চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২৬ আগস্ট ২০১৬

চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার সাতগাড়ি থেকে কুশাঘাটায় মান্নত করতে গিয়ে বিপত্তি বান্ধবি পাতানোয় বাকবিতণ্ডা : পাল্টাপাল্টি হামলা আহত ২

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ২৬, ২০১৬ ১:৫৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শহর প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার সাতগাড়ি থেকে মহিলাসহ ২০-২৫ জন কুশাঘাটা “কুতুবে রাব্বানী মাহবুবে ছোবহানী শায়খুল হেন্দ পীরে দস্তগীর মাজারে গতকাল সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে ছাগল মান্নত করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন ২ জন। জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা  সাতগাড়ির নতুন গোরস্থান পাড়ার আব্বাস উদ্দীনের দুই ছেলে বিপুল(২৩) ও টুটুল (১৮) তার মাসহ ২০-২৫ জন বিপুলের জন্য খাসি মান্নত করতে কুশাঘাটা মাজারে যান। এ সময় দামুড়হুদা মাদ্রাসা পাড়ার মৃত মতিয়ারের মেয়ে মিলাকে (১৬) মাজারের পাশে দেখে বিপুল তার চাচাতো বোন জেসমিনকে বিপুলের মোবাইল নাম্বার দিতে বলে। জেসমিন মিলার সাথে বান্ধবী পাতিয়ে টাকার সাথে একটা কাগজে বিপুলের মোবাইল নাম্বার লিখে দেয়। বিষয়টা মিলার ভাই জাহিদুল দেখে ফেলে। জাহিদুল বিপুলের সাথে টাকায় নাম্বার দেওয়া নিয়ে তর্ক বাধায়। বাক-বিতন্ডার একপর্যায়ে জাহিদুলসহ ২০/২৫ জন বিপুল ও তার ভাই টুটুলের উপর হামলা চালায়। এবং লাঠি ও ইট দিয়ে বিপুলসহ তার টুটুলকে বেধরক মারধর করে। এতে বিপুল  ও টুটুল মারাক্তক জখম হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। মেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অত্র এলাকায়  থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিলো। এ বিষয় নিয়ে মিলাকে তার পরিবারের লোকজন  বকাঝকা ও মারধর করলে মিলা অভিমানে গোপনে হারপিক পান করে এখন সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে। এবিষয়ে মিলার মা বলেন বিপুল বিবাহিত একটি ছেলে, সে এমন একটি কাজ করবে আমি ভাবতে পারিনি, বিপুলের ভূলের কারণে আজ আমার মেয়ের জীবন মৃত্যুর মুখে। এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে দামুড়হুদা থানার এসআই শুভ্রত সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে দ্রুত পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হামলার সাথে জড়িত জরিপ মোল¬া নামে একজনকে গটনাস্থল থেকে আটক করে দামুড়হুদা থানায় হাজতে প্রেরণ করে। দ্রুত অবস্থা নিয়ন্ত্রণ আনাসহ ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আটক করলে এলাকাবাসী এসআই শুভ্রতকে সাহসি অফিসার হিসেবে প্রশংসা করতে দেখা গেছে। এদিকে দামুড়হুদা থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ খান ঘটনার সত্যতা শিকার করেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।