চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হোমওয়ার্কে লিখতে হবে সুইসাইড নোট

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৭ ১১:২১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিস্ময় ডেস্ক: সন্তানকে হোমওয়ার্ক করাতে বসলে অনেক মা-বাবাকেই হিমশিম খেতে দেখা যায়। নানান সৃজনশীল বিষয়ে পারদর্শী করার জন্যই বিভিন্ন উপায়ে ছাত্র-ছাত্রীদের গড়ে নিতে চান শিক্ষক ও অভিভাবকরা। নতুন নতুন বিষয়ে হোম টাস্ক দেয়া তাই নতুন কিছু নয়। অভিভাবকরাও এর সঙ্গে অভ্যস্ত। কিন্তু তা বলে হোম টাস্কে লিখতে দেয়া হবে সুইসাইড নোট! সম্প্রতি এক শিক্ষকের এহেন হোমওয়ার্ক দেয়াকে কেন্দ্র করেই ছড়াল তীব্র বিতর্ক।
ক্লাসে শেক্সপিয়ারের ম্যাকবেথের নির্বাচিত অংশ পড়িয়েছিলেন এক শিক্ষক। লেডি ম্যাকবেথের ঘটনার উল্লেখ করেই তারপর পড়–য়াদের একটি সুইসাইড নোট লেখার কাজ দেন তিনি। প্রিয়জনদের উদ্দেশ করেই তা লিখতে হবে। এহেন হোম টাস্ক নিয়েই বাসায় ফেরে পড়–য়ারা। এদিকে হোমওয়ার্কের বহর দেখে তো অভিভাবকদের চক্ষু চড়কগাছ। যোগাযোগ করা হয় স্কুল কর্তৃপক্ষর সঙ্গে। আপাতত ব্রিটেনের থমাস টালিস স্কুলের এই ঘটনায় নানারকম প্রশ্ন উঠেছে বিশ্বজুড়েই।
পড়–য়াদের সকলেরই বয়স অল্প। কিশোর-কিশোরীদের মনে এই হোমওয়ার্ক যে গভীর প্রভাব ফেলেছে, তা অভিভাবকদের অভিযোগেই স্পষ্ট। এক অভিভাবক জানিয়েছেন, তার কন্যা এই হোমওয়ার্ক করতে গিয়ে রীতিমতো হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। আবার এই বয়সে অনেক কিশোর পড়–য়াই হতাশার কারণে আত্মহত্যা করে। পরীক্ষায় খারাপ ফল বা অভিভাবকদের প্রত্যাশার চাপও এ ক্ষেত্রে অনেকাংশে দায়ী। বন্ধু হারানোর অভিজ্ঞতা তাই এই বয়সেই হয়েছে অনেক পড়–য়ার। এ হোমওয়ার্ক করতে গিয়ে ফিরে এসেছে সেই ভয়াবহ স্মৃতি। তাতে রীতিমতো অসুস্থ বোধ করেছে কোনো কোনো পড়–য়া। অভিভাবকদের তরফে কড়া প্রতিক্রিয়া পেয়ে ইতিমধ্যেই ক্ষমা চেয়েছে ওই স্কুল কর্তৃপক্ষ।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।