ইপেপার । আজ রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় স্বামী পরিত্যাক্তার বিয়ের দাবীতে অনশন

সমীকরণ প্রতিবেদন
  • আপলোড টাইম : ০২:৩৬:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০১৬
  • / ২৮৬ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা শহরের একটি আবাসিক হোটেলে মেহেরপুর সদর উপজেলার সিংহাটি গ্রামের বজলুর রহমানের মেয়ে সানজিদা(২৬) এর অনশন। পরে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি তোজাম্মেল হকের হস্তক্ষেপে সানজিদা এখন পুরিশ হেফাজতে। চুয়াডাঙ্গা শহরের একটি আবাসিক হোটেলে একই হোটেলের ম্যানেজার চুয়াডাঙ্গা বেলগাছির আকছেদের ছেলে বিল্লাল(২০) সাথে পরোকিয়া সর্ম্পকের জের ধরে দুপুর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত অনশন করে। এদিকে হোটেল ম্যানেজার বিল্লাল পালিয়েছে বলে জানায় হোটেল মালিক। স্বামী পরিত্যাক্তা সানজিদার ৬বছরের একটি মেয়ে আছে বলে জানা গেছে।
এবিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তোজাম্মেল হক জানান, বিল্লালের সাথে সানজিদার প্রেমজ সম্পর্ক অনেক দিন ধরে বলে জানতে পেরেছি, কিন্তু সানজিদা বিয়ের দাবীতে বিল্লালের বাড়ীতে অনশন করতে পারতো কিংবা থানায় অভিযোগ দায়ের করতে পারতো কিন্তু তা না করে সে একজনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সুনাম ক্ষুন্ন করতে সেখানে অনশন করতে পারে না। আবাসিক হোটেলের মালিক থানায় এসে অভিযোগ করলে আমি সানজিদাকে থানা হেফাজতে রেখেছি। সানজিদার অভিভাবকরা এসে তাকে নিয়ে যেতে পারবে। আর সানজিদা যদি থানায় অভিযোগ দায়ের করে তবে, পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

চুয়াডাঙ্গায় স্বামী পরিত্যাক্তার বিয়ের দাবীতে অনশন

আপলোড টাইম : ০২:৩৬:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা শহরের একটি আবাসিক হোটেলে মেহেরপুর সদর উপজেলার সিংহাটি গ্রামের বজলুর রহমানের মেয়ে সানজিদা(২৬) এর অনশন। পরে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি তোজাম্মেল হকের হস্তক্ষেপে সানজিদা এখন পুরিশ হেফাজতে। চুয়াডাঙ্গা শহরের একটি আবাসিক হোটেলে একই হোটেলের ম্যানেজার চুয়াডাঙ্গা বেলগাছির আকছেদের ছেলে বিল্লাল(২০) সাথে পরোকিয়া সর্ম্পকের জের ধরে দুপুর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত অনশন করে। এদিকে হোটেল ম্যানেজার বিল্লাল পালিয়েছে বলে জানায় হোটেল মালিক। স্বামী পরিত্যাক্তা সানজিদার ৬বছরের একটি মেয়ে আছে বলে জানা গেছে।
এবিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তোজাম্মেল হক জানান, বিল্লালের সাথে সানজিদার প্রেমজ সম্পর্ক অনেক দিন ধরে বলে জানতে পেরেছি, কিন্তু সানজিদা বিয়ের দাবীতে বিল্লালের বাড়ীতে অনশন করতে পারতো কিংবা থানায় অভিযোগ দায়ের করতে পারতো কিন্তু তা না করে সে একজনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সুনাম ক্ষুন্ন করতে সেখানে অনশন করতে পারে না। আবাসিক হোটেলের মালিক থানায় এসে অভিযোগ করলে আমি সানজিদাকে থানা হেফাজতে রেখেছি। সানজিদার অভিভাবকরা এসে তাকে নিয়ে যেতে পারবে। আর সানজিদা যদি থানায় অভিযোগ দায়ের করে তবে, পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবে।