ইপেপার । আজরবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শৈলকুপায় ১ হাজার সরকারি গাছ উপড়ে ফেললো দুর্বৃত্তরা

ঝিনাইদহ অফিস:
  • আপলোড টাইম : ০৮:৪০:৩২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪
  • / ১৬ বার পড়া হয়েছে

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় জিকে সেচ খালের পাড়ে লাগানো ১ হাজার গাছ উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। গত শনিবার রাতে উপজেলার কাজীপাড়া গ্রামের কুড়ির মাঠের ডি-৭ এন খালে এ ঘটনা ঘটে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা জানান, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সারাদেশে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আওতায় গত ২০ জুন কাজীপাড়া গ্রামের কুড়ির মাঠের ডি-৭ এন খালের দুই পাড়ে প্রায় ৩ হাজার ফলজ, বনজ গাছের চারা রোপণ করা হয়। গাছ রোপণ করে সেটা রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বাঁশের খাঁচা দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়। শনিবার রাতে দুর্বৃত্তরা খাল পাড়ের প্রায় ১ হাজার গাছ উপড়ে ফেলেছে।

ফুলহরি ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আবু বকর বিশ্বাস বলেন, কিছুদিন হলো এই খালের পাড়ে গাছ লাগানো হয়েছে। স্থানীয় ভাবে তা দেখভাল করা হচ্ছে। গাছগুলো যেন নষ্ট না হয় সেজন্য বাঁশের খাঁচা দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে। শনিবার রাত ১১ টার দিকে স্থানীয় কিছু দুর্বৃত্ত প্রায় ১ হাজার গাছ উপড়ে ফেলেছে। আর খাঁচাগুলো খালের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। আমরা এই অপকর্মের বিচার দাবি করছি।
ফুলহরি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আওলাদ হোসেন বলেন, সরকার পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় এই বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি হাতে নিয়েছিলো। কিন্তু এলাকার কিছু লোক সেই উন্নয়ন মেনে নিতে পারছে না। তাই তারা গাছগুলো উপড়ে ফেলেছে। এ ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের শনাক্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা সরকারের অনুন্নয়ন ও রাজস্ব খাতভুক্ত প্রকল্পের আওতায় ওই খালে ৩ হাজার গাছের চারা রোপণ করেছিলাম। গাছগুলো বড় হলে এলাকার মানুষই উপকৃত হতো। কিন্তু প্রায় ১ হাজার গাছ নষ্ট করে দিয়েছে। আমরা এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানায় মামলা করব।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

শৈলকুপায় ১ হাজার সরকারি গাছ উপড়ে ফেললো দুর্বৃত্তরা

আপলোড টাইম : ০৮:৪০:৩২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় জিকে সেচ খালের পাড়ে লাগানো ১ হাজার গাছ উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। গত শনিবার রাতে উপজেলার কাজীপাড়া গ্রামের কুড়ির মাঠের ডি-৭ এন খালে এ ঘটনা ঘটে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা জানান, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সারাদেশে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আওতায় গত ২০ জুন কাজীপাড়া গ্রামের কুড়ির মাঠের ডি-৭ এন খালের দুই পাড়ে প্রায় ৩ হাজার ফলজ, বনজ গাছের চারা রোপণ করা হয়। গাছ রোপণ করে সেটা রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বাঁশের খাঁচা দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়। শনিবার রাতে দুর্বৃত্তরা খাল পাড়ের প্রায় ১ হাজার গাছ উপড়ে ফেলেছে।

ফুলহরি ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আবু বকর বিশ্বাস বলেন, কিছুদিন হলো এই খালের পাড়ে গাছ লাগানো হয়েছে। স্থানীয় ভাবে তা দেখভাল করা হচ্ছে। গাছগুলো যেন নষ্ট না হয় সেজন্য বাঁশের খাঁচা দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে। শনিবার রাত ১১ টার দিকে স্থানীয় কিছু দুর্বৃত্ত প্রায় ১ হাজার গাছ উপড়ে ফেলেছে। আর খাঁচাগুলো খালের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। আমরা এই অপকর্মের বিচার দাবি করছি।
ফুলহরি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আওলাদ হোসেন বলেন, সরকার পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় এই বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি হাতে নিয়েছিলো। কিন্তু এলাকার কিছু লোক সেই উন্নয়ন মেনে নিতে পারছে না। তাই তারা গাছগুলো উপড়ে ফেলেছে। এ ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের শনাক্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা সরকারের অনুন্নয়ন ও রাজস্ব খাতভুক্ত প্রকল্পের আওতায় ওই খালে ৩ হাজার গাছের চারা রোপণ করেছিলাম। গাছগুলো বড় হলে এলাকার মানুষই উপকৃত হতো। কিন্তু প্রায় ১ হাজার গাছ নষ্ট করে দিয়েছে। আমরা এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানায় মামলা করব।