চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২৭ নভেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

স্বপ্ন পূরণে কানাডায় পাড়ি, লাশ হয়ে ফিরছেন মেধাবী ছাত্র আকাশ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
নভেম্বর ২৭, ২০২২ ৪:০৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার জুড়ানপুর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের আলাউদ্দিন আল আজাদ ওরফে তুহিন মালিতা ও নুরুন্নাহার আজাদ দম্পতির প্রথম সন্তান পারভেজ আজাদ আকাশ। শিক্ষাজীবনে অত্যন্ত মেধাবী এবং আচার-আচরণে নম্র, ভদ্র ও বিনয়ী হওয়ায় আকাশ ছিলেন সকলের প্রিয়। নিজেকে আলোকিত মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে অর্থাৎ বাবা-মায়ের স্বপ্নপূরণে তাঁর চেষ্টা ছিল নিরন্তর। সেই স্বপ্নপূরণের আগেই চিরদিনের মতো হারিয়ে গেলেন বাবার কলিজার টুকরা, মায়ের নাড়ি ছেড়া ধন পারভেজ আজাদ আকাশ।

কানাডার রেজিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন অনুষদে স্নাতক শেষ সেমিস্টারের মেধাবী ছাত্র পারভেজ আজাদ আকাশ গত ১৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৬টায় মন্ট্রিল শহরে আকস্মিক হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ২৪ বছর।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আগামী ২৮ নভেম্বর সোমবার সকাল ৬টায় আকাশের মরদেহ ঢাকায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছনোর কথা রয়েছে। ওইদিন দুপুর ১২টায় মরহুমের মরদেহ চুয়াডাঙ্গার শহরতলী দৌলাতদিয়াড় এলাকার বাড়িতে নেওয়া হবে। যে বাড়িতে কেটেছে তার শৈশব ও দূরন্ত কৈশোরের সূবর্ণ সময়। দৌলাতদিয়াড়ে কিছুসময় রাখার পর পৈত্রিক ভিটা গোপালপুরে নেওয়া হবে এবং বাদ যোহর গ্রামের কবরস্থানে তাঁর লাশের দাফনকার্য সম্পন্ন করা হবে।

আলাউদ্দিন আল আজাদ-নুরুন্নাহার আজাদ দম্পতির দুই সন্তানের মধ্যে পারভেজ আজাদ আকাশ ছিলেন বড়। ছোট ছেলের নাম আবীর আজাদ। সন্তানের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের কথা ভেবে গ্রাম ছেড়ে চলে আসেন শহরতলী দৌলাতদিয়াড়ে। সেখানে ফায়ার সার্ভিসপাড়ায় বাড়ি তৈরি করে বসবাস শুরু করে পরিবারটি। চুয়াডাঙ্গা ভিক্টোরিয়া জুবিলি (ভি জে) মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২০১৫ সালের এসএসসি ব্যাচের ছাত্র আকাশ। এইচএসসি পাসের পর উচ্চশিক্ষার্থে কানাডায় যান এবং মন্ট্রিল শহরের রেজিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে মেডিসিন বিভাগে স্নাতক ভর্তি হন। মৃত্যুর আগে স্নাতক শেষ সেমিস্টারের ছাত্র ছিলেন তিনি। তাঁর অকাল মৃত্যুতে বাবা-মা, আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধুমহলে শোক নেমে এসেছে। নিহতের বাবা প্রিয় সন্তানের রূহের মাগরিফাত কামনায় সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।