চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ৫ অক্টোবর ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সরোজগঞ্জে আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৪

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ৫, ২০২০ ৯:১৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদক:
আসন্ন ইউপি নির্বাচনে কে হবেন দলীয় প্রার্থী এই নিয়ে চুয়াডাঙ্গা সদরের সরোজগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুইগ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয়পক্ষের চারজন আহত হন। গতকাল রোববার দুপুর ১২টার পরে কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মানিক ও সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানার মধ্যে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে সংঘর্ষ ও হামলা পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে। এতে মানিক চেয়ারম্যান গ্রুপের সরোজগঞ্জ খাদ্যগুদামপাড়ার তারিখ আহম্মেদের ছেলে অন্তু (২০) ও মহাম্মদজমা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে সাব্বির হোসেন (২৫) আহত হন। অন্যদিকে এ ঘটনায় সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা গ্রুপের জুয়েল রানার ম্যানেজার ও গাড়িচালক যাদবপুর পাম্পপাড়ার আলম মিয়ার ছেলে জুয়েল হোসেন (২৪) ও ভুলটিয়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে আলমগীর হোসেনও (৩০) আহত হন। আহত চারজনকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সংবাদ পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর সার্কেলের অতিরিক্তি পুলিশ সুপার কনক কুমার দাস, চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি তদন্ত লুৎফর কবির, সরোজগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আব্দুল আলিম ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। এ ঘটনায় দুইপক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনার পর থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। যেকোনো সময় বড়ধরণের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী।
এবিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) লুৎফুল কবির জানান, ‘সরোজগঞ্জে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক আছে। পুলিশ কাউকে কোনো প্রকার অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরী করতে দেবে না।’
এবিষয়ে কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মানিক ও সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।