ইপেপার । আজ রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গায় চা ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহতের অভিযোগ

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ১১:৩৪:২৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ জুন ২০২৩
  • / ২ বার পড়া হয়েছে

সমীকরণ প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় পাওনা টাকা চাওয়া নিয়ে বিরোধের জেরে আনন্দ মিয়া (৩২) নামের এক চা ব্যবসায়ীকে বাড়িতে ঢুকে তাকে পিটিয়ে আহত ও ১ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে আলমডাঙ্গার যুুগিরহুদা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসকের নিকটে নেয়। আহত আনন্দ মিয়া যুগিরহুদা গ্রামের মৃত তোতা মিয়া ছেলে। এ ঘটনায় আহত আনন্দ আলমডাঙ্গা থানায় হাজির হয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
ভুক্তভোগী আনন্দ মিয়া বলেন, আমি একজন চা ব্যবসায়ী। কয়েকমাস পূর্বে ফুলবগাদী গ্রামের মন্জুর ছেলে আলামিন (৩৩) আমার নিকট থেকে ১৫ হাজার টাকার চা বাকিতে ক্রয় করে। কিছুদিনের মধ্যে চায়ের দাম পরিশোধ করার কথা থাকলেও তিনি এক টাকাও শোধ করেননি। আজ (শুক্রবার) সকাল ১০টার দিকে মুন্সিগঞ্জ বাজারে আলামিনের সঙ্গে দেখা হলে আমি পাওনা টাকা চাই। এসময় আমাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে আমি সেখান থেকে বাড়িতে চলে আসি। এরই জের ধরে দুপুর ১২টার দিকে আলামিন ও শাহিন আলীসহ (৪০) আরও চার পাঁচজন আমার বাড়িতে এসে কোনো কথা ছাড়ায় আমাকে এলোপাতাড়ি মারধর করতে শুরু করে। লাঠির আঘাতে আমি মাটিতে লুটিয়ে পড়ি। এসময় আমার চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে আলামিন আমার পকেটে থাকা ব্যবসার এক লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। আমার মা ঠেকাতে এলে তাকেও ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় তারা। এ ঘটনায় বিকেলে আমি তাদের নামে আলমডাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

আলমডাঙ্গায় চা ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহতের অভিযোগ

আপলোড টাইম : ১১:৩৪:২৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ জুন ২০২৩

সমীকরণ প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় পাওনা টাকা চাওয়া নিয়ে বিরোধের জেরে আনন্দ মিয়া (৩২) নামের এক চা ব্যবসায়ীকে বাড়িতে ঢুকে তাকে পিটিয়ে আহত ও ১ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে আলমডাঙ্গার যুুগিরহুদা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসকের নিকটে নেয়। আহত আনন্দ মিয়া যুগিরহুদা গ্রামের মৃত তোতা মিয়া ছেলে। এ ঘটনায় আহত আনন্দ আলমডাঙ্গা থানায় হাজির হয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
ভুক্তভোগী আনন্দ মিয়া বলেন, আমি একজন চা ব্যবসায়ী। কয়েকমাস পূর্বে ফুলবগাদী গ্রামের মন্জুর ছেলে আলামিন (৩৩) আমার নিকট থেকে ১৫ হাজার টাকার চা বাকিতে ক্রয় করে। কিছুদিনের মধ্যে চায়ের দাম পরিশোধ করার কথা থাকলেও তিনি এক টাকাও শোধ করেননি। আজ (শুক্রবার) সকাল ১০টার দিকে মুন্সিগঞ্জ বাজারে আলামিনের সঙ্গে দেখা হলে আমি পাওনা টাকা চাই। এসময় আমাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে আমি সেখান থেকে বাড়িতে চলে আসি। এরই জের ধরে দুপুর ১২টার দিকে আলামিন ও শাহিন আলীসহ (৪০) আরও চার পাঁচজন আমার বাড়িতে এসে কোনো কথা ছাড়ায় আমাকে এলোপাতাড়ি মারধর করতে শুরু করে। লাঠির আঘাতে আমি মাটিতে লুটিয়ে পড়ি। এসময় আমার চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে আলামিন আমার পকেটে থাকা ব্যবসার এক লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। আমার মা ঠেকাতে এলে তাকেও ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় তারা। এ ঘটনায় বিকেলে আমি তাদের নামে আলমডাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি।