ইপেপার । আজ রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুরে পুলিশ হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ০৭:৩৯:০৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ জুলাই ২০২২
  • / ২ বার পড়া হয়েছে

সমীকরণ প্রতিবেদক: মেহেরপুরে পুলিশ হত্যা ও মাদক মামলার রায়ে ৪ জন আসামীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। সেই সাথে দ্জুনকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মেহেরপুর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রিপতি কুমার বিশ্বাস এ রায় প্রদান করেন। দণ্ডিতরা হলেন- কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার বালিদাপাড়া গ্রামের কালু মণ্ডলের ছেলে আনিস মণ্ডল, একই গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে তাহাজুত হোসেন, সানা উল্লাহর দুই ছেলে সাকিল হোসেন ও রুবেল হোসেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৪ জুলাই দিবাগত রাতে জেলার গাংনী উপজেলার কাজীপুর-বামন্দী সড়কে মাদক পাঁচারকারীদের আটকের চেষ্টার সময় স্থানীয় পীরতলা পুলিশ ফাঁড়ির কনস্টেবল আলাউদ্দীন মাদক পাঁচারকারীদের হাতে নিহত হন। নিহত আলাউদ্দীন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুণ্ডি গ্রামের বাসিন্দা। ওই মামলার রায়ে ৪ জনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এবং দুজনকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। মামলার রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত পিপি হাজী শহীদ ও আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট আসাদুল আলম খোকন ও কামরুল হাসান কৌশলী ছিলেন।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

মেহেরপুরে পুলিশ হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

আপলোড টাইম : ০৭:৩৯:০৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ জুলাই ২০২২

সমীকরণ প্রতিবেদক: মেহেরপুরে পুলিশ হত্যা ও মাদক মামলার রায়ে ৪ জন আসামীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। সেই সাথে দ্জুনকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মেহেরপুর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রিপতি কুমার বিশ্বাস এ রায় প্রদান করেন। দণ্ডিতরা হলেন- কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার বালিদাপাড়া গ্রামের কালু মণ্ডলের ছেলে আনিস মণ্ডল, একই গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে তাহাজুত হোসেন, সানা উল্লাহর দুই ছেলে সাকিল হোসেন ও রুবেল হোসেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৪ জুলাই দিবাগত রাতে জেলার গাংনী উপজেলার কাজীপুর-বামন্দী সড়কে মাদক পাঁচারকারীদের আটকের চেষ্টার সময় স্থানীয় পীরতলা পুলিশ ফাঁড়ির কনস্টেবল আলাউদ্দীন মাদক পাঁচারকারীদের হাতে নিহত হন। নিহত আলাউদ্দীন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুণ্ডি গ্রামের বাসিন্দা। ওই মামলার রায়ে ৪ জনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এবং দুজনকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। মামলার রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত পিপি হাজী শহীদ ও আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট আসাদুল আলম খোকন ও কামরুল হাসান কৌশলী ছিলেন।