্যে তিনজনকে পরবর্তী চিকিৎসার জন্য ভর্তি রাখা হয় এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য আকবর আলীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরেন।

দুর্ঘটনার বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ সেকেন্দার আলী বলেন, ঘটনাস্থল থেকে বাসটি জব্দ করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ হয়নি। দুর্ঘটনার পর থেকে চালক পলাতক আছে। তাকে আটকের চেষ্ট করা হচ্ছে। অভিযোগ সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

চুয়াডাঙ্গা শহর ও আলমডাঙ্গায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনা

মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু, আহত ৮

আপলোড টাইম : ০৮:৫৯:১৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪


চুয়াডাঙ্গায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক গরু ব্যবসসায়ীর মৃত্যু ও ইজিবাইকের ৮ যাত্রী আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আলমডাঙ্গা উপজেলার আলমডাঙ্গা-হাটবোয়ালিয়া সড়কের কুয়াতলা-মুহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে বাসের ধাক্কায় গুরুতর জখম হন গরু ব্যবসায়ী রাজিবুল হক (৩০)। সেখান থেকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এদিকে, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর শহরের ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ডের নিকট যাত্রীবাসী বাসের ধাক্কায় একই ইজিবাইকের যাত্রী শিশু ও নারীসহ অন্তত ৮ জন আহত হয়। এসময় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, গতকাল সকাল ৯টার দিকে আলমডাঙ্গা-হাটবোয়ালিয়া সড়ক হয়ে হাটবোয়ালিয়া এলাকায় যাচ্ছিলেন রাজিবুল হক। পথে কুয়াতলা-মুহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিকট বটতলা মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা এসবি পরিবহনের ঢাকা মেট্রো-১৪-৮৯৯৮ রেজিস্ট্রেশনের দ্রুতগামী বাসটি তাকে ধাক্কা দেয়। এতে রাস্তার ওপর ছিটকে পড়লে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে গুরুতর জখম হন রাজিবুল। এসময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়। তবে পথেই তার মৃত্যু হয়।

নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, রাজিবুল হক গরুর ব্যাপারী ছিলেন। গরু কেনাবেচার জন্য মোটরসাইকেল নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় তিনি যাওয়া-আসা করতেন। গতকাল সকালেও নিজ মোটরসাইকেলযোগে হাটবোয়ালিয়া যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হন তিনি। বাবা ও মায়ের একমাত্র ছেলে রাজিবুল। বৈবাহিক জীবনে তার একটি সন্তানও রয়েছে।
এদিকে, মৃত্যুর পর রাজিবুলের লাশ তার নিজ বাড়িতে পৌঁছালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। মাগরিব নামাজের পর জানাজা শেষে গ্রাম্য কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়। এ বিষয়ে আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ গণি মিয়া বলেন, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না করায় লিখিত আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়ায় লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

অপর দিকে, গতকাল বেলা ১১টার দিকে ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ডের নিকট যাত্রীবাহী একটি বাস পেছন থেকে ইজিবাইকে ধাক্কা দেয়। এতে ওই ইজিবাইকের শিশু ও নারী যাত্রীসহ আন্তত আটজন আহত হন। আহতরা হলেন- সদর উপজেলার সুবদিয়া গ্রামের আকবর আলী (৫৬), আব্দুল হামিদ বিশ্বাস (৮৬), সাহারা বেগম (২৮), তার শিশু সন্তান সাইম আহমেদ (১৩), আমেনা বেগম (৩৫), আলমডাঙ্গা উপজেলার তিয়রবিলা গ্রামের বুলবুলি খাতুন (৪৫) ও তার মেয়ে আরিফা খাতুন (১৮)। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। এর মধ্যে তিনজনকে পরবর্তী চিকিৎসার জন্য ভর্তি রাখা হয় এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য আকবর আলীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরেন।

দুর্ঘটনার বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ সেকেন্দার আলী বলেন, ঘটনাস্থল থেকে বাসটি জব্দ করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ হয়নি। দুর্ঘটনার পর থেকে চালক পলাতক আছে। তাকে আটকের চেষ্ট করা হচ্ছে। অভিযোগ সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।