চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

দালালের মাধ্যমে বিদেশ গিয়ে মানব পাচার চক্রের খপ্পরে সেুলন ব্যবসায়ী

মুক্তিপণের দাবিতে চলছে অমানবিক নির্যাতন

নিউজ রুমঃ
ডিসেম্বর ৩, ২০২৩ ১২:৩৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

জীবননগর অফিস:
জীবননগরে ভালো কাজের প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশ পাঠিয়ে নির্যাতন ও মুক্তিপণ দাবির অভিযোগ তুলে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এক নারী। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় জীবননগর পশ্চিম বাজারে এ সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিবিয়ায় পাচার হওয়া উপজেলার রাজনগরের আতাউর রহমানের স্ত্রী জোসনা খাতুন জানান, তার স্বামী আতাউর রহমান জীবননগর বাজারে সেলুনের ব্যবসা করতেন। বেশ কিছুদিন থেকে জীবননগর বাজার পাড়ার শাহিন ও তার বাবা তাজিম হোসেন, নারায়ণপুর মোড়ের আত্তাব হোসেনের ছেলে উসমান আলী এবং পার্শ্ববর্তী ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের রহম আলীর ছেলে নোয়াব আলী পারস্পরিক যোগসাজসে আতাউর রহমানকে ৫০ হাজার টাকার বেশি বেতনের কাজ দেয়ার মিথ্যা প্রলোভন দেখায়।

৪ লাখ ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে এ বছরের ১০ অক্টোবর আতাউরকে লিবিয়ায় নিয়ে যায় চক্রটি। লিবিয়ায় পৌঁছালে তাকে আটক করে সেখানকার পুলিশ। এক মাস কারাভোগের পর বের হয়ে মানব পাচারকারীদের খপ্পরে পড়েন আতাউর। পাচারকারীরা তাকে অমানবিক শারীরিক নির্যাতন করে তার পরিবারের সদস্যদের কাছে আরও ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করছে।
এমতাবস্থায় স্বামীর মুক্তির জন্য বারবার দালাল চক্রের কাছে ধর্না দিয়ে কোনো সুরাহা না পেয়ে গত ২৮ নভেম্বর জীবননগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন আতাউর রহমানের স্ত্রী জোসনা খাতুন।

এ বিষয়ে জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি, তদন্ত) সাঈদ হাসান বলেন, ‘এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। আমরা বিষয়টি গুরত্বের সাথে নিয়ে কাজ করছি।’

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।