হিজলগাড়ীতে ভুয়া সাংবাদিকসহ আটক ৬

194

প্রতিবেদক, তিতুদহ:
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হিজলগাড়ী ফাঁড়ি পুলিশের হাতে ভুয়া সাংবাদিকসহ ছয়জন আটক হয়েছেন। আটক হওয়া ব্যক্তিরা হলেন ঝিনাইদহ জেলার গান্নাবাজার এলাকার আজাদ হোসেনের ছেলে শান্ত (২১), একই এলাকার দীলিপ কুমারের ছেলে সামন্ত কুমার (১৮), সেলিমের ছেলে রকিবুল (১৮), মাগুরা জেলার পুলিশ লাইনস এলাকার মৃত আবু বক্করের ছেলে আকাশ খান, একই এলাকার মৃত আলতাব মিয়ার ছেলে নাসিম মল্লিক (২৫) ও মৃত হাসান আলীর ছেলে জীবন হোসেন (২২)। আটক হওয়া ব্যক্তিদের গতকাল রাতেই চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় সোর্পদ করা হয়েছে।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে হিজলগাড়ী-দর্শনা সড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে রেজিস্ট্রেশনবিহীন মোটরসাইকেল চেক করার সময় দর্শনা অভিমুখ থেকে হিজলগাড়ীর দিকে আসা একটি রেজিস্ট্রেশনবিহীন মোটরসাইকেল আটক করে পুলিশ। এ সময় মোটরসাইকেলে থাকা ব্যক্তিদের অসংলগ্ন কথাবার্তায় পুলিশের সন্দেহ হয়। এ সময় আটক করা হয় ঝিনাইদহ জেলার গান্নাবাজার এলাকার আজাদ হোসেনের ছেলে শান্ত (২১), একই এলাকার দীলিপ কুমারের ছেলে সামন্ত কুমার (১৮) ও সেলিমের ছেলে রকিবুলকে (১৮)।
পরবর্তীতে একই রাস্তা দিয়ে হিজলগাড়ী অভিমুখে আসা একটি অ্যাপাচি মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে পুলিশ। এ সময় মোটরসাইকেলে থাকা একজন নিজেকে জাতীয় দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের ঢাকা বাবু বাজার এলাকার প্রতিনিধি হিসেবে পরিচয় দিয়ে নিজেকে ঝিনাইদহ জেলার বাসিন্দা দাবি করেন। কিন্ত তখন গাড়ির অন্যরা তাঁদের বাড়ি মাগুরা জেলায় বলে জানালে পুলিশের সন্দেহ হয়। এ সময় সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া ব্যক্তির কাছে পরিচয়পত্র দেখতে চাইলে তিনি পরিচয়পত্র দেখাতে ব্যর্থ হন। পরবর্তীতে তাঁদের ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়। তাঁদের অসংলগ্ন কথা-বার্তায় পুলিশ তাঁদের আটক দেখায়। আটক হওয়া ভুয়া সাংবাদিকের নাম আকাশ খান। তিনি মাগুরা জেলার পুলিশ লাইনস এলাকার মৃত আবু বক্করের ছেলে। তাঁর সঙ্গে আটক অপর দুজন হলেন একই এলাকার মৃত আলতাব মিয়ার ছেলে নাসিম মল্লিক (২৫) ও মৃত হাসান আলীর ছেলে জীবন হোসেন (২২)। গতকাল রাতেই তাঁদের চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় সোর্পদ করা হয়।
এ বিষয়ে হিজলগাড়ী ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ এসআই আফজাল সাংবাদিকদের বলেন, ঈদকে সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে পুলিশ বিশেষ সতর্ক ভূমিকা পালন করছে। হিজলগাড়ী-দর্শনা সড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে রেজিস্ট্রেশনবিহীন মোটরসাইকেল চেক করার সময় ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। গতকাল রাতেই তাঁদের চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।