চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১৭ অক্টোবর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সরকারের দ্বিতীয় ধাপে আবারো দিয়েছে ২৩ কলেজ জাতীয়করণের ঘোষণা নেই আলমডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের নাম ! এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ১৭, ২০১৬ ১১:০৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

wer34

আলমডাঙ্গা অফিস: সরকার দ্বিতীয় ধাপে জাতীয়ীকরণের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতিপ্রাপ্ত আরো ২৩ কলেজের নাম শিক্ষামন্ত্রনালয়ের হাতে দিয়েছেন। ২৩টি উপজেলায়ই একটি করে মোট ২৩টি কলেজ জাতীয়করণের জন্য সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলো পরিদর্শনের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। কলেজগুলোর নাম: ঢাকার নবাবগঞ্জের দোহার নবাবগঞ্জ কলেজ, মানিকগঞ্জের হরিরামপুরের বিচারপতি নূরুল ইসলাম মহাবিদ্যালয়ী, দৌলতপুরের মতিলাল ডিগ্রি কলেজ, ফরিদপুরের সালথা কলেজ, শরীয়তপুরের জাজিরার বি.কে নগর বঙ্গবন্ধু কলেজ, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ার বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা মহাবিদ্যালয়ী, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া কলেজ, শেরপুরের ঝিনাইদহগাতীর আদর্শ মহাবিদ্যালয়, চট্টগ্রামের হাটহাজারি কলেজ, কুমিল্লার হোমনা ডিগ্রি কলেজ, সিলেটের বিশ্বনাথ কলেজ, রাজশাহী তানোরের আব্দুল করিম সরকার কলেজ, দুর্গাপুরের দাওকান্দি ডিগ্রি কলেজ, নওগাঁর মান্দা মমিন-শাহানা ডিগ্রি কলেজ, সিরাজগঞ্জের কামারখন্দের কাজী কোরাপ আলী মেমোরিয়ীাল ডিগ্রি কলেজ, বগুড়ার নন্দীগ্রাম মহিলা ডিগ্রি কলেজ, শিবগঞ্জ এমএইচ মহাবিদ্যালয়ী, রংপুরের তারাগঞ্জ ওয়াকফ এস্টেট কলেজ, দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট ডিগ্রি কলেজ, চিরিরবন্দর ডিগ্রি কলেজ, খুলনার তেরখাদার নর্থ খুলনা কলেজ, দিঘলিয়া এমএ মজিদ ডিগ্রি কলেজ এবং কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা মহিলা কলেজ। এবারও চুয়াডাঙ্গা জেলার সর্ববৃহৎ উপজেলা আলমডাঙ্গা উপজেলার ডিগ্রী কলেজের নাম না থাকায় শিক্ষক ও এলাকাবাসীর মাঝে হতাশা ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘ ৫২ বছর আগে প্রতিষ্ঠিত এই কলেজের রয়েছে নানা ঐতিহ্য। প্রতিষ্ঠার পর বহুবার কলেজ সরকারি করার কথা বল্লেও প্রতিবারই প্রতারিত হয়েছে কলেজটি। সরকার ইতোপূর্বে সরকারি করনের তালিকায় আলমডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজের নাম দেন এবং মন্ত্রনালয়ের তদন্ত, শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে তদন্ত হয়। কিন্তু তার পরও এই কলেজের নাম এবারও বাদ পড়ে যাওয়ায় শিক্ষকদের হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে। উল্লেখ্য, চুযাডাঙ্গা জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মীর মহি উদ্দিন, আলমডাঙ্গা মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন। যা কলেজের নামফলকে উল্লেখ করা আছে। ইতোমধ্যে নানা সূত্র থেকে জানা যায়, মহিলা কলেজের শিক্ষকরাও কলেজ সরকারি করণের লক্ষে প্রায় ৫০লক্ষ টাকা উত্তোলন করে মীর এন্ড এসোসিয়েটের হিসাব নম্বরে জমা দিয়েছেন। মহিলা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা বিএনপি নেতা মীর মহি উদ্দিন মহিলা কলেজকে সরকারি করতে জাতীয় পর্যায় থেকে যেভাবেই হোক সরকারি করবে বলে ঘোষণা দেন। এদিকে আলমডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের সভাপতি ও জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি আলমডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের শিক্ষকদের সভায় ঘোষণা দেন অত্র কলেজ বহুবার প্রতারিত হলেও এবার বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে এই কলেজকে সরকারি করণ করা হবে। কিন্তু ২৩টি কলেজ সরকারি করণের তালিকায় আলমডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের নাম না থাকায় শিক্ষক ও এলাকাবাসীর ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে। সরকার এর আগে গত জুন মাসে সারা দেশের আরও ১৯৯টি বেসরকারি কলেজ সরকারি করার সিদ্ধান্ত নেয়। এই ২৩টিসহ জাতীয়ীকরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পাওয়া কলেজের সংখ্যা হলো ২৮৬। এখনও এগুলোর বিষয়ে চূড়ান্ত আদেশ জারিহয়নি। আনুষঙ্গিক কাজ চলছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, যেসব উপজেলায় সরকারি কলেজ নেই, সেগুলোতে একটি করে কলেজ সরকারি করার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে অভিযোগ উঠেছে, যেনতেন কিছু কলেজও জাতীয়ীকরণ করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন এলাকায় আর্থিক লেনদেনেরও অভিযোগ উঠেছে। এর আগে এ নিয়ে প্রথম আলোয় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। এসব কলেজের আত্তীকৃত হওয়া শিক্ষকেরা আপাতত অন্য কলেজে বদলি হতে পারবেন না। মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে জানা গেছে বর্তমানে সারা দেশে ৩৩৫টি সরকারি কলেজ আছে। সরকারের পরিকল্পনা হলো আরও তিন শতাধিক কলেজকে সরকারি করা হবে। এদিকে আত্তীকৃত শিক্ষকদের বিসিএস ক্যাডারে অন্তর্ভুক্ত করা নিয়ে বিদ্যমান বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের শিক্ষকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির নেতারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও এ বিষয়ে মন্তব্য করছেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।