৪০ পিস ইয়াবা ও ১৬ লিটার তাড়িসহ আটক-৫

333

চুয়াডাঙ্গা, দামুড়হুদা ও জীবননগরে পুলিশের মাদকবিরোধী সফল অভিযান
সমীকরণ ডেস্ক: দামুড়হুদা থানাধীন কার্পাসডাঙ্গা, চুয়াডাঙ্গা সদরের কার্পাসডাঙ্গা ও জীবননগর থানা পুলিশের পৃথক মাদকবিরোধী সফল অভিযানে ৬০ পিচ ইয়াবা ও ১৬ লিটার তাড়িসহ ৫ জনকে আটক করা হয়েছে।
কুড়ুলগাছি/কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কার্পাসডাঙ্গা ক্যাম্প পুলিশ একটি ঝটিকা অভিযান চালিয়ে ২০ পিচ ইয়াবাসহ একজনকে আটক করে। কার্পাসডাঙ্গা ফাঁড়ি পুলিশের আইসি এসআই আসাদ ও এএসআই আবুল কাশেম গোপন সংবাদ পেয়ে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে কার্পাসডাঙ্গা মুজিবনগর সড়কের ফকিরাখালি নামক স্থানে অভিযান চালিয়ে কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের কুতুবপুর গ্রামের আবুল ওয়াহেদের ছেলে আলমগীর হোসেন আলম (২৫) কে আটক করে। এ সময় তার দেহ তল্লাশি করে ২০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।


সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছে, চুয়াডাঙ্গা সদরের সরোজগঞ্জ ফাঁড়ি পুলিশের অভিযানে ১৬ লিটার তাড়িসহ দুজনকে আটক করা হয়েছে। আলমডাঙ্গা থানার ও চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের পদ্ববিলা ইউনিয়নের শিয়ালমারী গ্রামের শহিদ মল্লিকের ছেলে লিটন মল্লিক (২৫) এবং একই গ্রামের সোনা মিয়ার ছেলে সুমন আলীকে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ১৬ লিটার তাড়িসহ নিমতলা গ্রামের প্রাইমারি স্কুলের পাশে খেজুর বাগান থেকে হাতেনাতে আটক করা হয়। সরোজগঞ্জ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই শফিকুল ইসলাম ও এএস আই হাদীউরজ্জামান, এএসআই সাকের আলী ও তার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে এ অভিযান পরিচালনা করেন। পরে তাদের দু’জনকে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় সোপর্দ করা হয়।


জীবননগর অফিস জানিয়েছে, জীবননগর থানা পুলিশের অভিযানে ২০পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ একজন আটক হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে জীবননগর থানার এসআই কাজী শামসুল আলম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গোপন সংবাদের ভিক্তিতে জীবননগর উপজেলার হাসাদহ ইউনিয়নের পনেরসতি পাড়ায় অভিযান চালিয়ে হাসাদহ মাঝের পাড়ার ইমান আলীর ছেলে রেজাউল ইসলামকে (৩৩) ২০পিচ ইয়াবাসহ আটক করে। এ ব্যাপারে জীবননগর থানায় তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে একটি মামলা করা হয়েছে।