চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৮ মার্চ ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মেহেরপুর, ঝিনাইদহসহ সারা দেশে নানা আয়োজনে ৭ই মার্চ পালন, চুয়াডাঙ্গার অনুষ্ঠানে এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দার

বজ্রকণ্ঠে বঙ্গবন্ধুর কালজয়ী ভাষণের মধ্যে নিহিত ছিল বাঙালির মুক্তির ডাক : ডিসি আমিনুল ইসলাম খান
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
মার্চ ৮, ২০২২ ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

বঙ্গবন্ধুর সাহস ও বলিষ্ঠ নেতৃত্ব জাতিকে কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছে দেয়


সমীকরণ প্রতিবেদন:
চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর, ঝিনাইদহসহ সারা দেশে নানা আয়োজনে ও যথাযোগ্য মর্যাদায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তর। গতকাল সোমবার পৃথক আয়োজনে এসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ রেসকোর্স ময়দানে স্বাধীনতার আহ্বান সংবলিত ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন। ভাষণের দিনটি এবার দ্বিতীয়বারের মতো জাতীয় দিবস হিসেবে উদ্যাপন করা হয়।
চুয়াডাঙ্গা:
জাকজমকপূর্ণ এবং উৎসবমূখর নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে সারা দেশের ন্যায় চুয়াডাঙ্গায় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। সকাল সাড়ে ৭টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যে দিয়ে দিবসটির সূচনা করা হয়।
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ:
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পূষ্পস্তবক অর্পণ করেন। বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সাবেক কমান্ডার নুরুল ইসলাম মালিক ও আবু হোসেনের নেতৃত্বে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার নেতৃবৃন্দরা, পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকনের নেতৃত্বে চুয়াডাঙ্গা পৌর পরিষদ, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ, সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজ, আনসার ও ভিডিপি, গণপূর্ত বিভাগ, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড চুয়াডাঙ্গা, এলজিউডি, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দারের নেতৃত্বে জেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দ, চুয়াডাঙ্গা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, টিটিসি, চুয়াডাঙ্গা পৌর ডিগ্রি কলেজ, চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্যবিভাগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ স্বাস্থ্যবিভাগ চুয়াডাঙ্গা, বাংলাদেশ কৃষি ইন্সটিটিউট চুয়াডাঙ্গা, বিএডিসি, মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, জেলা মৎস্য অফিস, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গা, ফায়ার সার্ভিস চুয়াডাঙ্গাসহ বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি দপ্তর ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।
আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরণ:
ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরের ডিসি সাহিত্যমঞ্চে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাজিয়া আফরিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ বাঙালি-জাতির মুক্তিসংগ্রাম ও স্বাধীনতার ইতিহাসে একটি অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে বজ্রকণ্ঠে যে কালজয়ী ভাষণ দিয়েছিলেন, তার মধ্যে নিহিত ছিল বাঙালির মুক্তির ডাক। সরকার এই দিনটিকে ‘ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করেছে, যা একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত।”
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম বলেন, স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশকে একটি সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলায় পরিণত করাই ছিল বঙ্গবন্ধুর আজীবনের লালিত স্বপ্ন। মহান এই নেতার সে স্বপ্নপূরণে আমাদের অব্যাহত প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। বাংলাদেশকে ২০৪১ সালে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘রূপকল্প-২০২১’ ও ‘রূপকল্প-২০৪১’ ঘোষণা করেছেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর সন্ধিক্ষণে এসব কর্মসূচি বাস্তবায়নে আমি দল-মত-নির্বিশেষে সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে অবদান রাখার আহ্বান জানাই।
সভাপতির বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাজিয়া আফরিন বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ যেমন ১৯৭১ সালে বাঙালিকে আবেগে-সংগ্রামে-সাহসে প্লাাবিত করেছে, তেমনি আজও এই ভাষণ যেকোনো অন্যায়ের প্রতিবাদে সোচ্চার করে তোলে। বিশ্বের যেকোনো দেশের মুক্তি সংগ্রামে এই ভাষণ তাই প্রেরণার অনির্বান শিখা। আর এ কারণেই ৭ই মার্চের স্বীকৃতি পরম আনন্দের এবং গর্বের। জাতির পিতার ৭ই মার্চের ভাষণ বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ রাজনৈতিক ভাষণ। অসংখ্য ভাষায় অনূদিত হয়েছে বঙ্গবন্ধুর এই ভাষণ। এটি ইউনেস্কোর বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে, যা গোটা দেশ ও জাতির জন্য অত্যন্ত গর্বের।
এছাড়া চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুন্সি আবু সাঈফের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আজিজুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. রেজাউল করিম, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ।
পরে, বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহণে রচনা, কবিতা, চিত্রাঙ্কন, নৃত্য এবং বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। রাতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ছাদ থেকে এক অসাধারণ আতশবাজিরও আয়োজন করা হয়।
জেলা আওয়ামী লীগের কর্মসূচি:
চুয়াডাঙ্গায় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ৭টায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করার মাধ্যমে দিনের কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন জেলা আওয়ামী লীগের অঙ্গ-সহযোগী এবং ভাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
পরে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। এসময় বাঙালির মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাস তুলে ধরে এমপি ছেলুন জোয়ার্দ্দার বলেন, “স্বাধীনতা বাঙালির শ্রেষ্ঠ অর্জন। তবে তা একদিনে অর্জিত হয়নি। মহান ভাষা আন্দোলন থেকে ১৯৭১-এর চূড়ান্ত বিজয় অর্জনের এই দীর্ঘ পথে বঙ্গবন্ধুর অপরিসীম সাহস, সীমাহীন ত্যাগ-তিতিক্ষা, বলিষ্ঠ নেতৃত্ব এবং সঠিক দিকনির্দেশনা জাতিকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছে দেয়। স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশকে একটি সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলায় পরিণত করাই ছিল বঙ্গবন্ধুর আজীবনের লালিত স্বপ্ন। মহান এ নেতার সে স্বপ্নপূরণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের অব্যাহত প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।’
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শামসুজ্জোহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি মাসুদউজ্জামান লিটু বিশ্বাস, দপ্তর সম্পাদক অ্যাড. আবু তালেব বিশ্বাস, যুব ও ক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক আরশাদ উদ্দীন আহমেদ চন্দন, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক নুরুল ইসলাম মালিক, উপ-প্রচার সম্পাদক শওকত আলী বিশ্বাস, কার্য নির্বাহী সদস্য অ্যাড. বেলাল হোসেন, পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এবিএম জহুরুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা নুরুন্নাহার কাকলী, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী রিনা, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাদী মিলি, জাতীয় মহিলা সংস্থার সভাপতি রুকসানা নাবিলা ছন্দা, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া শাহাব, মহিলা নেত্রী শেফালী খাতুন, জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আফরোজা পারভীন, সাধারণ সম্পাদক গিণি ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলিজা খাতুন ও জাহানারা খাতুন, জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আফজালুল হক বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক রিপন মন্ডল, জেলা কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম চন্দন, জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক আরেফিন আলম রুঞ্জু, যুবলীগ নেতা আব্দুল কাদের, রাশেদুজ্জামান বাকী, মিরাজুল ইসলাম কাবা, রেজাউল করিম, আব্দুর রশিদ, শাকিল আহমেদ টিপু, আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের মহিলা সম্পাদিকা ও জেলা পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য কাজল রেখা, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. আজাদ, সাবেক সহসভাপতি মো. সাহাবুল হোসেন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক তানিম হাসান তারেক, রাজু আহমেদ, সোয়েব রিগান, সোহেল, রকি, মিন্টু, রিয়ন সহ দলের অন্যান্য অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। পরে বিকেল ৪টায় দলীয় কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
অপরদিকে, ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ জাতীয় দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের নির্দেশনা মোতাবেক বিশেষ মর্যাদায় দিনটি পালন করতে সকাল সাড়ে ৬টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও জেলা ছাত্রলীগের কেদারগঞ্জস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন সহ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন নেতা কর্মীরা।
বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে এক উত্তাল জনসমুদ্রে এ দেশের স্বাধীনতার প্রস্তুতির ডাক দেন। বঙ্গবন্ধু তাঁর বজ্রকণ্ঠে বলেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ সেই ভাষণ বাঙালির মুক্তি ও জাতীয়তাবোধ জাগরণের এক মহাকাব্য। এই ভাষণ এখন বিশ্ব ঐতিহ্যের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রামাণিক দলিল। বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ এ দেশের মানুষকে স্বাধীনতার প্রস্তুতি গ্রহণ করতে উজ্জীবিত করে। দীর্ঘদিনের পরাধীনতার গ্লানি, শোষণ, নির্যাতনের বিরুদ্ধে জ্বলে ওঠার মন্ত্র হিসেবে কাজ করে। ভাষণে উদ্দীপ্ত হয়ে আপামর জনগণ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন করে।’
উক্ত কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আব্দুল হালিম ভুলন শেখ, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মামুন আহমেদ, চুয়াডাঙ্গা পৌর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য গাজী ইমদাদুল হক সজল, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল হাসান নিপ্পন, ৩নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিশান, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ নেতা আকিব জাভেদ, সজিব, সাইফুল, সালেকিম, সাব্বির, অনিক, নাজমুল সহ আরোও নেতাকর্মীবৃন্দ।
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী যুবলীগের কর্মসূচি:
ঐতিহাসিক সাতই মার্চ উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেছে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী যুবলীগ। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ছয়টায় জেলা যুবলীগের কার্যালয়ের সামনে জাতীয় সংগীতের তালে তালে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আহ্বায়ক ও জেলা ক্রিড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার ও জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান জিল্লু।
পতাকা উত্তোলন শেষে জেলা যুবলীগ কার্যালয়ের সামনে জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এরপর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টের সকল শহিদ ও জাতীয় চার নেতাসহ সকল শহিদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবলীগ সদস্য আজাদ আলী, হাফিজুর রহমান হাপু, সাজেদুল ইসলাম লাভলু, আবু বক্কর সিদ্দীক আরিফ, আলমগীর আজম খোকাসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীবৃন্দ। এছাড়াও ঐতিহাসিক সাতই মার্চ উপলক্ষে গতকাল দিনব্যাপী জেলা যুবলীগের কার্যলয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষণের রেকর্ড বাজানো হয়।


আলমডাঙ্গা:
আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন, রাজনৈতি ও সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে যথাযথ মার্যাদায় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপিত হয়েছে। গতকাল সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গনু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. আব্দুর রশিদ মোল্লা, প্রশান্ত অধিকারি, জেলা বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সহিদুল ইসলাম, জেলা সদস্য সিরাজুল ইসলাম, আবু মুছা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব লিয়াকত আলী লিপু মোল্লা, হামিদুল ইসলাম, আনিসুর রহমান মল্লিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী রবিউল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক আতিয়ার রহমান, কাজী খালেদুর রহমান অরুনি, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান ফারুক, যুগ্ম সম্পাদক সাইফুর রহমান পিন্টু, কৃষি বিষয় সম্পাদক আব্দুল মালেক, ক্রীড়া সম্পাদক মহিদুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন, খন্দকার মজিবুল হক, মহিলা লীগের নেত্রী কাউন্সিলর রাবেয়া খাতুন,শাহনাজ পারভীন,মনিরা খাতুন,নাজমুন নাহার, শ্রমিক লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দস,আমিরুল ইসলাম ,সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশরাফুল হক প্রমুখ। এর পর
অন্যদিকে, উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর মুরালে মাল্যদান করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রনি আলম নুর, আলমডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের পক্ষে উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন, অলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, কৃষি অফিসার হোসেন শহীদ সোহরোয়ার্দি, উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. আব্দুল্লাহিল কাফি, শিক্ষা অফিসার আব্দুল বারি, প্রকল্প কর্মকর্তা এনামুল হক, উপজেলা শিক্ষা অফিসার শামসুজ্জোহা, মৎস কর্মকর্তা কামরুন্নাহার আখি, মহিলা বিষযক কর্মকর্তা মাকসুরা জান্নাত, বিআরডিবি কর্মকর্তা শায়লা সারমিন, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সোহেল রানা, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাসানুজ্জমান খানসহ, শিক্ষক মন্ডলী, ছাত্র-ছাত্রী, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। পরে বিভিন্ন ইভেন্টে অংশগ্রহণকারী বিজয়িদের পুরস্কার তুলে দেন অতিথি বৃন্দ।


দামুড়হুদা:
দামুড়হুদায় নানা আয়োজনের মধ্যেদিয়ে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু মুরালে পুস্পমাল্য অর্পণ, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু মুরালে পুস্প মাল্য অর্পণ করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তার। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির সিরাজুল আলম, দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফেরদৌস ওয়াহিদসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। পরে উপজেলা পরিষদ চত্বরের মুক্ত মঞ্চে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, উপজেলা কৃষি অফিসার মনিরুজ্জামান, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিদা খাতুন, দামুড়হুদা সদর ইউপির চেয়ারম্যান ও দামুড়হুদা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হযরত আলি, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের সদস্য ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিউল কবির ইউসুফ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আছির উদ্দীন প্রমুখ। আলোচনা অনুষ্ঠানের মাঝেঁ মাঁেঝ উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির পক্ষ থেকে শিল্পকলা একাডেমির শিক্ষক আছমত আলি বিশ্বাসের নেতৃত্বে শিল্পিরা দেশের গান পরিবেশন করেন।

কার্পাসডাঙ্গা:
দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি পালন উপলক্ষে গতকাল বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের হলরুমে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল করিম বিশ্বাসের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুল কাদের বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক নজির আহম্মেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম বিশ্বাস, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুর রহমান মুকুল, মখলেছুর রহমান রিপন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাদ আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাসেম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা পীর মোহাম্মদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা পিজির উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইমসাইল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোলাম হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবর আলী, যুবলীগ নেতা শরীফুজ্জামান শরীফ, প্যানেল চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মণ্টু, ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন, বিল্লাল হোসেন, সিরাজুল ইসলাম, মাহাবুর রহমান, আব্দুর রাজ্জাক, আনেহার খাতুন, সুমিয়া খাতুন, দেলোয়ারা বেগমসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতাকর্মীবৃন্দ।


জীবননগর:
জীবননগরে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালী আলোচনা সভা ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার সময় জীবননগর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন শেষে উপজেলা পরিষদের হলরুমে একটি আলেচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জীবননগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী হাফিজুর রহমান, জীবননগর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, জীবননগর উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি হুমায়ন কবির, জীবননগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আ. সালাম ঈশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকী, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজা, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা নিজাম উদ্দিন, জীবননগর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু আব্দুল লতিফ অমল, জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মাহমুদ বিন হেদায়েত সেতু, জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল খালেক, জীবননগর পৌর সভার সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, মনোহরপুর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন খাঁন, বাকা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের প্রধানসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকমী, সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীসহ সাধারণ জনগণ।


মেহেরপুর:
মেহেরপুরে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবস উদযাপিত হয়েছে। গতকাল সকাল ১০ টায় মেহেরপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও জনসাধারণ। মেহেরপুর জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মুনসুর আলম খান সর্ব প্রথমে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক ফরহাদ হোসেন এমপির পক্ষে পরে জেলাবাসীর পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। এরপর জেলা পুলিশের পক্ষে পুলিশ সুপার রাফিউল আলম, মুক্তিযোদ্ধা ও শিল্পকলা একাডেমির পক্ষে জেলা প্রশাসক, জেলা পরিষদের পক্ষে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম রসুল, পৌর আওয়ামী লীগের পক্ষে উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইসলাম, জেনারেল হাসপাতালের পক্ষে ডা. রফিকুল ইসলাম, সরকারি কলেজের পক্ষে অধ্যক্ষ প্রফেসর শফিউল আলম সর্দার, ছহিউদ্দীন ডিগ্রি কলেজের পক্ষে অধ্যক্ষ একরামুল আজিম, টিটিসি’র পক্ষে অধ্যক্ষ আরিফ আহমেদ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের পক্ষে লাভলী ইয়াসমিন, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পক্ষে পরিদর্শক আব্দুল মান্নান বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন।


গাংনী:
মেহেরপুরের গাংনীতে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, উপজেলা পরিষদের পক্ষে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী খানম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন।
এছাড়া, গাংনী রিপোর্টার্স ক্লাবের পক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন সভাপতি আনারুল ইসলাম (বাবু), সহসভাপতি বিল্লাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ডা. আল আমীন, কোষাধ্যক্ষ শাহীনুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহের আলী বাচ্চু, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক আসাদুল্লাহ আল গালিব, (সাংবাদিক লিটন মাহমুদ) নির্বাহী সদস্য কামাল পাশা, নির্বাহী সদস্য রুবেল আহম্মেদ, নির্বাহী সদস্য মাহাবুব ইসলাম, নির্বাহী সদস্য মাজিদ আল মামুন এবং আল আমিন প্রমুখসহ গাংনী থানা, যুবলীগ, বীর মুক্তিযোদ্ধা, পৌরসভা, পৌর আওয়ামী লীগ, কৃষক লীগ, পল্লী বিদ্যুৎ অফিসসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।


মুজিবনগর:
মুজিবনগরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন করা হয়েছে। গতকাল সকাল ৯টায় মুজিবনগর কমপ্লেক্সে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের সামনে মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকারের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে উপজেলা প্রশাসন। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিয়া উদ্দিন বিশ্বাস, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মোল্লা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা খাতুনসহ উপজেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তাবৃন্দ।
পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ হলরুমে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকার, মুজিবনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মেহেদী রাসেল, কৃষি অফিসার আনিসুজ্জামান খান, সমাজসেবা অফিসার আব্দুর রব, পরিসংখ্যান অফিসার, উপজেলা নির্বাচন অফিসার মেহেদী হাসান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মামুনুর রশিদ, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম প্রমুখ। আলোচনা সভায় বক্তারা বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের তাৎপর্য তুলে ধরেন।
অন্যদিকে, মুজিবনগর কমপ্লেক্স বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউদ্দিন বিশ্বাসের নেতৃত্বে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মোল্লা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা খাতুন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন, মহাজনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজাউর রহমান নান্নু, সাধারণ সম্পাদক আ. রশিদ, বাগোয়ান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুতুব উদ্দিন মল্লিক, বাগোয়ান ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান মুংলাসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে মুজিবনগরের প্রাণকেন্দ্র কেদারগঞ্জ বাজারে অবস্থিত আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।


ঝিনাইদহ:
নানা কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে ঝিনাইদহে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল সকাল সাড়ে ৯টায় প্রেরণা একাত্তর চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পরে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই এমপি, সহ সভাপতি শফিকুল ইসলাম অপু, সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু, দপ্তর সম্পাদক আছাদুজ্জামান আছাদসহ জেলার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে সেখান থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে প্রেরণা একাত্তর চত্বরে এস শেষ হয়। প্রথমে রাষ্টের পক্ষে জেলা প্রশাসন পরে পুলিশ বিভাগ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ বিভিন্ন দপ্তরের পক্ষ থেকে জাতির পিতাকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই এমপি, জেলা প্রশাসক মনিরা বেগম, পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস, পৌরসভার প্রশাসক ইয়ারুল ইসলাম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মকবুল হোসেনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে, ঝিনাইদহ কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে শতকণ্ঠে ৭ই মার্চের ভাষণ পাঠ করা হয়। এতে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দের অধ্যক্ষ রুস্তম আলী, চীফ ইন্সট্রাক্টর হায়দার আলী, আসাদুজ্জামান, সিনিয়র শিক্ষক আবু হাসনাতসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

১. ১। পুষ্পস্তবক অর্পণ করছেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সোলায়মুন হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি।
২. ২। পুষ্পস্তবক অর্পণ করছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান
৩. ৩। পুষ্পস্তবক অর্পণ করছেন পুলিশ সুপার মো. জাহিদুল ইসলাম।
৪. ৪। জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে পতাকা উত্তোলন।
৫. ৫। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
৬. ৬। চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার পুষ্পস্তবক অর্পণ।
৭. ৭। জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
৮. ৮। চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
৯. ৯। ফায়ার সার্ভিসের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
১০. ১০। জেলা নির্বাচন অফিসের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
১১. ১১। স্বাস্থ্যবিভাগের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
১২. ১২। চুয়াডাঙ্গা কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
১৩. ১৩। চুয়াডাঙ্গা গণপূর্ত বিভাগের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
১৪. ১৪। জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
১৫. ১৫। জেলা শিশু একাডেমিতে চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা।
১৬. ১৬। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলী শেষে দোয়া ও মোনাজাত।
১৭. ১৭। ডিসি সাহিত্য মঞ্চে বিভিন্ন প্রতিযোগীতার পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।
১৮. ১৮। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা পরিষদ চত্বরের উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের পুষ্পস্তবক অর্পণ।
১৯. ১৯। পুরষ্কার বিতরণ শেষে অতিথিদের সাথে বিজয়ী শিক্ষার্থীরা।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।