চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২৪ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সড়কে পড়ে ছিল সিএনজি চালক, পরে মৃত্যু!

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ২৪, ২০২২ ৬:৪৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গার আলুকদিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিশান আলী (২৪) নামের এক সিএনজি চালকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার দিবাগত রাত একটার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কের আলুকদিয়া পুরাতন কবরস্থানের অদূরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রাতে সদর থানা পুলিশ রাস্তার পাশে দুমড়ানো সিএনজিসহ তাকে দেখতে পায়। পরে চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় নিশান আলীকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে তিনটার দিকে তাঁর মৃত্যু হয়। নিহত সিএনজি চালক নিশান আলী আলমডাঙ্গা উপজেলার চিৎলা ইউনিয়নের কয়রাডাঙ্গা গ্রামের এস মোহাম্মদের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার রাতে ডিউটিরত অবস্থায় চুয়াডাঙ্গা সদর থানাধীন চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কের আলুকদিয়া পুরাতন কবরস্থানের অদূরে একটি দুর্ঘটনাকবলিত সিএনজিকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ। পরবর্তীতে সেখানেই অচেতন অবস্থায় সিএনজির চালককে পাওয়া যায়। চালকের পকেট থেকে তাঁর জাতীয় পরিচয়পত্র দেখে তাঁর পরিচয় নিশ্চিত হয়। এসময় সদর থানা পুলিশ দ্রুত ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় তাঁকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়। জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাঁকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি রাখেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে তিনটার দিকে নিশানের মৃত্যু হয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, রাত দেড়টার দিকে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা মুমূর্ষু অবস্থায় নিশানকে জরুরি বিভাগে নেয়। জানতে পারি সে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হয়েছিল। তার শরীরে থেকে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাঁর মাথা ও পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখমের চিহ্ন পাওয়া যায়। জরুরি বিভাগ থেকে তাঁকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি রাখা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে তিনটার দিকে তার মৃত্যু হয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহাবুবুর রহমান বলেন, বুধবার রাত একটার দিকে সদর থানার ডিউটিরত পুলিশ রাস্তার পাশে দুর্ঘটনাকবলিত সিএনজিসহ চালককে পড়ে থাকতে দেখে। ধারণা করা হচ্ছে রাত ১২টা থেকে ১টার মধ্যে কোনো ভারিযানের সঙ্গে ধাক্কা লাগলে চালক গুরুতর জখম হয়। পরে তাঁকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাত সাড়ে তিনটার দিকে ওই সিএনজি চালকের মৃত্যু হয়। পরিবারের সদস্যদের কোনো অভিযোগ না থাকায় ও তাঁদের লিখিত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়ায় লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।