প্রবাসী আব্দুস সাত্তারের লাশ চুয়াডাঙ্গার নিজ বাড়িতে আজ সকাল ১০টায় দাফন : বিভিন্ন মহলের শোক

279

t6yuনিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা শহরের পলাশপাড়ার বিশিষ্ট কন্ট্রাক্টর জবেদ আলীর ছোট ছেলে দক্ষিণ আফ্রিকা বোতসোয়ানার একটি কর্পোরেট হাউজের আইটি ম্যানেজার আব্দুস সাত্তার গত ২ডিসেম্বর ভোরে বোতসোনিয়ার রাজধানী গ্যাবরনের একটি নামী হাসপাতালে আইসিউতে চিকিৎিসাধিন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। গতরাত সাড়ে ৪টার দিকে তার মৃতদেহ নিজ বাড়ী পলাশপাড়ায় পৌছাঁলে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যোর অবতারণ হয়। কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তার পরিবারের সদস্যরাসহ কাছের বন্ধুরা। এরআগে দক্ষিণ আফ্রিকা প্রদেশের বোতসোনিয়ার রাজধানী গ্যাববন থেকে ছেড়ে আসা একটি ফ্লাইটে তার মৃতদেহ শাহজালাল আন্তর্জজাতিক বিমান বন্দরে এসে পৌছাঁলে বন্ধুবর নাজমুল হক স্বপন, নাজমুস সাদাফ ও মরহুমের বড় ভাই আব্দুল হালিম বাবুল লাশ গ্রহন করে অ্যাম্বুলেন্সযোগে চুয়াডাঙ্গায় পৌছাঁন। প্রবাসী এই কৃতি সন্তানের মৃত্যুতে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস, জামান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসাদুজ্জামান আসাদ, সাবেক মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, দৈনিক সময়ের সমীকরণের সম্পাদক ও প্রকাশক শরীফুজ্জামান শরীফ, জামান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের উপদেষ্টা আলাউদ্দীন হেলা, মৃতের বন্ধুবর মিজান মালিক, অ্যাড. এসএনএ হাসেমী, আব্দুল হান্নান, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম শ্যামল, বার্তা সম্পাদক হুসাইন মালিক ও চুয়াডাঙ্গার রাজনৈতিক, সামাজিকসহ দেশ-বিদেশে মরহুমের বন্ধুবান্ধবেরা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। আজ সকাল ১০টায় জান্নাতুল মওলা কবরস্থানে মরহুমের দাফনকার্য সম্পন্ন হবে। উল্লেখ্য, চুয়াডাঙ্গার এই কৃতি সন্তান আব্দুস সাত্তার গত ৪ অক্টোবর বোতসোনিয়ার রাজধানী গ্যাববনের বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর থেকে তিনি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধিন ছিলেন। ২ডিসেম্বর ভোর সাড়ে ৫টায় তিনি চিকিৎসাধিন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।