চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

স্পট কবিখালি : সড়কের বেহাল দশা!

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১ ৮:৩০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

এম এ মামুন:
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার মোমিনপুর ইউনিয়নের কবিখালী গ্রাম। পিরোজখালি ও সোনাগাড়ি বিলের ধারে অবস্থিত সবুজ শ্যামল এই কবিখালি গ্রামের নামের ইতিহাস তেমন কেউ বলতে না পারলেও এ গ্রামের শুকুর আলী জানালেন, একসময় এই অঞ্চলে কবিদের কবিতার আসর বসতো বলে নামকরণ করা হয়েছে কবি খালি। বৈচিত্রময় কবিখালির নামকরণ যেভাবেই হোক না কেন গ্রামটিকে একটি কৃষিবান্ধব গ্রাম বললে ভুল হবে না। কৃষিনির্ভর এ গ্রামের মানুষের প্রধান পেশা কৃষি। জেলা শহর থেকে মাত্র ১০ কিলোমিটার দূরত্ব গ্রামটির নানা সমস্যার মধ্য অন্যতম সমস্যা যোগাযোগ ব্যবস্থা।
গত বৃহস্পতিবার বিকেলে সরেজমিনে গ্রামের মানুষের সাথে কথা বললে, গ্রামবাসীরা বলেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে তাঁদের জোর দাবি, গ্রামের সাথে জেলা শহরের একমাত্র যোগাযোগের সড়ক নীলমণিগঞ্জ ভায়া কবিখালি টু ভায়া ডিঙ্গেদহ পাকা সড়কটিকে দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় পাকা সড়ক এখন ক্রমেই কাঁচায় পরিণত হতে যাচ্ছে। তাই নীলমণিগঞ্জ ভায়া কবিখালি টু ডিঙ্গদহ সড়কটির দ্রুত সংস্কার করা হলে কবিখালি গ্রামবাসীদের পাশাপাশি এলাকার জনসাধারণের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হবে।
এছাড়া কবিখালি থেকে নাগদাহ বাজার পর্যন্ত মাত্র দুই কিলোমিটার রাস্তার ২৫ ভাগ সোলিং, যা নষ্ট হয়ে সেটাও কাঁচায় পরিণত হয়ে গেছে এবং এ রাস্তার বাকি ৭৫ ভাগ দীর্ঘদিন থেকে কাঁচা থাকায় কবিখালিসহ অত্রালাকার মানুষ নাগদাহ হাসপাতালসহ কৃষিপণ্য ক্রয়-বিক্র ও জরুরি প্রয়োজনে নাগদহসহ অত্র এলাকার হাট-বাজারে যেমন যেতে পারছে না, সেই সাথে বিবিধ প্রয়োজনে বাধ্য হয়ে যাতায়াত করতে এলাকাবাসীকে চরম কষ্ট পোহাতে হচ্ছে।
এলাকাবাসী জানান, কবিখালি টু নাগদাহ রাস্তাটি কাঁচা। এ সড়কটি পাকাকরণ করা হলে নাগদাহ ও মোমিনপুর ইউনিয়নের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থার এক অভূতপূর্ব উন্নয়ন হবে বলে আশা করেন গ্রামবাসীরা।
গ্রামের একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘ভাই ভোটের বাজার এখন অন্য রকম। তাই জনগণের কদরও কমে গেছে। সমস্যার কথা বললে সমাধান সহজে হয় না।’
এদিকে কবিখালি গ্রামের সমস্যার কথা শুনে মোমিনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক জানান, ‘আমি বিষয়টি জানি, আমি চেষ্টা করব, কবিখালি টু নাগদাহ সড়ক পাঁকাকরণ এবং নীলমণিগঞ্জ ভায়া ডিঙ্গেদহ পর্যন্ত সংস্কার করারও।’ সুপ্রিয় পাঠক আজকের সমস্যা কবিখালি যোগাযোগ ব্যবস্থা নিয়ে। আগামী দিনে হয়তো আপনার এলাকার সমস্যার কথা নিয়ে লিখব।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।