চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ১৯ জানুয়ারি ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শর্ত সাপেক্ষে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগের নির্দেশ মন্ত্রণালয়ের

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জানুয়ারি ১৯, ২০২২ ৩:০৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ভেরিফিকেশনের পাশাপাশি শিক্ষক নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হবে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পুলিশ ভেরিফিকেশন চলমান রেখেই শর্ত সাপেক্ষে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। গত সোমবার (১৭ জানুয়ারি) শিক্ষামন্ত্রণালয়ের উপসচিব আনোয়ারুল হক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ‘বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) কর্তৃক ৩য় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত ৩৮,২৮৩ জন প্রার্থীর প্রাক নিয়োগ জীবন বৃত্তান্ত যাচাই (পুলিশ/নিরাপত্তা ভেরিফিকেশন) কার্যক্রম চলমান অবস্থায় নিয়োগ সুপারিশ প্রদান।’ এটি কার্যকর করতে ইতোমধ্যে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে ভেরিফিকেশন শেষ না করেই ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত জানানো হয়। তবে এ নিয়োগে কয়েকটি শর্ত দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন এনটিআরসিএর সচিব মো. ওবাইদুর রহমান। শর্তগুলোর মধ্যে রয়েছে: ১. নিয়োগ সুপারিশপ্রাপ্ত কোনো শিক্ষকের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট এজেন্সি কর্তৃক ভেরিফিকেশনে কোনো আপত্তি উত্থাপিত হলে অবিলম্বে ওই সুপারিশপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে। একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীকে চাকরি থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হবে। ২. প্রার্থীর পুলিশ ভেরিফিকেশনে বিরূপ মন্তব্য পাওয়া গেলে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক মন্ত্রণালয়কে অবহিত করতে হবে। ৩. বিরূপ মন্তব্যসম্পন্ন শিক্ষককে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও প্রার্থীকে জানাতে হবে। এর আগে গত সোমবার (১৭ জানুয়ারি) মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (মাধ্যমিক-২) ফৌজিয়া জাফরীন বলেন, কোনো ব্যক্তিকে নিয়োগের পর যদি তার বিরুদ্ধে পুলিশ ভেরিফিকেশনে আপত্তিকর কিছু আসে তবে তাদের নিয়োগ বাতিল হবে। মূলত যে কারণে ভেরিফিকেশন করা হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এনটিআরসিএকে নির্দেশনা দেওয়া হবে। জানা গেছে, ২০২১ সালের ৩০ মার্চ শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। পরে ১৫ জুলাই প্রাথমিক সুপারিশপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ফল ঘোষণা করা হয়। ফল ঘোষণার প্রায় ছয় মাসেও যোগদান সম্পন্ন হয়নি। বর্তমানে তাদের পুলিশ ভেরিফিকেশন চলমান। এসব প্রার্থী বারবার তাদের দ্রুত যোগদান করানোর দাবি জানাচ্ছিলেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এ সম্মতির বিষয়টি জানার পর প্রার্থীরা স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। তারা দ্রুত সুপারিশপত্র জারি করে তাদের যোগদানের ব্যবস্থা করার জন্য এনটিআরসিএর প্রতি দাবি জানিয়েছেন। একই সঙ্গে যোগদান প্রভাবমুক্ত রাখার দাবি জানিয়েছেন প্রার্থীরা।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।