ইপেপার । আজবৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচনে প্রার্থী হলেন যশ, নুসরাতের সমর্থন

বিনোদন প্রতিবেদন:
  • আপলোড টাইম : ০৮:৫৮:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০২৪
  • / ৯৬ বার পড়া হয়েছে

টালিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্তকে এর আগে রাজনীতির মাঠে দেখা গেছে। ২০২১ সালের ভারতের বিধানসভা ভোটে চণ্ডীতলা কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। কিন্তু জয় লাভ করতে পারেননি এ অভিনেতা। জানা গেছে, আবারও ভোটে লড়তে যাচ্ছেন যশ। তবে এবার তিনি ইম্পার (ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন পিকচার্স অ্যাসোসিয়েশন) আসন্ন ভোটের প্রার্থী। গতকাল শুক্রবার ‘ইম্পা’র নির্বাচন। সেখানে প্রযোজক বিভাগে যশের নাম রয়েছে। সম্প্রতি নিজের প্রযোজনা সংস্থা শুরু করেছেন যশ। এ প্রসঙ্গে সংস্থার সভাপতি পিয়া সেনগুপ্ত ভারতীয় গণমাধ্যমকে বললেন, ‘ইন্ডাস্ট্রিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে নতুনদের যোগদান করা প্রয়োজন। নতুনদের মধ্যে অনেকেই তো এখন প্রযোজক। যশের রাজনীতির ময়দানে ভোটে লড়ার পূর্ব অভিজ্ঞতাও রয়েছে। সেই ভাবনা থেকেই ওকে অনুরোধ করি।’ এখন বনি সেনগুপ্ত একজন প্রযোজক। তাই এ প্রথম ইম্পার নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন পিয়ার ছেলে তথা অভিনেতা বনি সেনগুপ্ত। ‘ইম্পা’য় পরিবেশক, প্রদর্শক, প্রযোজক-সহ বেশ কয়েকটি বিভাগে ভোট গ্রহণ হবে। প্রযোজক বিভাগের চেয়ারম্যান পদে লড়বেন ঋতব্রত ভট্টাচার্য। তার অধীনে ছয়জনের সদস্যপদে রয়েছে পিয়া সেনগুপ্ত, পল্লবী চট্টোপাধ্যায়, প্রদীপ চুড়িওয়াল, রেশমি মিত্র, বিজয় কল্যাণী ও যশের নাম। কিছুদিন আগে নির্বাচন বিষয়ক ‘ইম্পা’র সদস্যদের একটি ঘরোয়া বৈঠক হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন যশ ও নুসরাত। যশ বলেন, ‘আমি এখনো নতুন। পুরো বিষয়টা জানি না। কিন্তু আমার সিনিয়রদের পাশে পেয়েছি। আশা করছি আমরা জিতব।’
আসছে ভারতীয় লোকসভা নির্বাচনে টিকিট পাননি নুসরাত। ইম্পার নির্বাচনে তিনি নিজে কোনো পদে লড়ছেন না। কিন্তু অভিনেত্রী বলেন, ‘আমরা এখানে সব থেকে নবীন। সবার আশীর্বাদে যতটা জায়গা পেয়েছি তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। যশ ভোটে লড়ছে। আমি ওকে সমর্থন করতেই এসেছি।’

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

নির্বাচনে প্রার্থী হলেন যশ, নুসরাতের সমর্থন

আপলোড টাইম : ০৮:৫৮:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০২৪

টালিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্তকে এর আগে রাজনীতির মাঠে দেখা গেছে। ২০২১ সালের ভারতের বিধানসভা ভোটে চণ্ডীতলা কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। কিন্তু জয় লাভ করতে পারেননি এ অভিনেতা। জানা গেছে, আবারও ভোটে লড়তে যাচ্ছেন যশ। তবে এবার তিনি ইম্পার (ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন পিকচার্স অ্যাসোসিয়েশন) আসন্ন ভোটের প্রার্থী। গতকাল শুক্রবার ‘ইম্পা’র নির্বাচন। সেখানে প্রযোজক বিভাগে যশের নাম রয়েছে। সম্প্রতি নিজের প্রযোজনা সংস্থা শুরু করেছেন যশ। এ প্রসঙ্গে সংস্থার সভাপতি পিয়া সেনগুপ্ত ভারতীয় গণমাধ্যমকে বললেন, ‘ইন্ডাস্ট্রিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে নতুনদের যোগদান করা প্রয়োজন। নতুনদের মধ্যে অনেকেই তো এখন প্রযোজক। যশের রাজনীতির ময়দানে ভোটে লড়ার পূর্ব অভিজ্ঞতাও রয়েছে। সেই ভাবনা থেকেই ওকে অনুরোধ করি।’ এখন বনি সেনগুপ্ত একজন প্রযোজক। তাই এ প্রথম ইম্পার নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন পিয়ার ছেলে তথা অভিনেতা বনি সেনগুপ্ত। ‘ইম্পা’য় পরিবেশক, প্রদর্শক, প্রযোজক-সহ বেশ কয়েকটি বিভাগে ভোট গ্রহণ হবে। প্রযোজক বিভাগের চেয়ারম্যান পদে লড়বেন ঋতব্রত ভট্টাচার্য। তার অধীনে ছয়জনের সদস্যপদে রয়েছে পিয়া সেনগুপ্ত, পল্লবী চট্টোপাধ্যায়, প্রদীপ চুড়িওয়াল, রেশমি মিত্র, বিজয় কল্যাণী ও যশের নাম। কিছুদিন আগে নির্বাচন বিষয়ক ‘ইম্পা’র সদস্যদের একটি ঘরোয়া বৈঠক হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন যশ ও নুসরাত। যশ বলেন, ‘আমি এখনো নতুন। পুরো বিষয়টা জানি না। কিন্তু আমার সিনিয়রদের পাশে পেয়েছি। আশা করছি আমরা জিতব।’
আসছে ভারতীয় লোকসভা নির্বাচনে টিকিট পাননি নুসরাত। ইম্পার নির্বাচনে তিনি নিজে কোনো পদে লড়ছেন না। কিন্তু অভিনেত্রী বলেন, ‘আমরা এখানে সব থেকে নবীন। সবার আশীর্বাদে যতটা জায়গা পেয়েছি তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ। যশ ভোটে লড়ছে। আমি ওকে সমর্থন করতেই এসেছি।’