চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ৪ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সিন্ডিকেট প্রশ্নে দেশেই সমালোচনার মুখে মালয়েশিয়ার মন্ত্রী

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ৪, ২০২২ ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন:
কলিং ভিসা নিয়ে ঢাকায় দুই দেশের শীর্ষ পর্যায়ের প্রতিনিধিদলের জয়েন্ট ওয়ার্কিং মিটিংয়ের পর এবার নিজ দেশেই সিন্ডিকেট প্রশ্নে সমালোচনার মুখে পড়েছেন মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী এম সারাভানান। গত বৃহস্পতিবার সিন্ডিকেট বিরোধীদের আয়োজিত (ঘড় ২৫ ংুহফরপধঃব) মানববন্ধনের সংবাদ গতকাল শুক্রবার মালয়েশিয়ার গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর এই সমালোচনার সৃষ্টি হয়। তবে এসব সমালোচনা উড়িয়ে দিয়ে সারাভানান বলেছেন, ঢাকায় কোনো বিক্ষোভ বা মানববন্ধন হয়নি। তাকে ঢাকায় শান্তিপূর্ণভাবে স্বাগত জানানো হয়েছে এবং আলোচনা সফল হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। যদিও ‘২৫ সিন্ডিকেট’-এর পক্ষে অবস্থান নেয়ার কারণে মন্ত্রী এম সারাভানানের বিরুদ্ধে আগে একাধিকবার সমালোচনা করে দেশটির এনজিওগোষ্ঠী এবং সুশীল সমাজ। কিন্তু প্রত্যেকবার সারাভানান এসব সমালোচনা এড়িয়ে গেছেন। বৃহস্পতিবার জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের আলোচনার পর কলিং ভিসা চালুর ঘোষণা দেয়া হয়েছে। চলতি মাস থেকেই বাংলাদেশী কর্মী মালয়েশিয়ায় যাওয়া শুরু হবে। সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী আগামী পাঁচ বছরে ৫ লাখ বাংলাদেশী বেকারের মালয়েশিয়ায় কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।
এর আগে বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার প্রতিনিধিদলের সঙ্গে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক শেষে বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমেদ। মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী ও দেশটির প্রতিনিধিদল ওই বৈঠকে অংশ নেন। তবে কোন কোন রিক্রুটিং এজেন্সি কর্মী পাঠাবে সেটা নির্ধারণ করবে মালয়েশিয়া- এই শর্তে সম্মত হন উভয় পক্ষ। মোট খরচ কত পড়বে এবং মেডিক্যাল কখন থেকে শুরু হবে এ বিষয়টি এখনো জানানো হয়নি। অভিবাসন খরচ প্রসঙ্গে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, খরচ কিন্তু সমঝোতায় উল্লেখ করা আছে। বাংলাদেশের প্রান্তে কিছু খরচ আছে সেটি কর্মীকে বহন করতে হবে। আর বিমান টিকিট থেকে শুরু করে বাদবাকি যাবতীয় খরচ নিয়োগকর্তার। আগের সমঝোতায় বিমান টিকিট একটি ছিল, আর এখন আসা-যাওয়া দুটির খরচই নিয়োগকর্তার। যদি কোনো এজেন্সি বা নিয়োগকর্তা আইন ভঙ্গ করে তাহলে আইনি ব্যবস্থা নিবে তারা।
এ দিকে মালয়েশিয়ার সংবাদমাধ্যমে গতকাল এক বিবৃতিতে মানবসম্পদ মন্ত্রী দাতুক সেরি এম সারাভানান ঢাকায় সিন্ডিকেট-বিরোধীদের বিক্ষোভের সংবাদ প্রতিবেদনকে প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, অভিবাসী শ্রমিক নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে বাংলাদেশের রাজধানীতে তার সাম্প্রতিক সফরের সময় তাকে ভালোভাবে স্বাগত জানানো হয়। সংবাদ প্রতিবেদনকে নিছক অনুমান বলে বর্ণনা করে তিনি বলেন, ‘ঢাকায় কোনো প্রতিবাদ হয়নি। সব পরিবেশ স্বাভাবিক ছিল। ঢাকা আমাকে ভালোভাবে গ্রহণ করেছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আমি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র ও অর্থমন্ত্রীদের সাথে দেখা করেছি।’

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।