ইপেপার । আজরবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এনজিও’র কিস্তি দিতে না পেরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

ভ্রাম্যমাণ প্রতিবেদক, আলমডাঙ্গা:
  • আপলোড টাইম : ১১:১৫:৩৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪
  • / ১১ বার পড়া হয়েছে

আলমডাঙ্গায় এনজিওর ঋণের কিস্তি দিতে না পেরে ঘরের আড়ায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন পাঁচ সন্তানের জননী বুড়ি খাতুন (৬০) নামের এক গৃহবধূ। গত সোমবার বেলা ২টার দিকে ঘরের আড়ায় গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। বুড়ি খাতুন আলমডাঙ্গা পশুহাট এলাকার মৃত মতিয়ার রহমানের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুড়ি খাতুনের পাঁচ ছেলে। পাঁচ ছেলের মধ্যে দুই ছেলে বিদেশে থাকেন। আর দুজন রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। বিভিন্ন এনজিও থেকে মোটা অঙ্কের কিস্তি তুলে ছেলেদের বিদেশে পাঠান বুড়ি খাতুন। কিন্তু বিদেশ যাওয়ার পর আর কোনো সন্তান মায়ের খোঁজখবর রাখেননি। কিস্তির টাকাও দেননি। এদিকে দিন যত যায় কিস্তির টাকার জন্য তত চাপ বাড়তে থাকে। অবশেষে ঋণের কিস্তি দিতে না পেরে আত্মহত্যার করেন তিনি। আলমডাঙ্গা থানা সূত্রে জানা গেছে, লাশ সোমবারই ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল দুপুরে পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

এনজিও’র কিস্তি দিতে না পেরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

আপলোড টাইম : ১১:১৫:৩৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪

আলমডাঙ্গায় এনজিওর ঋণের কিস্তি দিতে না পেরে ঘরের আড়ায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন পাঁচ সন্তানের জননী বুড়ি খাতুন (৬০) নামের এক গৃহবধূ। গত সোমবার বেলা ২টার দিকে ঘরের আড়ায় গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। বুড়ি খাতুন আলমডাঙ্গা পশুহাট এলাকার মৃত মতিয়ার রহমানের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুড়ি খাতুনের পাঁচ ছেলে। পাঁচ ছেলের মধ্যে দুই ছেলে বিদেশে থাকেন। আর দুজন রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। বিভিন্ন এনজিও থেকে মোটা অঙ্কের কিস্তি তুলে ছেলেদের বিদেশে পাঠান বুড়ি খাতুন। কিন্তু বিদেশ যাওয়ার পর আর কোনো সন্তান মায়ের খোঁজখবর রাখেননি। কিস্তির টাকাও দেননি। এদিকে দিন যত যায় কিস্তির টাকার জন্য তত চাপ বাড়তে থাকে। অবশেষে ঋণের কিস্তি দিতে না পেরে আত্মহত্যার করেন তিনি। আলমডাঙ্গা থানা সূত্রে জানা গেছে, লাশ সোমবারই ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল দুপুরে পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।