ইপেপার । আজ রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গাংনীর তেরাইলে পিকনিকের বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ০৫:১৫:৪১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / ২ বার পড়া হয়েছে

সমীকরণ প্রতিবেদক:
মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার তেরাইল নামক স্থানে একটি পিকনিক বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনা কবলিত হয়েছে। এতে বাসের চালক, নারী-পুরুষ ও শিশুসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। স্থানীয়রা জানান, দ্রুতগতির কারণে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছে ধাক্কা মারে। এসময় বাসটি উল্টে যাত্রীসহ খাদে পড়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের একটি টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়।
আহতরা হলেন- মেহেরপুর সদর উপজেলার রাজনগর গ্রামের জাকিরুল ইসলাম (৩৫), তাঁর মেয়ে জুই খাতুন (৭), স্ত্রী লিমা খাতুন (৩০) ও ছেলে জুবাইয়ের হোসেন (৪), দরুদ শেখের ছেলে রাহাত (৩) ও দোদুল (৩৫), তার ছেলে সামিউল ইসলাম (৫), দেলোয়ার হোসেন (৩৫), তার স্ত্রী খাজিরন নেছা (৩০), মেয়ে সুমাইয়া খাতুন (১০) ও সোহাইমা খাতুন (৪), হাফিজুল ইসলামের স্ত্রী মর্জিনা খাতুন (২৩), হাফিজুল ইসলামের ছেলে হাসিবুল (১), ছুরমান আলীর স্ত্রী পলি খাতুন (৩০), ঝণ্টু আলীর ছেলে নাহিদ হোসেন (১৮), রাশিদুল ইসলামের স্ত্রী মুক্তি খাতুন (৩০), ছুরমান আলীর ছেলে সম্রাট (১০), নজরুল ইসলামের স্ত্রী টুলু খাতুন (৫০), সাইফুল ইসলামের ছেলে আব্দুর রাহিম (৪), টিপু সুলতানের স্ত্রী আসমানি খাতুন (২৫), মুকুল হোসেনের স্ত্রী মিলি খাতুন (৩০), আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে জাকির হোসেন (৩০), মোমিনপুর গ্রামের মুকুল হোসেনের স্ত্রী পলি খাতুন (৩৫), ছেলে মণ্টু (৮) ও মুকুল হোসেনের স্ত্রী মুক্তি খাতুন (৩০)।
জানা যায়, দুর্ঘটনা কবলিত (মেহেরপুর-জ ০৪-০০১৬) বাসটিতে রাজনগর গ্রামের লোকজন নাটোরের লালপুর পিকনিক স্পটে যাচ্ছিলেন। বাসটিতে নারী শিশুসহ ৩৭ জন যাত্রী ছিলেন। পথের মধ্যে গাংনীর জোড়পুকুরিয়া ও তেরাইল মাঠের মধ্যে তেরাইল কলেজের সামনের কালভার্টের নিকট পৌঁছালে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে উল্টে যায়। এসময় বাসে থাকা সবাই কম বেশি আহত হন।
বামন্দী ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার ইছাহাক আলী বলেন, বাস উল্টে যাত্রীরা আটকে পড়েছিলেন। বাস যাত্রীদের বেশিরভাগ আহত হয়েছেন। চালক ও হেলপার বাস ফেলে পালিয়ে গেছে। গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আব্দুল্লাহ আল মারুফ জানান, আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বাসটি হেফাজতে নেওয়া হচ্ছে। বাসের চালককে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

গাংনীর তেরাইলে পিকনিকের বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে

আপলোড টাইম : ০৫:১৫:৪১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সমীকরণ প্রতিবেদক:
মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার তেরাইল নামক স্থানে একটি পিকনিক বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনা কবলিত হয়েছে। এতে বাসের চালক, নারী-পুরুষ ও শিশুসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। স্থানীয়রা জানান, দ্রুতগতির কারণে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছে ধাক্কা মারে। এসময় বাসটি উল্টে যাত্রীসহ খাদে পড়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের একটি টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়।
আহতরা হলেন- মেহেরপুর সদর উপজেলার রাজনগর গ্রামের জাকিরুল ইসলাম (৩৫), তাঁর মেয়ে জুই খাতুন (৭), স্ত্রী লিমা খাতুন (৩০) ও ছেলে জুবাইয়ের হোসেন (৪), দরুদ শেখের ছেলে রাহাত (৩) ও দোদুল (৩৫), তার ছেলে সামিউল ইসলাম (৫), দেলোয়ার হোসেন (৩৫), তার স্ত্রী খাজিরন নেছা (৩০), মেয়ে সুমাইয়া খাতুন (১০) ও সোহাইমা খাতুন (৪), হাফিজুল ইসলামের স্ত্রী মর্জিনা খাতুন (২৩), হাফিজুল ইসলামের ছেলে হাসিবুল (১), ছুরমান আলীর স্ত্রী পলি খাতুন (৩০), ঝণ্টু আলীর ছেলে নাহিদ হোসেন (১৮), রাশিদুল ইসলামের স্ত্রী মুক্তি খাতুন (৩০), ছুরমান আলীর ছেলে সম্রাট (১০), নজরুল ইসলামের স্ত্রী টুলু খাতুন (৫০), সাইফুল ইসলামের ছেলে আব্দুর রাহিম (৪), টিপু সুলতানের স্ত্রী আসমানি খাতুন (২৫), মুকুল হোসেনের স্ত্রী মিলি খাতুন (৩০), আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে জাকির হোসেন (৩০), মোমিনপুর গ্রামের মুকুল হোসেনের স্ত্রী পলি খাতুন (৩৫), ছেলে মণ্টু (৮) ও মুকুল হোসেনের স্ত্রী মুক্তি খাতুন (৩০)।
জানা যায়, দুর্ঘটনা কবলিত (মেহেরপুর-জ ০৪-০০১৬) বাসটিতে রাজনগর গ্রামের লোকজন নাটোরের লালপুর পিকনিক স্পটে যাচ্ছিলেন। বাসটিতে নারী শিশুসহ ৩৭ জন যাত্রী ছিলেন। পথের মধ্যে গাংনীর জোড়পুকুরিয়া ও তেরাইল মাঠের মধ্যে তেরাইল কলেজের সামনের কালভার্টের নিকট পৌঁছালে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে উল্টে যায়। এসময় বাসে থাকা সবাই কম বেশি আহত হন।
বামন্দী ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার ইছাহাক আলী বলেন, বাস উল্টে যাত্রীরা আটকে পড়েছিলেন। বাস যাত্রীদের বেশিরভাগ আহত হয়েছেন। চালক ও হেলপার বাস ফেলে পালিয়ে গেছে। গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আব্দুল্লাহ আল মারুফ জানান, আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বাসটি হেফাজতে নেওয়া হচ্ছে। বাসের চালককে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে পুলিশ।