চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৩ ডিসেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দুটি দোকানে অগ্নিকাণ্ড, ৩ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে সদর ইউএনও শামীম ভুইয়া, নানা সহায়তা
প্রতিবেদক, হিজলগাড়ী
ডিসেম্বর ৩, ২০২১ ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হিজলগাড়ী বাজারে অগ্নিকাণ্ডে দুটি দোকান ভস্মিভূত হয়েছে। আগুনের লেলিহান শিখায় দুটি দোকানে নগদ টাকা ও মালামালসহ সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে প্রায় আনুমানিক ৩ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। এঘটনায় নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন দোকান মালিক। এদিকে, অগ্নিকাণ্ডে দোকান পুড়ে যাওয়ার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে দোকানিকে খাদ্য ও অর্থ সহযোগিতা প্রদান করেছেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শামীম ভুইয়া।

জানা গেছে, গত বুধবার দিবাগত রাত আনুমানিক তিনটার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হিজলগাড়ী বাজারের দর্শনা রোডে সিও অফিসের সামনে অবস্থিত হিজলগাড়ী গ্রামের আব্দুল বারিকের মুদি দোকান আগুন লেগে দোকানের মধ্য থাকা নগদ সাড়ে ৭ হাজার টাকা, টিভি, ফ্রিজ ও অন্যান্য মালামাল এবং মুদি দোকানের সাথেই ওয়েল্ডিং দোকানের সোলার প্যালেন, ব্যাটারীসহ ওয়েল্ডিং এর অন্যান্য যন্ত্রাংশ পুড়ে ভস্মীভুত হয়ে যায়।

দোকান মালিক আব্দুল বারিক জানান, বুধবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১১টার দিকে দোকান বন্ধ করে তিনি বাড়িতে চলে যায়। পরে রাত আনুমানিক সাড়ে তিনটার দিকে বাজারের পাহারাদারের মাধ্যমে দোকানে আগুন লাগার সংবাদ পেয়ে দ্রুত দোকানে ছুটে আসেন। তিনি দোকানে এসে দেখেন স্থানীয় হিজলগাড়ী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই তাপস সরকার ফোর্স নিয়ে বাজারের অন্য পাহারাদারদের সহযোগিতায় আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন। তবে ওয়েল্ডিং-এর দোকানের মধ্যে দুটি বড় গ্যাস সিলিন্ডার থাকায় দোকানের মধ্যে যেতে পারেননি। হিজলগাড়ী ক্যাম্প পুলিশ দ্রুত দর্শনা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে কল দিলে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ততক্ষণে সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

অগ্নিকাণ্ডে দোকান পুড়ে যাওয়ার সংবাদ পেয়ে সকাল ৮টার দিকে দৈনিক সময়ের সমীকরণ-এর হিজলগাড়ী প্রতিনিধি আরিফ হাসান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিষয়টি তাৎক্ষণিক বেগমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী হোসেন জোয়ার্দ্দার ও চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করেন। খবর পেয়ে বেলা একটার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম ভুইয়া ঘটনাস্থলে এসে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিক আব্দুল বারিক ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলেন।

এসময় তিনি দোকান মালিককে খাদ্য সহযোগিতা প্রদান করেন ও উপজেলার পক্ষ থেকে নগদ অর্থ সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। একই সাথে বেগমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে ক্ষতিগ্রস্ত দোকানিকে সহযোগিতা দিতে নিদের্শ দিলে বেগমপুর ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক ২ বান টিন প্রদান করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার প্রশাসনিক কর্মকর্তা আইনাল হক, বেগমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী হোসেন জোয়ার্দ্দার, ইউপি সচিব ফয়জুর রহমান, হিজলগাড়ী প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা শামীম হোসেন মিজি, হিজলগাড়ী পুলিশ ক্যাম্পের টুআইসি সবেদ আলী প্রমুখ।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।