ইপেপার । আজ রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

অবশেষে মদনা গ্রামের সড়ক সংস্কারের দাবীতে জেলা প্রশাসক বরাবর গ্রামবাসীর লিখিত আবেদন

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ১২:০৫:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬
  • / ৩৭৪ বার পড়া হয়েছে

DSC03458

দর্শনা অফিস: অবশেষে মদনা গ্রামের সড়ক সংস্কারের দাবীতে জেলা প্রশাসক বরাবর গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে লিখিত আবেদন করা ,হয়েছে। চলতি বর্ষা মৌসুমে মদনা ইউপির ১নং ওয়ার্ডের মধ্যে চলাচলকারী সড়কগুলো বর্ষার পানিতে ভেঙ্গে গভীর খাদের সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে আজিদুল হক মালিতার বড়ির নিকট সড়কের মাঝখানে ৪/৫ ফুট গর্ত হয়ে গেছে। এছাড়া আবেদ আলী বাড়ির নিকট ও আবুল ঘোলার বাড়ির কাছে এবং ইদ্রিস আলীর দোকানের সামনে বিগত দু বছর ধরে চলাচল করা কষ্টসাধ্য হয়ে পড়লেও দেখার কেউ নেই। চলতি মৌসুমে কৃষকরা তাদের ধান, পাট, পাটকাটি ও অন্যান্য ফসল গরুর গাড়ীতে বহন করে বাড়িতে আনতে পারছে না। ক্ষেত থেকে ফসল নিয়ে বাড়ি পৌঁছাতে গ্রামের চাষীরা পড়ছেন চরম বিপাকে। এসব সড়কগুলো এতটাই খারাপ যে পায়ে হেঁটে চলাচল করাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। ফলে সড়কগুলো মেরামতের দাবীতে নিরুপায় গ্রামবাসী গণ-স্বাক্ষর করে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রসাশক বরাবর আবেদন করেছেন।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

অবশেষে মদনা গ্রামের সড়ক সংস্কারের দাবীতে জেলা প্রশাসক বরাবর গ্রামবাসীর লিখিত আবেদন

আপলোড টাইম : ১২:০৫:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬

DSC03458

দর্শনা অফিস: অবশেষে মদনা গ্রামের সড়ক সংস্কারের দাবীতে জেলা প্রশাসক বরাবর গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে লিখিত আবেদন করা ,হয়েছে। চলতি বর্ষা মৌসুমে মদনা ইউপির ১নং ওয়ার্ডের মধ্যে চলাচলকারী সড়কগুলো বর্ষার পানিতে ভেঙ্গে গভীর খাদের সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে আজিদুল হক মালিতার বড়ির নিকট সড়কের মাঝখানে ৪/৫ ফুট গর্ত হয়ে গেছে। এছাড়া আবেদ আলী বাড়ির নিকট ও আবুল ঘোলার বাড়ির কাছে এবং ইদ্রিস আলীর দোকানের সামনে বিগত দু বছর ধরে চলাচল করা কষ্টসাধ্য হয়ে পড়লেও দেখার কেউ নেই। চলতি মৌসুমে কৃষকরা তাদের ধান, পাট, পাটকাটি ও অন্যান্য ফসল গরুর গাড়ীতে বহন করে বাড়িতে আনতে পারছে না। ক্ষেত থেকে ফসল নিয়ে বাড়ি পৌঁছাতে গ্রামের চাষীরা পড়ছেন চরম বিপাকে। এসব সড়কগুলো এতটাই খারাপ যে পায়ে হেঁটে চলাচল করাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। ফলে সড়কগুলো মেরামতের দাবীতে নিরুপায় গ্রামবাসী গণ-স্বাক্ষর করে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রসাশক বরাবর আবেদন করেছেন।