চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ১৮ নভেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শীত আসছে, আন্দামানে লঘুচাপ আগের অবস্থায়

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
নভেম্বর ১৮, ২০২১ ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

শীত আসছে, হিমালয়ের ঠিক ওপারেই উত্তুরে কনকনে ঠাণ্ডা হাওয়া অপেক্ষা করছে। তবে তা বেশিদিন স্থায়ী হবে না। ইতোমধ্যে পশ্চিমবঙ্গে হিমালয়ের পাদদেশীয় এলাকায় বিরাজ করছে একটি উচ্চচাপ বলয়। এটি একটি ঠাণ্ডা বায়ুর বলয়। এই উচ্চচাপ বলয় দীর্ঘ সময় অবস্থান করলে শীতের মাত্রা বেড়ে থাকে। শীত ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়তে থাকে চারপাশের এলাকায়। গত শীত মৌসুম চলে যাওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গ এলাকায় আজকের উচ্চচাপ বলয়টিই প্রথম।
অন্য দিকে আন্দামান সাগরে সৃষ্ট একটি লঘুচাপ বর্তমানে দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। লঘুচাপটি গুরুত্বহীন না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশে সার্বিক তাপমাত্রার তেমন পরিবর্তন হবে না। তবে আবহাওয়াবিদরা বলছেন, আশা করা হচ্ছে খুব শিগগিরই লঘুচাপটি একটি পর্যায়ে আসবে। উচ্চচাপ বলয়ের সৃষ্টি হলে উপর থেকে ঠাণ্ডা বায়ু নিচে নেমে আসে। এটা স্থলভাগেই হয়ে থাকে। সাগরে হয়ে থাকে লঘুচাপ অথবা নিম্নচাপ। যেখানে বা যে এলাকায় উচ্চচাপ বলয় বিরাজ করে সে এলাকায় ঠাণ্ডা হাওয়া খুব দ্রুত নিচে নেমে যায়। বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত লঘুচাপটি স্থলভাগের তাপমাত্রা নিচে নেমে যাওয়ায় বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। সাধারণত আকাশে ৩০ হাজার ফুট উচ্চতায় খুবই ঠাণ্ডা বায়ু প্রবাহিত হতে থাকে। ওই ঠাণ্ডা বায়ুর কিছুটা ঝাপটা নিচে নেমে এলেই স্থলভাগে প্রচণ্ড শীত অনুভূত হয়। বাংলাদেশের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আজ থেকে সামনের পাঁচ দিন রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে। এর মধ্যেই সাগরের লঘুচাপটি হয়তো শক্তি বাড়িয়ে সামনের এগিয়ে আসতে পারে। বর্তমান লঘুচাপটি থেকে শেষ পর্যন্ত ঝড় হলেও তা বাংলাদেশের উপকূলে আসবে না বলে মডেল পূর্বাভাসগুলো আগেই বলে দিয়েছে। গত ১৩ নভেম্বর আন্দামানে লঘুচাপটি সৃষ্টি হলেও গত পাঁচ দিন ধরে প্রায় একই জায়গায় অবস্থান করছে। পানিতে দীর্ঘ সময় লঘুচাপ অবস্থান করলে তা থেকে নিম্নচাপ হলে অথবা ঝড় হলেও সেগুলো অনেকটাই শক্তিশালী হয়ে ওঠে। তবে এখনকার লঘুচাপের একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিদ্যমান। উত্তর থেকে অথবা উত্তর-পূর্ব বা উত্তর-পশ্চিম থেকেও ঠাণ্ডা হাওয়া বাংলাদেশে প্রবেশ করে থাকে। কিন্তু লঘুচাপের বর্ধিতাংশ যদি আরো কিছুটা সময় উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করে তাহলে উত্তুরে হাওয়া তেমন ঢুকবে না। বর্তমান পরিস্থিতিতে সামনে দুই থেকে তিন দিন একটু ঠাণ্ডা বাড়তে পারে।

আবহাওয়া অফিস আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পূর্বাভাসে জানিয়েছে, সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকবে এবং রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। তবে বায়ুতে আর্দ্রতার পরিমাণ এখন থেকে আরেকটু কমে গেলে সার্বিক তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকলেও শীতের মাত্রা বাড়বে। কারণ আর্দ্রতা না থাকলে বায়ু ঠাণ্ডা হয়ে যায়। গতকাল বুধবার দেশের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে কক্সবাজারে ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং তেঁতুলিয়ায় ১৪.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাজধানী ঢাকায় সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ৩০.৪ ও ১৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।