ইপেপার । আজশনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় পৃথক দুটি পাকা সড়ক নির্মাণকাজের উদ্বোধনকালে এমপি টগর

সোনার দেশ গড়তে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে

প্রতিবেদক, হিজলগাড়ী ও তিতুদহ:
  • আপলোড টাইম : ১১:০৯:০৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪
  • / ১৫ বার পড়া হয়েছে

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হিজলগাড়ী-কোটালী ও তিতুদহ ইউনিয়নের বলদিয়া বটতলা-ছোটশলুয়া পর্যন্ত পৃথক দুটি পাকা সড়ক নির্মাণকাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টা ও দুপুর ১২টায় সড়ক দুটির নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর। হিজলগাড়ী-কোটালী সড়ক নির্মাণে ব্যয় হবে ৯ কোটি ১২ লাখ ৭৫০ টাকা এবং বলদিয়া বটতলা-ছোটশলুয়া সড়ক নির্মাণ কাজের ব্যয় ৪ কোটি ২১ লাখ ৬ হাজার ৯০১ টাকা।

সড়ক নির্মাণকাজের নাম ফলক উদ্বোধনের পূর্বে বলদিয়ায় হোসেনের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি থেকে বক্তব্য দেন এমপি আলী আজগার টগর। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘এই রাস্তার পাকাকরণ কাজ শেষ হলে কয়েক হাজার মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানুষের দুর্ভোগ লাঘব করে দেশকে স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। দেশের এই উন্নয়ন ধরে রাখতে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের আন্তরিক সহযোগিতা প্রয়োজন। দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। বর্তমান সরকার দেশে যে উন্নয়ন করেছে তা ইতিহাসে বিরল।’

তিনি বলেন, ‘এক যুগ আগেও এলাকার রাস্তাগুলো দিয়ে চলাচল করা যেত না। যোগাযোগ ব্যবস্থা খারাপ ছিল। বঙ্গবন্ধু কন্যা ক্ষমতায় আসার পর থেকে সারা দেশে ব্যাপক উন্নয়ন করে চলেছেন। আজ দুটি পাকা রাস্তার নির্মাণকাজের উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে আপনাদের দীর্ঘদিনের কাঙ্খিত স্বপ্ন পূরণ করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে গ্রামের কাঁচা রাস্তা পাকা হয়েছে। নির্মাণ করা হচ্ছে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, হাসপাতাল, ব্রিজ, কালভার্ট, সেতু। যোগাযোগ ব্যবস্থার এই উন্নতিতে ব্যবসার প্রসার বেড়েছে। বিএনপি-জামায়াতের সময় দেশে কোনো উন্নয়ন হয়নি, এমনকি হয়নি মসজিদ নির্মাণও। প্রতিশ্রুতি দিয়ে তা বাস্তবায়ন একমাত্র আওয়ামী লীগ সরকারকেই করতে দেখা গেছে। বড়শলুয়া কলেজ নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। তারপরও আমি কলেজ করেছি। ডিগ্রি পর্যন্ত উন্নীত করা হয়েছে, গ্রামের ছেলে-মেয়েরা আজ বাড়ি থেকে ডিগ্রি পাশ করছে। গিরিশনগর হাইস্কুল ছিল চালার মতো, সেখানে বিল্ডিং হয়েছে। রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন হয়েছে। আগামী সাড়ে ৪ বছরের মধ্যে আমার নির্বাচনী এলাকার সকল রাস্তা পাকা করা হবে ইনশাআল্লাহ।’

পৃথক দুটি সড়ক নির্মাণকাজের উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন তিতুদহ ইউপি চেয়ারম্যান ও তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শুকুর আলী, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার আখতার হোসেন ও তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজিম মাস্টার।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গড়াইটুপি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি (একাংশ) আব্দুল মতিন খোকন, তিতুদহ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রাশেদ রেজা, গড়াইটুপি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রাশেদুজ্জামান পলাশ, তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম, কেরুর সাবেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা শাহাবুদ্দিন আহমেদ, দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান ছোট, এমপি পুত্র মুনতাসির আজগার আকাশ, নবগঠিত নেহালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হামিদুল্লাহ, আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান, আব্দুল্লাহ, মীর মফিজ উদ্দিন, জাহাঙ্গীর আলম, রাসেল হোসে, সোহরাব, সাদেক, মজিবুল, অহিদ, আশরাফুল প্রমুখ।

তিতুদহ ইউনিয়নের বলদিয়া বটতলা-ছোটশলুয়া পাকা সড়ক নির্মাণকাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদ। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা হায়দার মল্লিক, সাদেক আলী, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাগণ, তিতুদহ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যগণসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

চুয়াডাঙ্গায় পৃথক দুটি পাকা সড়ক নির্মাণকাজের উদ্বোধনকালে এমপি টগর

সোনার দেশ গড়তে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে

আপলোড টাইম : ১১:০৯:০৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হিজলগাড়ী-কোটালী ও তিতুদহ ইউনিয়নের বলদিয়া বটতলা-ছোটশলুয়া পর্যন্ত পৃথক দুটি পাকা সড়ক নির্মাণকাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টা ও দুপুর ১২টায় সড়ক দুটির নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর। হিজলগাড়ী-কোটালী সড়ক নির্মাণে ব্যয় হবে ৯ কোটি ১২ লাখ ৭৫০ টাকা এবং বলদিয়া বটতলা-ছোটশলুয়া সড়ক নির্মাণ কাজের ব্যয় ৪ কোটি ২১ লাখ ৬ হাজার ৯০১ টাকা।

সড়ক নির্মাণকাজের নাম ফলক উদ্বোধনের পূর্বে বলদিয়ায় হোসেনের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি থেকে বক্তব্য দেন এমপি আলী আজগার টগর। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘এই রাস্তার পাকাকরণ কাজ শেষ হলে কয়েক হাজার মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানুষের দুর্ভোগ লাঘব করে দেশকে স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। দেশের এই উন্নয়ন ধরে রাখতে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের আন্তরিক সহযোগিতা প্রয়োজন। দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। বর্তমান সরকার দেশে যে উন্নয়ন করেছে তা ইতিহাসে বিরল।’

তিনি বলেন, ‘এক যুগ আগেও এলাকার রাস্তাগুলো দিয়ে চলাচল করা যেত না। যোগাযোগ ব্যবস্থা খারাপ ছিল। বঙ্গবন্ধু কন্যা ক্ষমতায় আসার পর থেকে সারা দেশে ব্যাপক উন্নয়ন করে চলেছেন। আজ দুটি পাকা রাস্তার নির্মাণকাজের উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে আপনাদের দীর্ঘদিনের কাঙ্খিত স্বপ্ন পূরণ করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে গ্রামের কাঁচা রাস্তা পাকা হয়েছে। নির্মাণ করা হচ্ছে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, হাসপাতাল, ব্রিজ, কালভার্ট, সেতু। যোগাযোগ ব্যবস্থার এই উন্নতিতে ব্যবসার প্রসার বেড়েছে। বিএনপি-জামায়াতের সময় দেশে কোনো উন্নয়ন হয়নি, এমনকি হয়নি মসজিদ নির্মাণও। প্রতিশ্রুতি দিয়ে তা বাস্তবায়ন একমাত্র আওয়ামী লীগ সরকারকেই করতে দেখা গেছে। বড়শলুয়া কলেজ নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। তারপরও আমি কলেজ করেছি। ডিগ্রি পর্যন্ত উন্নীত করা হয়েছে, গ্রামের ছেলে-মেয়েরা আজ বাড়ি থেকে ডিগ্রি পাশ করছে। গিরিশনগর হাইস্কুল ছিল চালার মতো, সেখানে বিল্ডিং হয়েছে। রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন হয়েছে। আগামী সাড়ে ৪ বছরের মধ্যে আমার নির্বাচনী এলাকার সকল রাস্তা পাকা করা হবে ইনশাআল্লাহ।’

পৃথক দুটি সড়ক নির্মাণকাজের উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন তিতুদহ ইউপি চেয়ারম্যান ও তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শুকুর আলী, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার আখতার হোসেন ও তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজিম মাস্টার।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গড়াইটুপি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি (একাংশ) আব্দুল মতিন খোকন, তিতুদহ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রাশেদ রেজা, গড়াইটুপি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রাশেদুজ্জামান পলাশ, তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম, কেরুর সাবেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা শাহাবুদ্দিন আহমেদ, দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান ছোট, এমপি পুত্র মুনতাসির আজগার আকাশ, নবগঠিত নেহালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হামিদুল্লাহ, আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান, আব্দুল্লাহ, মীর মফিজ উদ্দিন, জাহাঙ্গীর আলম, রাসেল হোসে, সোহরাব, সাদেক, মজিবুল, অহিদ, আশরাফুল প্রমুখ।

তিতুদহ ইউনিয়নের বলদিয়া বটতলা-ছোটশলুয়া পাকা সড়ক নির্মাণকাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদ। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা হায়দার মল্লিক, সাদেক আলী, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাগণ, তিতুদহ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যগণসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।