চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ২৬ মে ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

৪ বার হত্যার টার্গেট, দুই মামলায় গ্রেপ্তার ৮

সমীকরণ প্রতিবেদন
মে ২৬, ২০২১ ১০:৩৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

কিলারদের নিশানায় চেয়ারম্যান কবির বিশ্বাস, জীবন নিয়ে শঙ্কা
ঝিনাইদহ অফিস:
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নলডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির হোসেন বিশ্বাসের পিছু ছাড়ছে না কিলার গ্রুপ। চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর ৫ বছরে চারবার হামলা করা হয় হত্যার উদ্দেশ্যে। প্রতিবারই তিনি কাকতালীয়ভাবে বেঁচে যান। সর্বশেষ গত শুক্রবার (২১ মে) তাঁর ওপর সন্ত্রাসী হামলা হয়। এই ঘটনায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় তিনি জিডি করেছেন।
জিডি সূত্রে জানা গেছে, গত ২১ মে চেয়ারম্যান কবির হোসেন নলডাঙ্গা ইউনিয়নের ভিটশ্বর গ্রামের একটি সালিশ শেষে মোটরসাইকেলযোগে ইউনিয়ন পরিষদে ফিরছিলেন। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ভিটশ্বর গ্রামের সত্যেন ডাক্তারের বাড়ির কাছে পৌঁছালে বাগুটিয়া গ্রামের মৃত বজলু বিশ্বাসের ছেলে চান্দালী (৪৮), মৃত বাবর আলীর ছেলে তরিকুল ইসলাম (৩৫), সাইদুল খোড়ার ছেলে লিমন (৩২), মৃত রুহুল বিশ্বাসের ছেলে রিংকু (২৭), মৃত বাবর আলীর ছেলে আলাউদ্দিন (৪২), ছাত্তার জোয়ার্দ্দারের ছেলে মিজান (৪৪), চাপাতি ও রামদা, চাকুসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাঁর ওপর হামলা চালায়। এসময় চেয়ারম্যানের সঙ্গে থাকা আড়মুখ গ্রামের মৃত ইউসুফ বিশ্বাসের ছেলে নূর আলীকে (২৪) তারা এলোপাতাড়ীভাবে পিটিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় পুলিশ বেশ কয়েকজনকে আটক ও রাম দা উদ্ধার করেছে।
চেয়ারম্যান কবির হোসেন জানান, চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই ঝিনাইদহের একজন এমপির ইন্ধনে বারবার তার ওপর হামলা ও হত্যার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। ঝিনাইদহ পুলিশ লাইসন-এর সামনে একবার কুষ্টিয়ার কিলার গ্রুপকে ভাড়া করে হত্যার ছক কষে প্রভাবশালী মহলটি। নলডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ ও বাজারেও একাধিকবার তাঁর ওপর সন্ত্রাসী হামলা হয়। কিন্তু কোনো প্রতিকার নেই। ফলে জীবন নিয়ে আমি শঙ্কায় আছি। ঠিকমতো সরকারি দায়িত্ব পালন করতেও পারছি না।
বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, নলডাঙ্গার চেয়ারম্যান কবির হোসেনের ওপর হামলার ঘটনায় মোট ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে সাইদ নামে এক আসামি স্বীকার করেছে লিমন তাদের ৬ জনকে ভাড়া করে এনেছে। আসামির স্বীকারোক্তি যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে বলে ওসি জানান।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।