চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৪ ডিসেম্বর ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

২ কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন অবৈধ : আপিল করা যাবে রোববার পর্যন্ত

সমীকরণ প্রতিবেদন
ডিসেম্বর ৪, ২০২০ ১১:০১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

চুয়াডাঙ্গা পৌর নির্বাচন : মেয়র পদে ৮, সংরক্ষিত ১৩ ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৬৪ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে মেয়র পদে ৮ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১৩ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৬৪ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে জেলা নির্বাচন অফিসে পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার তারেক আহমেমদ মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষ বৈধ তালিকাসহ দুই সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করেছেন। অবৈধ ষোষিত কাউন্সিলর প্রার্থীরা হলেন- ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আসাদুজ্জামান সবুজ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী কামরুজ্জামান চাঁদ। আসাদুজ্জামান সবুজের বয়স ২৫ পূর্ণ না হওয়ায় এবং কামরুজ্জামান চাঁদের সিটি ব্যাংকে ক্রমেক্স ক্রেডিট ৫ হাজার ৬শ টাকা বিল বকেয়া থাকায় প্রার্থীতা বাতিল হয়েছে। তবে তাঁরা তিন দিন অর্থাৎ আগামী রোববারের মধ্যে আপিল করার সুযোগ পাবেন। জানা গেছে, কামরুজ্জামান চাঁদ বিল পরিশোধ করে বাতিল আদেশ পুনুরুদ্ধারের জন্য জেলা প্রশাসক ও আপিল কর্তৃপক্ষের কাছে আপিল করবে।
মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই কাজে সহযোগিতায় ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার কামরুল হাসান। চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচন ইভিএমের মাধ্যমে আগামী ২৮ ডিসেম্বর ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে ১০ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ও ১১ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে।
এবারে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মোট ভোটার ৬৭ হাজার ৭৭৪ জন। এর মধ্যে ১ নম্বর ওয়ার্ডে ৭৯৯৮ জন, ২ নম্বর ওয়ার্ডে ৭৯০০ জন, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ৬১৫২ জন, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে ৬৩৭০ জন, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৭৫১৯ জন, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে ৮৬০২ জন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৮৪৯৮ জন, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ৭৬৭৫ জন এবং ৯ নম্বর ওয়ার্ডে ৭০৬০ জন। নির্বাচনে ৩৩ কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হবে।
চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার তারেক আহমেমদ জানান, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে মেয়র পদে ৮ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১৩ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৬৪ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। তবে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আসাদুজ্জামান সবুজ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী কামরুজ্জামান চাঁদের মনোনয়পত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। আসাদুজ্জামান সবুজের বয়স ২৫ পূর্ণ হয়নি এবং কামরুজ্জামান চাঁদের বাংলাদেশে ব্যাংকের সিআইবি রিপোর্টে ঋণ খেলাপির প্রমাণ পাওয়া গেছে। তবে তাঁরা তিন দিন অর্থাৎ আগামী রোববারের মধ্যে আপিল করার সুযোগ পাবেন।
কারা হলেন বৈধ প্রার্থী :
মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাহাঙ্গির আলম মালিক খোকন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি মনোনিত ধানের শীষের প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম মনি, ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনিত প্রার্থী তুষার ইমরান, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মজিবুল হক মালিক মজু, মুনিবুল হাসান, তানভীর আহমেদ মাসরিকী, শরিফ হোসেন দুদু ও সৈয়দ ফারুক উদ্দিন আহম্মেদ।
সংরক্ষিত ওয়ার্ড :
চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে মোট মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ১৩ জন। এর মধ্যে ১ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন, ২ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ জন ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ৬ জন। ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ড মিলে ১ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডে শাহিনা আক্তার, নাসরিন পারভীন, চাঁদনি খাতুন ও সুফিয়া খাতুন। ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড মিলে ২ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডে বিলকিস নাহার, সুলতানা আঞ্জু ও হাসিমা খাতুন। ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড মিলে ৩ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডে শেফালী খাতুন, শাহানা খাতুন, মোমেনা খাতুন, জাহানারা খাতুন, জাহানারা বেগম ও আন্না খাতুন।
সাধারণ ওয়ার্ড :
চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৮ জন। তাঁরা হলেন- জাহাঙ্গির আলম, বিল্লাল হোসেন বেল্টু, আব্দুল মালেক, আলমগীর হোসেন, মুনছুর আলী, জয়নাল আবেদীন, গোলজার হোসেন ও মোমিনুর রহমান। ২ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৯ জন। তাঁরা হলেন- মুন্সি রেজাউল করিম খোকন, কামরুজ্জামান বাবলু, মহিবুল ইসলাম, আলী হোসেন, খায়রুল হক, আব্দুল আজিজ জোয়ার্দ্দার, আবুল কালাম, আজিজুর রহমান ও আজম আলী মিলন। ৩ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৭ জন। তাঁরা হলেন- নাজরিন পারভীন, আলমগীর হোসেন, জাহিদ হোসেন জুয়েল, জাহিদুল ইসলাম, আমিরুল ইসলাম, মহলদার ইমরান ও শরিফ আহমেদ। ৪ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৫ জন। তাঁরা হলেন- মাফিজুর রহমান মাফি, শেখ সেলিম, দেলোয়ার হোসেন দয়াল, ফজলে রাব্বি মুন্সি ও তারিকুজ্জামান। ৫ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৭ জন। তাঁরা হলেন- নাজমুল হক মিণ্টু, মুন্সি আলাউদ্দীন আহমেদ, গোলাম মোস্তফা শেখ, সাইফুদ্দিন, আলম, শাহীনুর রশিদ ও মিজানুর রহমান। ৬ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৬ জন। তাঁরা হলেন- আব্দুল মান্নান জোয়ার্দ্দার, মোনাজাত শেখ, আজাদ আলী, আলামিন ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, ফরজ আলী শেখ ও রাশেদুল হাসান। ৭ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৮ জন। তাঁরা হলেন- উজ্জ্বল হোসেন, মজনুল হক, আবুল হোসেন, সুমন হোসেন, সাইফুল আরিফ বিশ্বাস, আশাবুল হক, জয়নাল আবেদীন ও খালিদ মণ্ডল। ৮ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৬ জন। তাঁরা হলেন- ফিরোজ শেখ, আহসান, শের আলী বিশ্বাস, টুটুল মোল্লা, সাইফুল ইসলাম ও আবু কাউসার বিশ্বাস। ৯ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৭ জন। তাঁরা হলেন- সুমন আহমেদ, আলাউল ইসলাম, মফিজুর রহমান, আমান উল্লাহ, ইব্রাহিম শেখ ইমরান, আতিয়ার রহমান জোয়ার্দ্দার, শহিদুল কদর জোয়ার্দ্দার।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।