ইপেপার । আজ রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুর হাসপাতালে আনসার সদস্য লাঞ্ছিত!

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ০৯:১৫:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • / ২০ বার পড়া হয়েছে

প্রতিবেদক, মেহেরপুর:
মেহেরপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে টিকিট কাউন্টারের টাকা ভাঙানোকে কেন্দ্র করে কর্তব্যরত আনসার সদস্যকে লাঞ্ছিত করেছেন মেহেরপুর মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের এক নেতা। গতকাল শনিবার দুপুরের দিকে এ ঘটনা ঘটে।
হাসপাতালের কর্তব্যরত সিনিয়র স্টাফ নার্স তানিয়া খতিুন জানান, মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি সৈয়দ সোহেল আহম্মেদ মোটর শ্রমিকের এক সদস্যকে নিয়ে মেহেরপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে আসেন। এসময় সেই শ্রমিককে দেখানোর জন্য কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করে এক হাজার টাকার নোট প্রদান করেন। এসময় টাকা খুচরা নেই বললে প্যাথলজি ক্যাশ কাউন্টারে সিনিয়র নার্স মোছা. তানিয়া খাতুন (২৭) ও মোছা. রাশিয়া খাতুনের (৫৯) সাথে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে নার্সরা হাসপাতালের ডিউটিরত আনসার সদস্য তরিকুল ইসলামকে ডেকে বিষয়টি অবগত করেন। আনসার সদস্য তরিকুল ইসলাম এ বিষয়টি নিয়ে সোহেল আহম্মেদকে বকাবকি করেন। এসময় মেহেরপুর জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি সৈয়দ সোহেল আহমেদ আনসার সদস্যকে লাঞ্ছিত করেন।
বিষয়টি পুলিশ ও আনসার বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে অবহিত করা হলে পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) অপু সরোয়ার, মেহেরপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে আরএমও ডা. মো. মোখলেছুর রহমান, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা দলের জেলা কমান্ড্যান্ট মো. রাকিবুল ইসলাম, মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহা দারা খান সেখানে উপস্থিত হয়ে বিষয়টি মীমাংসা করেন।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

মেহেরপুর হাসপাতালে আনসার সদস্য লাঞ্ছিত!

আপলোড টাইম : ০৯:১৫:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

প্রতিবেদক, মেহেরপুর:
মেহেরপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে টিকিট কাউন্টারের টাকা ভাঙানোকে কেন্দ্র করে কর্তব্যরত আনসার সদস্যকে লাঞ্ছিত করেছেন মেহেরপুর মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের এক নেতা। গতকাল শনিবার দুপুরের দিকে এ ঘটনা ঘটে।
হাসপাতালের কর্তব্যরত সিনিয়র স্টাফ নার্স তানিয়া খতিুন জানান, মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি সৈয়দ সোহেল আহম্মেদ মোটর শ্রমিকের এক সদস্যকে নিয়ে মেহেরপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে আসেন। এসময় সেই শ্রমিককে দেখানোর জন্য কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করে এক হাজার টাকার নোট প্রদান করেন। এসময় টাকা খুচরা নেই বললে প্যাথলজি ক্যাশ কাউন্টারে সিনিয়র নার্স মোছা. তানিয়া খাতুন (২৭) ও মোছা. রাশিয়া খাতুনের (৫৯) সাথে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে নার্সরা হাসপাতালের ডিউটিরত আনসার সদস্য তরিকুল ইসলামকে ডেকে বিষয়টি অবগত করেন। আনসার সদস্য তরিকুল ইসলাম এ বিষয়টি নিয়ে সোহেল আহম্মেদকে বকাবকি করেন। এসময় মেহেরপুর জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি সৈয়দ সোহেল আহমেদ আনসার সদস্যকে লাঞ্ছিত করেন।
বিষয়টি পুলিশ ও আনসার বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে অবহিত করা হলে পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) অপু সরোয়ার, মেহেরপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে আরএমও ডা. মো. মোখলেছুর রহমান, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা দলের জেলা কমান্ড্যান্ট মো. রাকিবুল ইসলাম, মেহেরপুর সদর থানার ওসি শাহা দারা খান সেখানে উপস্থিত হয়ে বিষয়টি মীমাংসা করেন।