চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৪ জানুয়ারি ২০২৪
আজকের সর্বশেষ সবখবর

প্রলোভনে প্রলুব্ধ না হওয়ায় পুরস্কৃত হলেন সাংবাদিক সানভী

নিউজ রুমঃ
জানুয়ারি ৪, ২০২৪ ৮:৩০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদক:
প্রলোভনে প্রলুব্ধ না হয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের জন্য পুরস্কৃত হয়েছেন দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার নিজস্ব প্রতিবেদক মেহেরাব্বিন সানভী। গতকাল বুধবার রাতে দৈনিক সময়ের সমীকরণ অফিসে পত্রিকার প্রধান সম্পাদক নাজমুল হক স্বপন ও সিনিয়র সাংবাদিকেরা মেহেরাব্বিন সানভীর হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন। এর আগে গত মঙ্গলবার ও গতকাল বুধবার দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকায় চুয়াডাঙ্গা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (টিটিসি) ড্রাইভিং ইন্সট্রাক্টর মো. মনিরুজ্জামানের বিরুদ্ধে প্রশিক্ষণার্থীদের কাছ থেকে পাশ করিয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা নেওয়ার অভিযোগে সচিত্র প্রতিবেদন করেন সানভী। সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য পত্রিকা অফিসে এসে ঘুষ দিতে না পেরে তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি ও মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে আক্রশ তোলার চেষ্টা করেন মনিরুজ্জামান। তবে ঘুষ না নিয়ে সাহসিকতার সাথে সচিত্র সত্য অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করায় দৈনিক সময়ের সমীকরণ অফিস নিজস্ব প্রতিবেদক মেহেরাব্বিন সানভীকে এ পুরস্কার প্রদান করে।

পুরস্কার প্রদানকালে জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিনিয়র সাংবাদিক রাজিব হাসান কচি, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সদ্য সাবেক সহসভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক কামাল উদ্দীন জোয়ার্দ্দার, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা জেলা ইউনিটের সাবেক সহসভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক শেখ সেলিম ও দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার সহসম্পাদক সুমন পারভেজ খান। এসময় দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার নিজস্ব প্রতিবেদক সোহেল রানা ডালিম, নিজস্ব প্রতিবেদক রুদ্র রাসেলসহ সমীকরণ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, স্কিলস্ ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (ঝঊওচ) এর আওতায় চুয়াডাঙ্গা টিটিসিতে মোটর ড্রাইভিং উইথ বেসিক মেইনটেন্যান্স প্রশিক্ষণে সেইপ প্রকল্পের চুক্তিভিত্তিক ড্রাইভিং ইন্সট্রাক্টর হিসেবে চুয়াডাঙ্গা টিটিসির সামনেই ভিমরুল্লাহ গ্রামের মো. মনিরুজ্জামান ড্রাইভিংয়ের প্রশিক্ষণ দিচ্ছিলেন। তার ভাই তরিকুল ইসলাম লাবলু এই ট্রেডের সহকারী প্রশিক্ষক। প্রশিক্ষণার্থীদের ফেল করানোর ভীতি দেখিয়ে জনপ্রতি ২ হাজার ৫০০ টাকা করে নেন তিনি। গত সোমবার রাতে দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকা অফিসে গিয়ে দীর্ঘক্ষণ ঘুষ দেওয়ার চেষ্টা করেন টিটিসির ড্রাইভিং ইন্সট্রাক্টর মো. মনিরুজ্জামান। পত্রিকা অফিসের সিসিটিভি ফুটেজে মনিরুজ্জামানের দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে ঘুষ দেওয়ার চেষ্টার ভিডিও দেখা যাচ্ছে। তবে ওই সাংবাদিক মেহেরাব্বিন সানভী দীর্ঘক্ষণ তাকে ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করলেও তিনি ওই অফিসেই দাঁড়িয়ে থাকেন। শেষ পর্যন্ত ওই মেহেরাব্বিন সানভী হাত জোড় করে টাকা না নিয়ে টিটিসির ড্রাইভিং ইন্সট্রাক্টর মো. মনিরুজ্জামানকে ফেরত পাঠান। ভিডিও ফুটেজে বিষয়টি স্পষ্ট প্রতীয়মান।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।