চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭

হাজী মোজাম্মেল হকের মরদেহ চুয়াডাঙ্গায় পৌঁছাবে আজ

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৭ ৬:২০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সকাল ১০টায় জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় ১ম জানাযা শেষে

বাদ আছর টাউন ফুটবল মাঠে ২য় জানাযা : জান্নাতুল মওলা কবরস্থানে দাফন
নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য জেলার প্রথম শিল্পপতি বর্ষীয়ান রাজনীতিক হাজী মোজাম্মেল হকের মরদেহ আজ চুয়াডাঙ্গায় পৌঁছাবে। ইতোমধ্যে মরহুমের বড় ছেলে রফিকুল হক মুন্নু সিঙ্গাপুর থেকে এবং মেজো ছেলে মাহবুবুল হক তাল্লু দেশে ফিরেছেন। আজ দুপুর নাগাদ ঢাকা থেকে মরদেহের সাথে তাদের চুয়াডাঙ্গা শহরের ইমাজেন্সী রোডস্থ তাঁর নিজ বাসভবনে পৌছানোর কথা রয়েছে। এরপর হাজী মোজাম্মেল হকের মরদেহ নিজ বাড়িতেই রাখা হবে। তাকে শেষবারের মত একনজর দেখতে ও শ্রদ্ধা জানানোর তাঁর বাড়িতে যাবেন আত্মীয়-স্বজন, রাজনৈতিক নেতাকর্মীসহ সকল স্তরের মানুষ। এরপর হাজী মোজাম্মেল হকের মরদেহ নেয়া হবে চুয়াডাঙ্গা টাউন ফুটবল মাঠে। বাদ আছর সেখানে মরহুমের দ্বিতীয় নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। জানাযা শেষে জান্নাতুল মওলা কবরস্থানে মরহুমের দাফন সম্পন্ন হবে।
এর আগে, হাজী মোজাম্মেল হকের মরদেহ সকাল ৯টায় ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতাল থেকে নেয়া হবে জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায়। সকাল ১০টায় সেখানে মরহুমের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর মরহুমের মরদেহ বহণকারী এ্যাম্বুলেন্সটি ঢাকা থেকে চুয়াডাঙ্গার উদ্দেশ্যে রওনা হবে।
চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য হাজী মোজাম্মেল হক চির নিদ্রায় শায়িত হওয়ার মধ্য দিয়ে তার এহকালের সংগ্রামী ও বর্ণাঢ্য জীবনের সমাপ্ত হবে। বর্ষীয়ান এই নেতার নামাজে জানাযায় অংশগ্রহণ ও নেতাকে একনজর দেখার জন্য জেলার সকল স্তরের মানুষ অপেক্ষায় রয়েছে।
উল্লেখ্য, হাজি মো. মোজাম্মেল হক শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভুগছিলেন। দুই মাস আগে চুয়াডাঙ্গার নিজ বাড়ি ইমার্জেন্সি রোডের মুক্তিপাড়া থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় এবং সেখান থেকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। সিঙ্গাপুর থেকে ঈদের আগে দেশে ফেরেন তিনি। দেশে এসে তিনি আবার অসুস্থ হয়ে পড়লে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত সোমবার সন্ধ্যায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।