ইপেপার । আজ রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুরে সরকারি সড়ক দখল করে চলছে ব্যবসা!

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ০৩:৩৭:৩৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৪ বার পড়া হয়েছে

গাংনী অফিস:
মেহেরপুর সদর উপজেলার আলমপুর ব্রিজের কাছে মূল ব্রিজ ও সড়কের বিকল্প হিসেবে নতুন ব্রিজ ও সড়ক নির্মাণ হওয়ায় পুরানো সরকারি সড়কটি দখল করে বালু, কাঠ, বিচালি ও পাটখড়ি রেখে ব্যবসা পরিচালনা করছেন স্থানীয় আলতাফ আলী। এতে যাতায়াতের রাস্তা অবরুদ্ধ হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরে সড়কটি দিয়ে জনসাধারণের চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে।

জানা যায়, সদর উপজেলার আলমপুরে মূল সড়কের পাশ দিয়ে বিকল্প হিসেবে নতুন ব্রিজ ও কিছু দূর পর্যন্ত নতুন সড়ক নির্মাণ হওয়ায় পুরোনো ব্রিজ ও রাস্তা দিয়ে যাতায়াতের চাপ কমে, এই সুযোগে আলমপুরের আলতাফ আলী সড়কটি দখলে নিয়ে ব্যবসা সামগ্রী রেখে যাতায়াতের জন্য অবরুদ্ধ করে রাখে। যার ফলে এখন সড়কটিতে প্রতিনিয়ত যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, ‘মূল সড়কটি দখলের বিষয়ে আলতাফকে কিছু বলতে গেলে আমাদের বিভিন্ন ধরনের হুমকি-ধমকি প্রদান করে থাকে। আমাদের দাবি সড়কটি যেন দখলমুক্ত হয়। এবং আমরা যেন নতুন এবং পুরানো দুটি সড়ক দিয়েই যাতায়াত করতে পারি। এতে করে গ্রামবাসীসহ সড়কে যাতায়াতকারী সকলের যানজটের অবসান হবে।’ এ বিষয়ে মেহেরপুর সড়ক ও জনপথের জেলা ইঞ্জিনিয়ারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘এই বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত নয়।’

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

মেহেরপুরে সরকারি সড়ক দখল করে চলছে ব্যবসা!

আপলোড টাইম : ০৩:৩৭:৩৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩

গাংনী অফিস:
মেহেরপুর সদর উপজেলার আলমপুর ব্রিজের কাছে মূল ব্রিজ ও সড়কের বিকল্প হিসেবে নতুন ব্রিজ ও সড়ক নির্মাণ হওয়ায় পুরানো সরকারি সড়কটি দখল করে বালু, কাঠ, বিচালি ও পাটখড়ি রেখে ব্যবসা পরিচালনা করছেন স্থানীয় আলতাফ আলী। এতে যাতায়াতের রাস্তা অবরুদ্ধ হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরে সড়কটি দিয়ে জনসাধারণের চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে।

জানা যায়, সদর উপজেলার আলমপুরে মূল সড়কের পাশ দিয়ে বিকল্প হিসেবে নতুন ব্রিজ ও কিছু দূর পর্যন্ত নতুন সড়ক নির্মাণ হওয়ায় পুরোনো ব্রিজ ও রাস্তা দিয়ে যাতায়াতের চাপ কমে, এই সুযোগে আলমপুরের আলতাফ আলী সড়কটি দখলে নিয়ে ব্যবসা সামগ্রী রেখে যাতায়াতের জন্য অবরুদ্ধ করে রাখে। যার ফলে এখন সড়কটিতে প্রতিনিয়ত যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, ‘মূল সড়কটি দখলের বিষয়ে আলতাফকে কিছু বলতে গেলে আমাদের বিভিন্ন ধরনের হুমকি-ধমকি প্রদান করে থাকে। আমাদের দাবি সড়কটি যেন দখলমুক্ত হয়। এবং আমরা যেন নতুন এবং পুরানো দুটি সড়ক দিয়েই যাতায়াত করতে পারি। এতে করে গ্রামবাসীসহ সড়কে যাতায়াতকারী সকলের যানজটের অবসান হবে।’ এ বিষয়ে মেহেরপুর সড়ক ও জনপথের জেলা ইঞ্জিনিয়ারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘এই বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত নয়।’