সড়কে বাড়ছে দুর্ঘটনা, চুয়াডাঙ্গার পৃথক স্থানে আহত ৩

12

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নারীসহ তিনজন আহত হয়েছেন। গতকাল সোমবার চুয়াডাঙ্গা কোর্ট মোড়, আলমডাঙ্গার ভালাইপুর মোড় ও আলমডাঙ্গার সোনাতনপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় ব্যক্তিরা আহতদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়। জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি রাখেন। আহতরা হলেন- দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের নতুন বাস্তুপুর গ্রামের স্কুলপাড়ার আলী বক্সের ছেলে মফিকুল ইসলাম (৩৫), একই উপজেলার জুড়ানপুর ইউনিয়নের কলাবাড়ি গ্রামের আজাবুল হকের স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন (৩৫) ও আলমডাঙ্গার আঁইলহাস ইউনিয়নের ঘোলদাঁড়ি গ্রামের টাকপাড়ার মৃত আজগর মণ্ডলের ছেলে ইউনুস হেসেন (৪০)।
জানা যায়, গতকাল দুপুর ১২টার দিকে দামুড়হুদা থেকে ইজিবাইকযোগে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে আসছিলেন মফিকুল ইসলাম। পথের মধ্যে চুয়াডাঙ্গা কোর্ট মোড়ে পৌঁছালে দামুড়হুদামুখী একটি করিমনের সঙ্গে ইজিবাইকের ধাক্কা লাগে। এতে আহত হন মফিকুল ইসলাম। স্থানীয় ব্যক্তিরা তাঁকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়।
এদিকে, ভালাইপুর বাজার থেকে পাখিভ্যানযোগে নিজ বাড়িতে যাচ্ছিলেন সাবিনা ইয়াসমিন। এসময় একটি মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাঁর পায়ে আঘাত করে। এতে গুরুতর জখম হন সাবিনা। পরে স্থানীয় ব্যক্তিরা তাঁকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়। জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, স্থানীয় ব্যক্তিরা পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় আহত দুজনকে জরুরি বিভাগে নেয়। আহত দুজনের মধ্যে সাবিনার জখম গুরুতর হওয়ায় তাঁকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে।
অপর দিকে, গতকাল সোমবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে আলমডাঙ্গার সোনাতনপুরে বাইসাইকেল ও আলমসাধুর সংঘর্ষে ইউনুস হোসেন নামের এক ব্যক্তি গুরুতর জখম হন। এসময় স্থানীয় ব্যক্তিরা জখম ইউনুস হোসেনকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়। জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সোহানা আহমেদ ইউনুসকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি রাখেন।
জানা যায়, আলমডাঙ্গায় কাজ শেষ করে বাইসাইকেলযোগে নিজ বাড়ি ঘোলদাঁড়ি টাকিপাড়ার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন ইউনুস। পথের মধ্যে সোনাতনপুরে পৌঁছালে একটি দ্রুতগতির আলমসাধু বাইসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে বাইসাইকেল আরোহী ইউনুসের একটি পায়ে গুরুতর জখম হন। স্থানীয় ব্যক্তিরা ইউনুসকে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে চিকিৎসক তাঁকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি রাখেন।
জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সোহানা আহমেদ বলেন, ‘সড়ক দুর্ঘটনায় রোগীর ডান পায়ে গুরুতর জখম হয়েছে। তাঁকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি রাখা হয়েছে।’