ইপেপার । আজ মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহে স্বামী-স্ত্রীসহ তিনজনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ০৭:৩৫:৩১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৬ বার পড়া হয়েছে

ঝিনাইদহ অফিস:
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কালিচরনপুর ইউনিয়নের উত্তর কাস্টসাগরা গ্রামে গতকাল শনিবার একই পরিবারের ৩ জনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলার ভয়ে অনেকেই গ্রাম থেকে গা-ঢাকা দিয়েছেন বলে জানা যায়। নৌকার ভোট করার কারণে প্রতিপক্ষরা এই হামলা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

আহতেরা হলেন- বসারত হোসেন মোল্লা (৬০), তাঁর স্ত্রী পারভিন খাতুন ও তাঁর শাশুড়ী। তারা ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বসারত হোসেন মোল্লা জানান, তারা উত্তর কাস্টসাগরা গ্রামের মিজু মেম্বারের সামজিক দলের লোক হিসেবে নৌকার পক্ষে ভোট করেছেন। ভোটে নৌকার প্রার্থী পরাজিত হওয়ার পর থেকেই স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সমর্থকেরা হুমকি-ধমকি ও বাজারের দোকানপাট বন্ধ করে দিয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় গতকাল শনিবার সকালে মাঠে ধান লাগানোর জন্য পানি দিতে গেলে বিরোধী পক্ষের লোকজন ভুট্টা খেত নিয়ে মারধর করে। এসময় তার স্ত্রী পারভিনা খাতুন এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করা হয়। বিষয়টি নিয়ে কালীচরণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম জানান, কাস্টসাগরা গ্রামে আগে থেকেই সামাজিক বিরোধ ছিল। সংসদ নির্বাচন কেন্দ্র করে এই গোলমাল হয়নি।

ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহিন উদ্দিন জানান, কালিচরণপুর ইউনিয়নে একটি মারামারি হয়েছে। ঘটনা শুনেই পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন আহতেরা। তদন্ত করে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

ঝিনাইদহে স্বামী-স্ত্রীসহ তিনজনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

আপলোড টাইম : ০৭:৩৫:৩১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২৪

ঝিনাইদহ অফিস:
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কালিচরনপুর ইউনিয়নের উত্তর কাস্টসাগরা গ্রামে গতকাল শনিবার একই পরিবারের ৩ জনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলার ভয়ে অনেকেই গ্রাম থেকে গা-ঢাকা দিয়েছেন বলে জানা যায়। নৌকার ভোট করার কারণে প্রতিপক্ষরা এই হামলা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

আহতেরা হলেন- বসারত হোসেন মোল্লা (৬০), তাঁর স্ত্রী পারভিন খাতুন ও তাঁর শাশুড়ী। তারা ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বসারত হোসেন মোল্লা জানান, তারা উত্তর কাস্টসাগরা গ্রামের মিজু মেম্বারের সামজিক দলের লোক হিসেবে নৌকার পক্ষে ভোট করেছেন। ভোটে নৌকার প্রার্থী পরাজিত হওয়ার পর থেকেই স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সমর্থকেরা হুমকি-ধমকি ও বাজারের দোকানপাট বন্ধ করে দিয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় গতকাল শনিবার সকালে মাঠে ধান লাগানোর জন্য পানি দিতে গেলে বিরোধী পক্ষের লোকজন ভুট্টা খেত নিয়ে মারধর করে। এসময় তার স্ত্রী পারভিনা খাতুন এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করা হয়। বিষয়টি নিয়ে কালীচরণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম জানান, কাস্টসাগরা গ্রামে আগে থেকেই সামাজিক বিরোধ ছিল। সংসদ নির্বাচন কেন্দ্র করে এই গোলমাল হয়নি।

ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহিন উদ্দিন জানান, কালিচরণপুর ইউনিয়নে একটি মারামারি হয়েছে। ঘটনা শুনেই পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন আহতেরা। তদন্ত করে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।