ইপেপার । আজ মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহ-১ আসনের নির্বাচনী ফলাফল স্থগিত

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ১০:৫৪:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৬ বার পড়া হয়েছে

ঝিনাইদহ অফিস:

ঝিনাইদহ-১ (শৈলকুপা) আসনের নির্বাচনী ফলাফলের গেজেট দুই মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। গতকাল বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামানের একক বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছেন। শৈলকুপা আসনে ট্রাক প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নজরুল ইসলাম দুলাল বিশ্বাসের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এই আদেশ দেন। আদালতে নজরুল ইসলাম দুলাল বিশ্বাসের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান।

বাদীর আইনজীবী মজিবুর রহমান গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, ঝিনাইদহ-১ আসনের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল হাইকে বিজয়ী ঘোষণা করে ইসির গেজেট স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। দুই মাসের জন্য এ স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে। গত ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ-১ আসনের ১৭১টি কেন্দ্রের ভোটগণনা শেষে নির্বাচিত হন আব্দুল হাই। তিনি পান ৯৪ হাজার ৩৭৯ ভোট। তার নিকটতম প্রার্থী বিশ্বাস বিল্ডার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম পেছিলেন ৭৯ হাজার ৭২৮টি ভোট। আসনের মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৬ হাজার ৩৩৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৭৭ জন, নারী ভোটার ১ লাখ ৫২ হাজার ৭৫৯ জন।

এছাড়া লাঙল প্রতীকের প্রার্থী মনিকা আলম পান ৩৯৬ ভোট। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান তৃণমূল বিএনপির জাহাঙ্গীর মজুমদার সোনালী আঁশ প্রতীকে ১৬০ ভোট ও আম প্রতীকে আনিচুর রহমান পেয়েছিলেন ২৩৯ ভোট। এর আগে গত ২৪ ডিসেম্বর নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আবদুল হাইসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতে আলাদা দুটি মামলা দায়ের করা হয়। শৈলকুপা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তায়জুল ইসলাম বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলার পর ২৬ ডিসেম্বর আসামিদের আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেন আদালত। কিন্তু আসামিরা আদালতে হাজির না হওয়ায় গত ৩ জানুয়ারি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। পরে ৪ জানুয়ারি ঝিনাইদহের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতে হাজির হয়ে তিনি জামিন আবেদন করলে বিচারক বৈজয়ন্ত বিশ্বাসের আদালত তাদের আট সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে আজ ২ ফেব্রুয়ারি তারিখের মধ্যে শেকুপা থানা-পুলিশকে এ ব্যাপারে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন আদালত।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

ঝিনাইদহ-১ আসনের নির্বাচনী ফলাফল স্থগিত

আপলোড টাইম : ১০:৫৪:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ঝিনাইদহ অফিস:

ঝিনাইদহ-১ (শৈলকুপা) আসনের নির্বাচনী ফলাফলের গেজেট দুই মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। গতকাল বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামানের একক বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছেন। শৈলকুপা আসনে ট্রাক প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নজরুল ইসলাম দুলাল বিশ্বাসের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এই আদেশ দেন। আদালতে নজরুল ইসলাম দুলাল বিশ্বাসের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান।

বাদীর আইনজীবী মজিবুর রহমান গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, ঝিনাইদহ-১ আসনের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল হাইকে বিজয়ী ঘোষণা করে ইসির গেজেট স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। দুই মাসের জন্য এ স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে। গত ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ-১ আসনের ১৭১টি কেন্দ্রের ভোটগণনা শেষে নির্বাচিত হন আব্দুল হাই। তিনি পান ৯৪ হাজার ৩৭৯ ভোট। তার নিকটতম প্রার্থী বিশ্বাস বিল্ডার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম পেছিলেন ৭৯ হাজার ৭২৮টি ভোট। আসনের মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৬ হাজার ৩৩৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৭৭ জন, নারী ভোটার ১ লাখ ৫২ হাজার ৭৫৯ জন।

এছাড়া লাঙল প্রতীকের প্রার্থী মনিকা আলম পান ৩৯৬ ভোট। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান তৃণমূল বিএনপির জাহাঙ্গীর মজুমদার সোনালী আঁশ প্রতীকে ১৬০ ভোট ও আম প্রতীকে আনিচুর রহমান পেয়েছিলেন ২৩৯ ভোট। এর আগে গত ২৪ ডিসেম্বর নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আবদুল হাইসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতে আলাদা দুটি মামলা দায়ের করা হয়। শৈলকুপা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তায়জুল ইসলাম বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলার পর ২৬ ডিসেম্বর আসামিদের আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেন আদালত। কিন্তু আসামিরা আদালতে হাজির না হওয়ায় গত ৩ জানুয়ারি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। পরে ৪ জানুয়ারি ঝিনাইদহের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতে হাজির হয়ে তিনি জামিন আবেদন করলে বিচারক বৈজয়ন্ত বিশ্বাসের আদালত তাদের আট সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে আজ ২ ফেব্রুয়ারি তারিখের মধ্যে শেকুপা থানা-পুলিশকে এ ব্যাপারে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন আদালত।