চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১৩ ডিসেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ল্যাপটপে পানি পড়লে কী করবেন?

প্রযুক্তি প্রতিবেদন:
ডিসেম্বর ১৩, ২০২১ ১১:১২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

এখন ওয়ার্ক ফ্রম হোমের যুগ। বাড়িতে বসেই কাজ সারছেন অনেকে। সেই কারণে বাড়িতে সারাদিনের সঙ্গী ল্যাপটপ। কিন্তু বাড়িতে কাজের নানারকম সমস্যাও আছে। তার মধ্যে একটা হলো একটু অসতর্ক হয়ে কাজ করলে অনেকসময় বিপত্তি ঘটে। পানীয় কোনও জিনিস যদি ল্যাপটপের ওপর পড়ে, তাহলে আপনার একমাত্র যন্ত্রটি অকেজো হয়ে যেতে পারে। তাই দেখে নিন, পানি পড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই পদক্ষেপগুলো নিলে আপনার ল্যাপটপের তেমন কোনও ক্ষতি হবে না বা হলেও সামান্য ক্ষতি হতে পারে। তরল পদার্থ চা, কফি, সফট ড্রিংস, পানি, দুধ ইত্যাদি ল্যাপটপ থেকে দূরে রাখুন। ভুল বশত উলটে গেলে তা যন্ত্রটি নষ্ট করে দিতে পারে। পানি পড়ার সঙ্গে সঙ্গে ল্যাপটপ বন্ধ করে দিন। সমস্ত পাওয়ার সোর্স থেকে এটিকে ডিসকানেক্ট করুন। তাহলে পানির কারণে আপনার ল্যাপটের বড় কোনও ক্ষতি হবে না। যদি ল্যাপটপে বেশি পানি না পড়ে থাকে, তাহলে কিছুক্ষণ রেখে দিন এটি, পানি শুকিয়ে গেলে আবার চালু করুন। বেশি পানি পড়লে আলাদা করে যন্ত্র দিয়ে শুকিয়ে ফেলার ব্যবস্থা করুন। পানির কারণে আপনার কী কী ক্ষতি হতে পারে, সেটা জানা থাকলেও বুঝতে পারবেন পানি পড়ার পর ল্যাপটপের কোনও অংশের কাজ সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ করা উচিত। আপনি যদি বাড়িতে ল্যাপটপ খুলতে পেরে থাকেন, তাহলে পানি পড়ার পর ল্যাপটপের সব অংশ খুলে রাখুন। যাতে পানি শুকিয়ে যায়। না হলে কোনো কম্পিউটার মেরামত করার দোকানে সঙ্গে সঙ্গে নিয়ে যান, তারা খুলে সবটা শুকিয়ে দিতে পারবে। ল্যাপটপ সামনে চিনি আছে এমন জিনিস নিয়ে সব সময় সতর্ক থাকবেন। দেখবেন, যদি চিনি যুক্ত কোনও তরল ল্যাপটপে পড়ে, তাহলে ল্যাপটপের ভিতরে একটি সাদা পাউডারের মতো জিনিস তৈরি হয়, যার আস্তরণের কারণে ল্যাপটপে চার্জ হওয়া বন্ধ হয়ে যায়। অনেক সময় এই কারণেই ল্যাপটপ অন হতে চায় না। ল্যাপটপে পানি পড়ার পর তা খারাপ হওয়াকে তরান্বিত করে ইলেকট্রিক সংযোগ। সেই কারণে সঙ্গে সঙ্গে তা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা জরুরি। সেই সঙ্গে, যত দ্রুত আপনি কাছের কম্পিউটারের দোকানে এটিকে নিয়ে যাবেন, তত বেশি সম্ভাবনা থাকবে এটি ঠিক হয়ে যাওয়ার।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।