চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ২৬ অক্টোবর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গড়াইটুপির জামালপুরে আপত্তিকর অবস্থায় প্রেমিক-প্রেমিকা আটক

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
অক্টোবর ২৬, ২০২১ ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন:
চুয়াডাঙ্গা সদরের গড়াইটুপি ইউনিয়নের জামালপুরে প্রেমের সম্পর্কের জেরে প্রেমিককে ডেকে বিপাকে ফেলেছেন মায়া খাতুন (১৫) নামের এক প্রেমিকা। জানা গেছে, কয়েকমাস পূর্বে গড়াইটুপি গ্রামের মেলার মাঠ পাড়ার কুয়েত প্রবাসী হাকিম উদ্দীনের ছেলে সাব্বীর হোসেন (১৭) ও জামালপুর গ্রামের রশীদের মেয়ে ৮ম শ্রেণি পড়ুয়া মায়া খাতুনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরই সূত্র ধরে গতকাল রাত ১০টার দিকে মায়া তার বাড়ির পিছনে বাঁশবাগানে সাব্বিরকে ডাকে। তবে বিষয়টি পাড়ার কয়েকজনের নজরে পড়ে। বিষয়টি দেখার জন্য কয়েজন মিলে বাঁশবাগানে গেলে আপত্তিকর অবস্থায় দুজনকে আটক করে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অনেকদিন যাবত দুজন রাতের আঁধারে দেখা এবং অবৈধ সম্পর্কে জড়িত হতো। তবে এর আগে দুজনের অশ্লীল কর্মকাণ্ডের তথ্য থাকলেও হাতেনাতে ধরতে পারেনি কেউ। গতকাল বিষয়টি কয়েকজন দেখে নেওয়ায় তাদেরকে হাতেনাতে ধরে উত্তম-মাধ্যম দেয় ও দুজনকে ঘরে আটকে রাখে। পরে দুজনরের বিয়ে দেওয়ার সকল প্রস্তুতি নিলেও বাল্যবিবাহ পণ্ড করে দেয় পুলিশ।
তিতুদহ ক্যাম্প ইনচার্জ এসআই আমিনুল হক বলেন, এ বিষয় জানতে পেরে সাথে সাথে বাল্যবিবাহ বন্ধ ও দুজনের অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অপরাধে একজনকে আটক করে ক্যাম্পে রাখা হয়েছে।
এএসআই কুদ্দুস আলী বলেন, গড়াইটুপি ইউনিয়ন পরিষদের কয়েকজন মেম্বার ও স্থানীয় নেতা-কর্মীসহ কয়েকজন মিলে দুজনের বাল্যবিবাহের প্রস্তুতি চলাকালীন সময় আমরা সাব্বির হোসেনকে আটক করে ক্যাম্পে আটক করে নিয়ে আসি এবং মায়া ও তার পরিবারকে ক্যাম্পে হাজির করতে বলা হয়েছে। এ নিউজ লেখা পর্যন্ত সাব্বির ক্যাম্প হাজতে রাখে পুলিশ।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।