চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ৩১ ডিসেম্বর ২০২৩

তারেককে লন্ডন থেকে ধরে এনে বিচারের মুখোমুখি করব: প্রধানমন্ত্রী

নিউজ রুমঃ
ডিসেম্বর ৩১, ২০২৩ ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন:
আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হতে পারলে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে লন্ডন থেকে ধরে এনে বিচারের মুখোমুখি করার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। প্রধামন্ত্রী বলেছেন, আগামী নির্বাচনে জয়ী হয়ে আসতে পারলে, লন্ডনে বসে যে হুকুম দিচ্ছে (তারেক রহমান) তাকে দেশে ধরে এনে বিচারের মুখোমুখি করব। রেল পোড়ায়, বাস পোড়ায়, গাড়ি পোড়ায়, মানুষ হত্যা করে, আমাকে পর্যন্ত হত্যার চেষ্টা করেছে তারা। লন্ডনে থেকে মানুষ হত্যার নির্দেশ আসছে। যারা অগ্নিসন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত, আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা করছে, খুনি, লম্পট, জুয়াড়ি তারেকের (তারেক রহমান) কথা শুনে যে বিএনপি নেতারা মানুষ খুন করছে, তার শাস্তি তারা পাবে। যারা এটা করছে, তাদের কী লাভ সেটাই আমার প্রশ্ন।
আওয়ামী লীগ সভাপতি শনিবার গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শেখ মুজিবুর রহমান সরকারি কলেজ মাঠে নির্বাচনী জনসভায় এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, নির্বাচন না হওয়ার চক্রান্তের সমুচিত জবাব আমরা ৭ জানুয়ারির নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দেব, যাতে আর কেউ বাংলাদেশের জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে না পারে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচালে দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ দেশে তারা তৃতীয় পক্ষকে ক্ষমতায় আনবে। এটাই তাদের লক্ষ্য।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ছাড়া আর কেউ দেশের উন্নয়নের ধারা ধরে রাখতে পারবে না। সে যোগ্যতা তাদের নাই। বিএনপি খুনিদের দল আর জামায়াত যুদ্ধাপরাধীদের দল। শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতার পলাতক হত্যাকারীদের রায় আমরা কার্যকর করব। বিদেশে যারা পালিয়ে আছে, তাদের ফিরিয়ে আনা হবে, যত বাধাই আসুক।
টুঙ্গিপাড়ার জনগণের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমার সব থেকে বড় শক্তি টুঙ্গিপাড়াবাসী। এখানে অনেক ঘাত-প্রতিঘাতের মধ্যে দিয়ে চলতে হয়েছে। তারপরও আপনারা (টু্ঙ্িগপাড়াবাসী) সব সময় আমাকে স্নেহ, ভালোবাসা, সমর্থন দিয়ে আগলে রেখেছেন। আমাকে শক্তি দিয়েছেন, সাহস দিয়ে দেশের মানুষের জন্য কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন। সেজন্য আমি আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।
টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ আবুল বশার খায়েরের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক বাবুল শেখের সঞ্চালনায় জনসভায় প্রধানমন্ত্রীর চাচা শেখ কবির হোসেন, গোপালগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, শেখ হেলাল, শেখ জুয়েল, শেখ সারহান নাসের তন্ময়, প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন প্রতিনিধি শহীদুল্লাহ খন্দকার, গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুব আলী খান, সাধারণ সম্পাদক জিএম শাহাবুদ্দিন আজম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ সাইফুল ইসলামসহ অভিনেত্রী তারিন ও অভিনেতা মীর সাব্বির বক্তব্য দেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।