চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ভাঙা সংসার জোড়া লাগালেন প্যানেল চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম

নিউজ রুমঃ
ফেব্রুয়ারি ১, ২০২৪ ৯:০৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

প্রতিবেদক, দামুড়হুদা:
দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামপুর গ্রামের দুই সন্তানের জননী মাছুরা খাতুনের ভেঙে যাওয়া সংসার হাউলী ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর প্যানেল চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলামের প্রচেষ্টায় আবার ফিরে পেয়েছেন। গতকাল বুধবার বেলা ১১টার দিকে ইউনিয়ন পরিষদে সালিশ বৈঠকে উভয় পরিবারের অভিভাবকে বুঝিয়ে দুই সন্তানের বাবা-মকে এক করে দেওয়া হয়।

জানা যায়, দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামপুর গ্রামের কাসেদ আলীর মেয়ে মাছুরা খাতুনের সাথে একই উপজেলার পীরপুর নতুনপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে ফিরোজ উদ্দিনের ১৫ বছর আগে বিয়ে হয়। পরে তাদের কোলজুড়ে দুটি পুত্র সন্তান আসে। দুই পুত্র সন্তান নিয়ে সুখে-শান্তিতে সংসার করে আসছিল তারা। এরই মাঝে মাছুরা ও ফিরোজের মধ্যে কলহ শুরু হয়। একপর্যায়ে বৈবাহিক সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যাওয়ার পথে ছিল। পরে দিশা হারিয়ে মাছুরা বাদী হয়ে দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়ন পরিষদে ফিরোজের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। গতকাল বুধবার হাউলী ইউনিয়ন পরিষদে সালিশ বৈঠকে প্যানেল চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলামের প্রচেষ্টায় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে মাছুরা ও ফিরোজের ভেঙে যাওয়া সংসার জোড়া লাগান। মাছুরা ও ফিরোজের পরিবার উপস্থিতিতে সকলকে মিষ্টি মুখ করে তারা হাসিমুখে সংসারে ফিরে যান।

মাছুরা খাতুন বলেন, ‘আমার দুই ছেলের কথা চিন্তা করে ফিরোজের সাথে সংসার করতে রাজি হলাম। আমার সংসার ফিরে পেয়ে আমি অনেক খুশি হয়েছি।’ হাউলী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘জনপ্রতিনিধি হওয়ার পর থেকে এলাকার উন্নয়নের পাশাপাশি সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে ফুটফুটে বাঁচ্চা দুটির কথা চিন্তা করে নিজ উদ্যোগে তাদের উভয় পক্ষের অভিভাবকদের বুঝিয়ে ভাঙা সংসার পুনঃস্থাপন করে দিই। এটা আমার জনপ্রতিনিধি হিসেবে পরম প্রাপ্তি।’

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।