চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৮ জুলাই ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সরকারি অনুদান নিয়েছেন দুই কোটিপতি!

সমীকরণ প্রতিবেদন
জুলাই ৮, ২০২১ ৯:৩২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

প্রতিবেদক, কালীগঞ্জ:
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে দুই কোটিপতি ব্যবসায়ী নিয়েছেন করোনাকালীন সময়ে সরকারি প্রণোদনার ৫০০ টাকা ও ১০ কেজি করে চাল। গত ৪ জুলাই কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নবনির্মিত অডিটোরিয়ামে এ অনুদান গ্রহণ করেন তারা। সরকারি অনুদান নেওয়া দুই ব্যবসায়ীরা হলেন- শহরের কলেজ রোড সংলগ্ন কাঁচামাল-হাট এলাকার রাজ এন্টারপ্রাইজের মালিক রাজু দাস ও থানাপাড়া পূজামণ্ডপ এলাকার নিলয় জুয়েলার্সের মালিক খোকন সরকার।
জানা গেছে, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে যাত্রাশিল্প উন্নয়ন পরিষদের সদস্যদের সরকারি অনুদান প্রদানের জন্য তালিকা চাওয়া হয়। যাত্রা শিল্পীদের এই নাম প্রদান করেন সংগঠনের সভাপতি এস.এম আসাদুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক খোকন সরকার। এরপর গত ৪ জুলাই কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের অডিটোরিয়ামে নগদ ৫০০ টাকা ও ১০ কেজি করে চাল প্রদান করা হয়। এসময় কোটিপতি ব্যবসায়ী রাজু দাস ও যাত্রা শিল্প পরিষদের সাধারণ সম্পাদক খোকন সরকারও এই অনুদানের টাকা ও চাল গ্রহণ করেন।
এদিকে, দুই কোটিপতি ব্যবসায়ী সরকারি অনুদান নেওয়ায় শহরজুড়ে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে। অনুদান পাওয়া রাজু দাসের রাজ এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তিনি যমুনা ও জি-গ্যাস কোম্পানির ডিলার, ভিশন গ্যাস চুলার ডিলার, দুইটি পিকআপ গাড়ি, সরকারি অনুমোদিত সার কীটনাশক বিক্রির ডিলার, মোবাইল বিক্রির ব্যবসা এবং বড় দুইটি গোডাউনের মালিক। যে গেডাউনে সার্বক্ষণিক ৩ থেকে ৪ হাজার গ্যাস সিলিন্ডারও মজুদ থাকে।
অপরজন খোকন সরকার একজন স্বর্ণ ব্যবসায়ী। তার নিলয় জুয়েলার্স নামে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। শহরের থানাপাড়া এলাকায় বসবাস করেন তিনি। এছাড়াও তিনি যাত্রা শিল্প উন্নয়ন পরিষদের কালীগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক।
আনুদান পাওয়া ব্যবসায়ী রাজু দাস সরকারি আনুদানের টাকা ও চাল পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তার নাম দিয়েছেন। তার যাত্রা শিল্প সমিতির কার্ডও আছে। অডিটোরিয়ামে গিয়ে নগদ ৫০০ টাকা ও ১০ কেজি চাল নিয়েছি। যেটা বাইরে এসে সঙ্গে সঙ্গে গরীবদের দিয়েও দিয়েছি।
কালীগঞ্জ উপজেলা যাত্রা শিল্প উন্নয়ন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক খোকন বিষয়টি স্বীকার করে জানান, করোনাকালে কোথাও কোনো প্রোগ্রাম হয় না। আমরা এ সময়ে খুব কষ্টে আছি। এজন্য সরকারের দেওয়া সহায়তা নিয়ে অন্য একজন গরীব যাত্রা শিল্পীকে দিয়ে দিয়েছি।
এবিষয়ে কথা বলতে কালীগঞ্জ যাত্রা শিল্প উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি এস.এম আসাদুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে, যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহিল আল মাসুম জানান, এই অনুদান জিআর থেকে প্রদান করা হয়েছে। ইউএনও সুবর্ণা রাণী সাহা আজ (গতকাল বুধবার) তা হস্তান্তর করেছেন। নতুন ইউএনও যোগদান করেছেন। এর বেশি আর কিছু জানি না।

Girl in a jacket

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।