ইপেপার । আজ মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় অস্ত্র মামলায় হারেজের ১০ বছর কারাদণ্ড

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ০৯:২৩:৫০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩
  • / ৩ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় অস্ত্র আইনের মামলায় হারেজ উদ্দিন (৫০) নামের এক ব্যাক্তিকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক মো. মাসুদ আলী আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। সন্ধ্যায় তাকে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে নেওয়া হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত হারেজ উদ্দিন চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দলকালক্ষ্মীপুর গ্রামের মাঠপাড়ার মৃত নূর হোসেনের ছেলে।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল কলাবাড়ি রামনগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে হারেজ উদ্দিনকে আটক করে। এসময় তার ঘরে লুকিয়ে রাখা একটি দেশীয় পিস্তল ও ৬ রাউন্ড গুলি উদ্ধার হয়। এ ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এসআই জিয়াউর রহমান বাদী হয়ে একজনের নাম উল্লেখ করে ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯ এ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। দামুড়হুদা থানার এসআই শাজ্জাদ হোসেন একই বছরের ২৪ অক্টোবর একজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এরপর গত ১২ বছরে আদালত ১৩ জন সাক্ষীর মধ্য ৯ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে হারেজ উদ্দিনের ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

চুয়াডাঙ্গায় অস্ত্র মামলায় হারেজের ১০ বছর কারাদণ্ড

আপলোড টাইম : ০৯:২৩:৫০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় অস্ত্র আইনের মামলায় হারেজ উদ্দিন (৫০) নামের এক ব্যাক্তিকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক মো. মাসুদ আলী আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। সন্ধ্যায় তাকে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে নেওয়া হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত হারেজ উদ্দিন চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দলকালক্ষ্মীপুর গ্রামের মাঠপাড়ার মৃত নূর হোসেনের ছেলে।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল কলাবাড়ি রামনগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে হারেজ উদ্দিনকে আটক করে। এসময় তার ঘরে লুকিয়ে রাখা একটি দেশীয় পিস্তল ও ৬ রাউন্ড গুলি উদ্ধার হয়। এ ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এসআই জিয়াউর রহমান বাদী হয়ে একজনের নাম উল্লেখ করে ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯ এ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। দামুড়হুদা থানার এসআই শাজ্জাদ হোসেন একই বছরের ২৪ অক্টোবর একজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এরপর গত ১২ বছরে আদালত ১৩ জন সাক্ষীর মধ্য ৯ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে হারেজ উদ্দিনের ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।