ইপেপার । আজ রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দুই মন্ত্রীর পদে থাকা নিয়ে রিট

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ০১:২৫:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬
  • / ৩৯৫ বার পড়া হয়েছে

30531_f5সমীকরণ ডেস্ক: খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের পদে থাকার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের করা হয়েছে। গতকাল হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট দায়ের করেন আইনজীবী ইউনূস আলী আকন্দ। শপথ ভঙ্গের পরও কোন্ কর্তৃত্ব বলে দুই মন্ত্রী স্বপদে বহাল আছেন, তা জানতে চাওয়া হয়েছে রিটে। শপথ ভঙ্গের পর কোন্ কর্তৃত্ব বলে পদে রয়েছেন-তা জানতে চেয়ে ৩রা সেপ্টেম্বর  দুই মন্ত্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন ইউনূস আলী আকন্দ। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে বলা হলেও জবাব না পাওয়ায় গতকাল রিট আবেদন করেন তিনি। আজ এ বিষয়ে শুনানি হতে পারে বলে জানান ইউনূস আলী আকন্দ।
গত ২৭শে মার্চ দুই মন্ত্রীকে আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করেন আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে গঠিত আপিল বিভাগের আট সদস্যের বৃহত্তর বেঞ্চ দুই মন্ত্রীকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। ১লা সেপ্টেম্বর দুই মন্ত্রীর আদালত অবমাননার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে দেয়া এ রায়ে বলা হয়, দুই মন্ত্রী আইন লঙ্ঘন করেছেন এবং সংবিধানের রক্ষণ, সমর্থন ও নিরাপত্তা বিধানে তাদের শপথ ভঙ্গ করেছেন।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

দুই মন্ত্রীর পদে থাকা নিয়ে রিট

আপলোড টাইম : ০১:২৫:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬

30531_f5সমীকরণ ডেস্ক: খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের পদে থাকার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের করা হয়েছে। গতকাল হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট দায়ের করেন আইনজীবী ইউনূস আলী আকন্দ। শপথ ভঙ্গের পরও কোন্ কর্তৃত্ব বলে দুই মন্ত্রী স্বপদে বহাল আছেন, তা জানতে চাওয়া হয়েছে রিটে। শপথ ভঙ্গের পর কোন্ কর্তৃত্ব বলে পদে রয়েছেন-তা জানতে চেয়ে ৩রা সেপ্টেম্বর  দুই মন্ত্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন ইউনূস আলী আকন্দ। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে বলা হলেও জবাব না পাওয়ায় গতকাল রিট আবেদন করেন তিনি। আজ এ বিষয়ে শুনানি হতে পারে বলে জানান ইউনূস আলী আকন্দ।
গত ২৭শে মার্চ দুই মন্ত্রীকে আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করেন আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে গঠিত আপিল বিভাগের আট সদস্যের বৃহত্তর বেঞ্চ দুই মন্ত্রীকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। ১লা সেপ্টেম্বর দুই মন্ত্রীর আদালত অবমাননার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে দেয়া এ রায়ে বলা হয়, দুই মন্ত্রী আইন লঙ্ঘন করেছেন এবং সংবিধানের রক্ষণ, সমর্থন ও নিরাপত্তা বিধানে তাদের শপথ ভঙ্গ করেছেন।