ইপেপার । আজ মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জীবননগরে পালানোর সময় দুই মোটরসাইকেল চোর আটক

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ১২:৪৬:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ২ বার পড়া হয়েছে

জীবননগর অফিস:
জীবননগরে জনতার হাতে মোটরসাইকেল চুরির সময় দুজন আটক হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে জীবননগর পৌর শহরের হাসপাতাল এলাকা থেকে ওই দুই চোরকে আটক করে স্থানীয় লোকজন। এসময় তাদের সাথে থাকা আরও একজন পালিয়ে যান। পরে আটককৃত চোরদের জীবননগর থানা-পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হয়। আটক দুজন হলেন- মহেশপুর উপজেলার সড়াতলা গ্রামের মো. সাকিব হোসেন (৩০) ও বজরাপুর গ্রামের মো. শাকিল হোসেন (২৬)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মোটরসাইকেল বাড়ির বাইরে রেখেছিলেন মো. অনিক হাসান। আর তিনি ঘরে ছিলেন। এই ফাঁকে মোটরসাইকেলটি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন ওই তিনজন। টের পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাদের তাড়া করলে একজন পালিয়ে যান। বাকি দুজনকে ধরে বেঁধে ফেলে স্থানীয় লোকজন। পরে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

মোটরসাইকেলের মালিক জীবননগর ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মো. অনিক হাসান বলেন, ‘আমি মোটরসাইকেল রেখে বাসার মধ্যে একটু কাজ শেষে করে ফিরে এসে দেখি আমার গাড়ি নেই। রাস্তায় এসে দেখি দুজন আমার মোটরসাইকেল নিয়ে পালানোর চেষ্টা করছেন। তখন স্থানীয় লোকজন তাদের আটক করে।’

এলাকার সাধারণ মানুষ অভিযোগ করে বলেন, জীবননগর শহরে একের পর এক মোটরসাইকেল চুরি হচ্ছে। কিন্তু প্রশাসন তেমন কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। যে দুজন চোর আটক হয়েছে, তাদের সাথে জীবননগরের কেউ না কেউ জড়িত আছে। পুলিশ যদি একটু কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করে, তাহলে জীবননগর শহরে চুরি অনেক কমে যাবে।

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম জাবীদ হাসান বলেন, জীবননগর পৌর শহরের হাসপাতাল পাড়ায় মোটরসাইকেল চুরির সময় জনতা দুজন চোরকে আটক করে। তাদের বিরুদ্ধে জীবননগর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

জীবননগরে পালানোর সময় দুই মোটরসাইকেল চোর আটক

আপলোড টাইম : ১২:৪৬:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

জীবননগর অফিস:
জীবননগরে জনতার হাতে মোটরসাইকেল চুরির সময় দুজন আটক হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে জীবননগর পৌর শহরের হাসপাতাল এলাকা থেকে ওই দুই চোরকে আটক করে স্থানীয় লোকজন। এসময় তাদের সাথে থাকা আরও একজন পালিয়ে যান। পরে আটককৃত চোরদের জীবননগর থানা-পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হয়। আটক দুজন হলেন- মহেশপুর উপজেলার সড়াতলা গ্রামের মো. সাকিব হোসেন (৩০) ও বজরাপুর গ্রামের মো. শাকিল হোসেন (২৬)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মোটরসাইকেল বাড়ির বাইরে রেখেছিলেন মো. অনিক হাসান। আর তিনি ঘরে ছিলেন। এই ফাঁকে মোটরসাইকেলটি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন ওই তিনজন। টের পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাদের তাড়া করলে একজন পালিয়ে যান। বাকি দুজনকে ধরে বেঁধে ফেলে স্থানীয় লোকজন। পরে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

মোটরসাইকেলের মালিক জীবননগর ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মো. অনিক হাসান বলেন, ‘আমি মোটরসাইকেল রেখে বাসার মধ্যে একটু কাজ শেষে করে ফিরে এসে দেখি আমার গাড়ি নেই। রাস্তায় এসে দেখি দুজন আমার মোটরসাইকেল নিয়ে পালানোর চেষ্টা করছেন। তখন স্থানীয় লোকজন তাদের আটক করে।’

এলাকার সাধারণ মানুষ অভিযোগ করে বলেন, জীবননগর শহরে একের পর এক মোটরসাইকেল চুরি হচ্ছে। কিন্তু প্রশাসন তেমন কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। যে দুজন চোর আটক হয়েছে, তাদের সাথে জীবননগরের কেউ না কেউ জড়িত আছে। পুলিশ যদি একটু কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করে, তাহলে জীবননগর শহরে চুরি অনেক কমে যাবে।

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম জাবীদ হাসান বলেন, জীবননগর পৌর শহরের হাসপাতাল পাড়ায় মোটরসাইকেল চুরির সময় জনতা দুজন চোরকে আটক করে। তাদের বিরুদ্ধে জীবননগর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।