চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ২ জুন ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হটস্পট দামুড়হুদা : ৪৮ জন আক্রান্ত, মৃত্যু ১৬

সমীকরণ প্রতিবেদন
জুন ২, ২০২১ ৮:৫০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

স্বাস্থ্যবিধি মানাতে কঠোর সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে -ইউএনও দিলারা রহমান
মোজাম্মেল শিশির, দামুড়হুদা:
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে হঠাৎ করে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। কোনোভাবেই কমছে না আক্রান্তের সংখ্যা। ফলে নতুন করে এ উপজেলা করোনার হটস্পটে পরিণত হয়েছে। সম্প্রতি ৪৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। দামুড়হুদা উপজেরা স্বাস্থ্য কমপেক্সের তথ্য অনুযায়ী এ যাবত ২ হাজার ৩ শ জনের নিকট থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩৭৯ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। ৩১৫ জন রোগী সুস্থ হয়ে ইতোমধ্যে বাড়ি ফিরেছেন। এপর্যন্ত এই উপজেলায় ১৬ জন করোনায় মারা গেছেন। এদিকে, উপজেলাজুড়ে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে কঠোর সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। মাস্ক ব্যবহার না করে বাইরে বের হওয়ার অপরাধে ৭ জনকে ১২ শ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
জানা যায়, দামুড়হুদা উপজেলার হোগলডাঙ্গা, বাঘাডাঙ্গা, মুন্সিপুর, কোমরপুর, কুতুবপুর, পীরপুরকুল্লাহ, সদাবরি, কুড়ুলগাছি, সদাবরি, হাতিভাঙ্গা বসতিপাড়া, নাপিতখালি, পাঠাচোরা, চন্দ্রবাস, সুবুরপুর, মদনা, মোক্তারপুর গ্রামের ৪৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান ভুট্টু জানান, ‘আমার ইউনিয়নের জনগণকে সর্তক করার চেষ্টা করছি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য সকলকে অনুরোধ করছি। একটি পরিবারে একজন আক্রান্ত হলে পরিবারের অন্যদের সাথে এবং গ্রামের কারো সাথে মিশবেন না। একা থাকার চেষ্টা করবেন। আমার এলাকায় যারা করোনাভাইরাসে অক্রান্ত, তারা প্রায় সকল পরিবারই স্বচ্ছল।’
দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভ জানান, অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। মাস্ক ব্যবহার করতে হবে, মাস্ক ছাড়া বাইরে বের হওয়া যাবে না। এগুলো যদি না মানা হয়, তাহলে আমাদের কেউ বাঁচাতে পারবে না। সেই সাথে ভারত থেকে যাতে অবৈধভাবে লোকজন না আসতে পারে, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) দিলারা রহমান বলেন, উপজেলাজুড়ে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে কঠোর সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিকে অবশ্যই ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। সীমান্ত দিয়ে কেউ যাতে প্রবেশ না করতে পারে, সে দিকে লক্ষ্য রাখার জন্য বিজিবিকে বলা হয়েছে। মাস্ক ছাড়া বাইরে বের হওয়া যাবে না। মোবাইল কোর্ট জোরদার করা হয়েছে। মাস্ক ছাড়া বাইরে বের হলে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলী মুনছুর বাবু জানান, ‘করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পরও যারা বাইরে ঘোরাফেরা করছেন, তারা যাতে ঘোরাফেরা করতে না পারেন, তার ব্যবস্থা করা হবে। যাতে একজন আক্রান্ত হয়ে আরও দশজনকে আক্রান্ত করতে না পারে। প্রয়োজনে আক্রান্ত ব্যক্তি যতদিন সুস্থ না হয়, ততদিন পর্যন্ত তাকে খাবারের ব্যবস্থা করা হবে।
এদিকে, মাস্ক ব্যবহার না করে বাইরে বের হওয়ার অপরাধে ৭ জনকে ১২ শ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন দামুড়হুদা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুদীপ্ত কুমার সিংহ। গতকাল মঙ্গলবার বেলা দেড়টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ চত্বরের রেজিস্ট্রি অফিস ও নির্বাচন অফিসে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।
জানা যায়, দামুড়হুদা উপজেলার রেজিস্ট্রি অফিসের লোকজন ও নির্বাচন অফিসের লোকজন মাস্ক ব্যবহার না করার অপরাধে দোষী সাবস্ত করে ১৮৬০ সালের ২৬৯ ধারায় ৭ জনকে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। প্রত্যেকে জরিমানার টাকা পরিশোধ করে মুক্ত হন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।