চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২০ নভেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

২০ বছরে ‘সবচেয়ে দামি’ কাতার বিশ্বকাপের টিকিট

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
নভেম্বর ২০, ২০২২ ৪:২৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ ‘বিশ্বকাপ ফুটবল’। এবারই মধ্যপ্রাচ্যের কোন দেশে প্রথম ফিফা বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আয়োজক সত্ব পাওয়ার পর থেকেই কাতারকে নিয়ে বির্তক চলছে। এবার নতুন এক বির্তক টিকিটের মূল্য নিয়ে। গত ২০ বছরের হিসাবে কাতার বিশ্বকাপ টিকিটের দাম সবচেয়ে বেশি। ১৮ ডিসেম্বরের ফাইনাল খেলা দেখতে ফুটবলপ্রেমীদের ৬৮৪ পাউন্ড বা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৬৬ হাজার টাকার বেশি খরচ করতে হবে। যা ২০১৮ সালের ফাইনালের টিকিটের গড় দাম থেকে ৫৯ শতাংশ বেশি।
২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের চেয়ে গড়ে ৪০ শতাংশ বেশি আসন্ন বিশ্বকাপ ফুটবলের টিকিটের দাম। রাশিয়া বিশ্বকাপে টিকিটের গড় দাম ছিল ২১৪ পাউন্ড বা প্রায় ২১ হাজার টাকা। এবার কাতার বিশ্বকাপে তা করা হয়েছে ২৮৬ পাউন্ড বা প্রায় ২৮ হাজার টাকা। গত ২০ বছরে কোনও বিশ্বকাপের টিকিটের গড় দাম এত বেশি ছিল না। জার্মানির মিউনিখ ভিত্তিক খেলাধুলার সংবাদ মাধ্যম কেলার স্পোর্টসের এক সমীক্ষায় এ তথ্য জানা গেছে।
কেলার স্পোর্টসের সমীক্ষায় বলা হয়েছে, ‘কাতার বিশ্বকাপকে এরই মধ্যে ইতিহাসের সবচেয়ে খরচে আসর হিসেবে ধরা হচ্ছে। বিশ্বকাপের জন্য ছ’টি নতুন স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হয়েছে। সংস্কার করা হয়েছে আরও দু’টি স্টেডিয়াম। আটটি স্টেডিয়ামের জন্যই শুধু খরচ করা হয়েছে ৩ বিলিয়ন ডলার।’
তারা আরও জানায়, ‘রাজধানী দোহার অন্যান্য পরিকাঠামো গড়ে তুলতেও বিপুল পরিমাণে অর্থ খরচ করা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে রাস্তা-বিমানবন্দরও। এজন্য অবাক হওয়ার কিছু নেই, কাতার বিশ্বকাপে গড়ে টিকিটের দাম সবচেয়ে বেশি করা হয়েছে।’
কাতার বিশ্বকাপের টিকিটের মূল্য নিয়ে বিতর্ক হলেও এ নিয়ে কিছুই বলেনি ফিফা। এর আগে ফিফা জানিয়েছিলো, কাতারের আটটি স্টেডিয়ামের জন্য নভেম্বর থেকে ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিশ্বকাপের ৩০ লাখ টিকিট বিক্রি হয়ে গিয়েছে। ২০০৬ জার্মানি বিশ্বকাপের টিকিটের দাম নিয়েও বির্তক তৈরি হয়েছিল। এবার জার্মানিকে ছাপিয়ে গেছে কাতার। ২০০৬ বিশ্বকাপের টিকিটের গড় দাম ছিল ১০০ পাউন্ড বা প্রায় ৯৭০০ টাকা। আসরে ফাইনাল ম্যাচের টিকিটের গড় দাম ছিল ২২১ পাউন্ড বা প্রায় সাড়ে ২১ হাজার টাকা।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।