চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ১১ ডিসেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

লাল পাসপোর্টেই দেশ ছেড়েছেন ডা. মুরাদ হাসান

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
ডিসেম্বর ১১, ২০২১ ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে পদত্যাগে বাধ্য হওয়া ডা. মুরাদ হাসান তার লাল রঙের কূটনৈতিক পাসপোর্ট ব্যবহার করেই দেশ ছেড়েছেন। তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করলেও একজন সংসদ সদস্য হিসেবে তিনি এ পাসপোর্ট ব্যবহার করতে পারেন। অন্যদিকে, দুই মাস আগে কানাডা সফর করে আসা ডা. মুরাদের আগে থেকেই ভিসা থাকায় যাত্রা সহজ হয়ে যায়।

বিমানবন্দর সূত্র জানায়, কালো মাস্ক ও কালো টুপিতে পরে নিজেকে আড়াল করে রাখা ডা. মুরাদ বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। রাত ১১টা ২০ মিনিটের দিকে এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে তার রওনা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওই ফ্লাইটটি ছেড়ে যায় রাত ১টার পর। ফ্লাইটে ওঠার সময় ভিভিআইপি লাউঞ্জ থেকে বের হয়ে মাথা নিচু করে নিজেকে লুকিয়ে ইমিগ্রেশন পার করেন ডা. মুরাদ। এমিরেটসের ফ্লাইটটি গতকাল সকালেই দুবাই পৌঁছায়। সেখান থেকে তার আরেকটি ফ্লাইটে কানাডা যাওয়ার কথা।

একজন সরকারি কর্মকর্তা জানান, সংসদ সদস্য হিসেবে মুরাদ হাসানের কূটনৈতিক পাসপোর্ট (লাল) রয়েছে। তবে সব সংসদ সদস্য যে কূটনৈতিক পাসপোর্ট গ্রহণ করেন বিষয়টি এমন নয়। উদাহারণ দিয়ে তিনি বলেন, কুয়েতে বাংলাদেশের একজন সংসদ সদস্যকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে এবং ওই সংসদ সদস্য কূটনৈতিক পাসপোর্ট গ্রহণ করেননি; বরং সাধারণ (সবুজ) পাসপোর্ট ব্যবহার করছিলেন তিনি। মুরাদ হাসানের কানাডা সফরের বিষয়ে ওই কর্মকর্তা বলেন, অবশ্যই তিনি ভিসা আগে নিয়েছিলেন এবং ওই কারণে তার পক্ষে ওই দেশে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পদও হারালেন ডা. মুরাদ

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার আওনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য পদও হারালেন ডা. মুরাদ হাসান। বৃহস্পতিবার রাতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে দলীয় সভা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বেল্লাল হোসেন জানান, নেতা-কর্মীদের সঙ্গে অসদাচরণসহ শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদকের পদ হারান ডা. মুরাদ। পরদিন বুধবার তাকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পদ থেকেও অব্যাহতি দেওয়া হয়।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।