চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১১ আগস্ট ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সালমান-শাহরুখের পকেট থেকে খসছে কোটি টাকা

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ১১, ২০১৭ ৬:২১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিনোদন ডেস্ক: ঈদে সালমান খানের ছবি মানেই কোটি কোটি রুপির ব্যবসা। কিন্তু এবারের ছবি ‘টিউবলাইট’ একেবারেই আলো ছড়াতে পারেনি। টিমটিম করে একটু জ্বলেই নিভে গেছে। ওদিকে ‘যাব হ্যারি মেট সেজাল’ও লাভের সঙ্গে দেখা করিয়ে দিতে পারেনি পরিবেশকদের। সালমান-শাহরুখ মানে আগে ছিল নিশ্চিত বিনিয়োগ। সালমান টানা বেশ কয়েকটি সুপার হিট দিয়েছেনও, শাহরুখের বৃহস্পতি ফিরছে না। দুজনকে তাই এখন অন্য পথে হাঁটতে হচ্ছে। যে সালমান-শাহরুখরা তাঁদের এত এত লাভ এনে দিয়েছেন, একবার না হয় ক্ষতি মেনে নিলেনই! কিন্তু ব্যবসার কাছে আবেগ চলে না। আর দুজনকেই ক্ষতিপূরণ দিতে হচ্ছে। ‘টিউবলাইট’-এর জন্য সালমান এরই মধ্যে ৩২ কোটি ৫০ লাখ রুপিতে রফা করেছেন। ওদিকে ‘যাব হ্যারি মেট সেজাল’-এর ব্যর্থতার জন্য কেবল এক পরিবেশকেরই ৫০ কোটি রুপি গচ্চা গেছে বলে খবর এসেছে। মোট ক্ষতির আপস-রফার আলোচনা এখনো শুরু হয়নি। গত মাসে সালমান ও তাঁর বাবা সেলিম খান পরিবেশকদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবেশকদের সঙ্গে অনেক মুলামুলির পর ঠিক হয়, সালমান তাঁদের ৫০ থেকে ৫৫ কোটি রুপি ক্ষতিপূরণ দেবেন। পরে নতুন সিদ্ধান্ত হয়, মোট ক্ষতির অর্ধেক অর্থ ফেরত দেবেন সালমান। গুনে গুনে ৩২ কোটি ৫০ লাখ রুপি দিতে হবে তাঁকে। গত মাসের শেষ নাগাদ এই অর্থ বুঝিয়ে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবির শুটিংয়ে মরক্কোতে ছিলেন বলে যথাসময় সাল্লু ক্ষতিপূরণের টাকা বুঝিয়ে দিতে পারেননি। এখন সালমান এই ছবির শুটিংয়ে আবুধাবিতে আছেন। আগামী সেপ্টেম্বর নাগাদ শুটিং পুরোপুরি শেষ হবে। দেশে এসেই সালমান প্রথমে তাঁর দেওয়া কথা রাখবেন। শ্রেয়াস হিরাওয়াত নামের একই পরিবেশক ‘টিউবলাইট’-এর পাশাপাশি শাহরুখ-আনুশকা শর্মার ‘যাব হ্যারি মেট সেজাল’-এর পেছনেও বিশাল অঙ্কের অর্থ বিনিয়োগ করেছিলেন। শ্রেয়াস একাই ৫০ কোটি রুপির মতো ক্ষতির মুখে আছেন। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, কিং খানকেও ‘ভাইজানে’র পদাঙ্ক অনুসরণ করতে হচ্ছে। সিনেমা মানে শুধু কোটি রুপি আয় নয়, কখনো কখনো কোটি কোটি রুপির ক্ষতিও। বলিউড হাঙ্গামা।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।