চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৭ ডিসেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দরজায় কড়া নাড়ছে ওমিক্রন, উদ্বেগ বাড়ছে

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
ডিসেম্বর ৭, ২০২১ ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন:

দরজায় কড়া নাড়ছে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন, উদ্বেগ বাড়ছে। আফ্রিকা ফেরত দুই জন নারী ক্রিকেট খেলোয়াড় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে তারা প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। গত ১ ডিসেম্বর তারা জিম্বাবুয়ে থেকে ঢাকায় ফেরেন। তবে তারা ওমিক্রনে আক্রান্ত কিনা সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ওমিক্রনের উপসর্গ মৃদু গলায় ব্যথা, সর্দি-জ্বর ও ক্লান্তিবোধ উল্লেখ করে বিশেষজ্ঞরা বলেন, ওমিক্রন দ্রুত সংক্রমিত করে। তবে ঝুঁকি কম। এর আরেকটি খারাপ দিক হলো, একই ব্যক্তিকে একাধিকার আক্রান্ত করতে পারে। এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের সবচেয়ে বেশিবার জিনগত রূপ বদল করা সংস্করণ এটি। তাই এই মুহূর্তে সবাইকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে হবে। সবাইকে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে, মাস্ক পরতে হবে। ওমিক্রন টিকা ও অ্যান্ট্রিবডিকে ফাঁকি দিয়ে মানুষকে সংক্রমিত করতে পারলেও মাস্ককে ফাঁকি দিতে পারে না। ‘ডেল্টা’ ধরনের চেয়ে অধিক ‘সংক্রামক’ ওমিক্রন ঠেকাতে ইতিমধ্যে দেশের সবকটি বিমানবন্দর ও স্হল বন্দরে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় শনাক্ত ‘ওমিক্রন’ ঠেকাতে দেশটি থেকে আসা নাগরিকদের কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। অথচ গত এক মাসে আফ্রিকা থেকে বাংলাদেশে আসা ২৪০ জনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই উদ্বেগ আরও বাড়িয়েছে। ওমিক্রন কতটা প্রাণহানি সেই ব্যাপারে এখনো গবেষণা চলছে। মূলত দক্ষিণ আফ্রিকার এক প্রদেশে এ ধরনের আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এর কয়েক দিনের মধ্যেই আফ্রিকার অন্যান্য  দেশ এবং ইউরোপ ও ভারতসহ এশিয়ায় এ ধরন শনাক্ত হয়েছে। আগামী দিনগুলোয় বিশ্বের অন্যান্য স্থানেও এ ধরন ছড়িয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ বলেন, করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন নিয়ে এখনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। এ পর্যন্ত যে ফল পাওয়া গেছে তাতে ভয়ঙ্কর কিছু পাওয়া যায়নি। ওমিক্রন একই ব্যক্তিকে একাধিকবার আক্রান্ত করতে পারে এবং দ্রুত ছড়ায়। উপসর্গ মৃদু গলা ব্যথা, সর্দি-জ্বর, শরীর ব্যথা ও ক্লান্তিবোধ। তিনি বলেন, ওমিক্রন ঠেকাতে সতর্ক থাকতে হবে। টিকা নেওয়ার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে, মাস্ক পরতে হবে। করোনা কবে যাবে তা কেউ বলতে পারে না।

আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এ এসএম আলমগীর বলেন, অফ্রিকা ফেরত দুই খেলোয়াড় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। তবে তারা ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত কিনা এখনো জানা যায়নি। সিকোয়েন্সি করে, জেনেটিক এনালাইসিস করে নিশ্চিত হওয়া যাবে ওমিক্রনে আক্রান্ত কিনা। এটা করতে আরও কয়েক দিন । তিনি বলেন, ওমিক্রন দ্রুত ছড়ায়। তবে মারাত্মক কিছু পাওয়া যায়নি।

করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন বিশ্বের অনেক দেশে ছড়িয়ে পড়লেও এটিকে এখনও বড় ধরনের ঝুঁকি দেখছেন না মার্কিন শীর্ষ সংক্রামক ও রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি। তার মতে ওমিক্রনের তীব্রতা সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে অধিক তথ্যের প্রয়োজন বিজ্ঞানীদের। স্থানীয় সময় রবিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রধান উপদেষ্টা ড. ফাউচি সিএনএন-এর স্টেট অব দ্য ইউনিয়নে এক সাক্ষাৎকার  দেন। সেখানেই তিনি করোনার নতুন ধরন সম্পর্কে কথা বলেন। ফাউচি বলেন, এই ভ্যারিয়েন্টের তীব্রতার যে প্রাথমিক ইঙ্গিত পাওয়া গেছে তা  বেশ আশাব্যঞ্জক। কিন্তু আরও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত ওমিক্রন দেখে যা মনে হচ্ছে এটি অতি সংক্রামক। তবে ঝুঁকি কম। এই ভ্যারিয়েন্টের বিষয়ে দ্রুত বিবৃতি দিলে একটু আগেই হয়ে যাবে। তবে ডেল্টার তুলনায় এটির ক্ষতির মাত্রা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়ার আগ পর্যন্ত আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। এই ভ্যারিয়েন্টে ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে শনাক্ত হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এই ভ্যারিয়েন্টের বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে। সংক্রমণ এড়াতে করোনার প্রতিষেধক টিকার বুস্টার ডোজ নেওয়ার তাগিদ দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।